টেক ইনসাইড

হোয়াটসঅ্যাপ: ৪৯ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি, রয়েছে বাংলাদেশও

প্রকাশ: ০৯:২৬ পিএম, ২৭ নভেম্বর, ২০২২


Thumbnail

সম্প্রতি ৪৮ কোটি ৭০ লাখেরও বেশি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর চুরি হয়ে গেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশের ৩৮ লাখ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর তথ্যও রয়েছে বলে জানিয়েছে, গবেষণা-ভিত্তিক অনলাইন প্রকাশনা সাইবারনিউজ।

সাইবারনিউজ লিথুনিয়াভিত্তিক একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান, যারা সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যুক্ত হয়ে গবেষণায় কাজ করেন।

সাইবারনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১৬ নভেম্বর হ্যাকিং কমিউনিটি ফোরামে একটি বিজ্ঞাপন পোস্ট করা হয়েছে। বিজ্ঞাপনে বলা হয়, তাদের কাছে ৪৮৭ মিলিয়ন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর মোবাইল নম্বরের তথ্য রয়েছে। এগুলো বিশ্বের ৮৪টি দেশের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর বলে বিজ্ঞাপনে দাবি করা হয়।

বর্তমানে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী ২০০ কোটি। এর মধ্যে এক চতুর্থাংশ ব্যবহারকারীর হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর সাইবার অপরাধীরা চুরি করেছে বলে সাইবারনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, যেসব হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর অপরাধীদের হাতে গেছে, তারা ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের ঝুঁকিতে রয়েছেন।

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ৩২ মিলিয়ন, যুক্তরাজ্যের ১১ মিলিয়ন, রাশিয়ার ১০ মিলিয়ন, ইতালির ৩৫ মিলিয়ন, সৌদি আরবের ২৯ মিলিয়ন, মিশরের ৪৫ মিলিয়ন, ফ্রান্স ও তুরস্কের ২০ মিলিয়ন করে, মালয়েশিয়ার ১১ মিলিয়ন, ভারতের ৬ মিলিয়ন এবং বাংলাদেশের ৩.৮ বিলিয়ন ব্যবহারকারী রয়েছেন।

বিশ্বের এই বিপুল সংখ্যক সক্রিয় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর কীভাবে ফাঁস হয়েছে, তা সাইবার নিউজের রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়নি। তবে রিপোর্টে বলা হয়েছে, সাইবার অপরাধীরা স্ক্র্যাপিং নামক একটি প্রক্রিয়ার সাহায্য নিয়ে পুরো ডেটাবেজ প্রকাশ্যে এনেছেন। এই পদ্ধতিতে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ডেটা সংগ্রহ করা হয়।

ফাঁস হওয়া ফোন নম্বর কাজে লাগিয়ে স্প্যাম মেইল পাঠানোর পাশাপাশি ফিশিং আক্রমণ চালাতে পারে হ্যাকাররা। শুধু তাই নয়, এর মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণও নিতে পারে। এর পাশাপাশি ব্যবহারকারীদের কার্যক্রমের ওপর নজরদারি করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

হোয়াটসঅ্যাপ  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

পলকের সাথে সৌদি আরবের আইসিটি বিষয়ক ভাইস মিনিস্টারের বৈঠক

প্রকাশ: ০৮:১৮ পিএম, ০৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


Thumbnail পলকের সাথে সৌদি আরবের আইসিটি বিষয়ক ভাইস মিনিস্টারের বৈঠক।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও সৌদি আরবের আইসিটি বিষয়ক ভাইস মিনিস্টার হাইথাম ওহেলির মধ্যে সৌদি আরবের  রাজধানী রিয়াদে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে গণ্যমাধ্যমকে জানিয়েছে আইসিটি বিভাগ।  

আইসিটি বিভাগ জানায়, এ সময় তারা স্বার্থ পারস্পরিক বিষয়ে বিশেষ করে বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের  মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতা বৃদ্ধি ও নলেজ শেয়ারিং এর মাধ্যমে ডিজিটাল রূপান্তরকে কিভাবে এগিয়ে নেয়া যায়, সে বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এ সময় প্রতিমন্ত্রী পলক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আইসিটি উপদেষ্টা সচিব ওয়াজের জয়ের তত্ত্বাবধানে "ডিজিটাল বাংলাদেশ" বাস্তবায়ন এবং তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সার্বিক অগ্রগতির গল্প তুলে ধরেন।

পলক বলেন, বাংলাদেশ ও সৌদি আরব মুসলিম অধ্যুষিত দেশ। দুই দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য একই রকম। সে কারণে আমাদের বিশ্বাসের প্রকাশ অভিন্ন। আমি আশা করি, সাইবার নিরাপত্তায় আমরা একে অপরের সঙ্গে এ সঙ্গে কাজ করবো।

সৌদি আইসিটি ভাইস মিনিস্টার তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে আগামী দিনগুলোতে  বাংলাদেশের সাথে কাজ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ সময় সৌদি আরবের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।


পলক   সৌদি আরব   আইসিটি ভাইস মিনিস্টার   বৈঠক  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

শিগগিরই চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী আনছে গুগল : সুন্দর পিচাই

প্রকাশ: ০৩:১৬ পিএম, ০৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


Thumbnail

শিগগিরিই গুগল চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী ‘ল্যামডা’ আনতে চলেছে বলে জানিয়েছেন অ্যালফাবেট ইন্টারন্যাশনাল ও গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই। এটি চ্যাটজিপিটির মতোই এআই বেসড লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডিউল। যেটি সংরক্ষিত বিভিন্ন ডাটা দ্বারা প্রশিক্ষিত।

সম্প্রতি গুগলের চতুর্থ প্রান্তিকের আয়-ব্যয় রিপোর্ট প্রদর্শন সংক্রান্ত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান।

এতে সুন্দর পিচাই বলেন, ব্যবহারকারীরা খুব দ্রুতই গুগলের এআই সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। যা ব্যবহারকারীদের কাছে অনেকটা ‘চ্যাম্পিয়ন’ এর মতো মনে হবে।

সুন্দর পিচাইয়ের ভাষ্য মতে, ল্যামডা চলতি সপ্তাহ ও চলতি মাসেই সাধারণের জন্য উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা গুগলের এআই উন্মুক্ত করার একদম দ্বারপ্রান্তে রয়েছি।

মূলত গত বছরের শেষ দিকে মাইক্রোসফট তাদের চ্যাটজিপিটি উন্মুক্ত করায় রীতিমতো হুমকির মুখে পড়েছে গুগলের ব্যবসায়। তখন থেকেই প্রতিষ্ঠানটি চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ে উঠতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার তাদের এআই প্রজেক্ট ল্যামডাকে সামনে আনতে যাচ্ছে।


সুন্দর পিচাই   চ্যাটজিপিটি   ল্যামডা   গুগল  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর সাথে বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

প্রকাশ: ০৯:৫৭ পিএম, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


Thumbnail ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর সাথে বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ।

বিশ্বব্যাংকের  তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার-এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ডিজিটাল ডেভলপমেন্ট বিষয়ক প্রাকটিস ম্যানেজার বৈজয়ন্তী টি দেশাই এই প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিদলটি  ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার-এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।


সাক্ষাতকালে তারা দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি বিশেষ করে টেলিযোগাযোগ খাতের ডিজিটাল সংযুক্তিসহ অবকাঠামো সংক্রান্ত বিষয়ে মতবিনিময় করেন। এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ইন্টারনেটসহ ডিজিটাল সংযুক্তির বিদ্যমান অগ্রগতি তুলে ধরেন। বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিদলটি তৃণমূল পর্যায়ে, বিশেষ করে দেশের প্রায় প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যন্ত উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগে বাংলাদেশের গৃহীত উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিদলের অপর সদস্যরা হলেন, বিশ্বব্যাংকের ডিজিটাল ডেভলপমেন্ট স্পেশালিস্ট জেরমি বেজনা এবং সুপর্ণা রায়।


ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী   বিশ্বব্যাংক   প্রতিনিধি   সাক্ষাৎ   ইন্টারনেট প্রযুক্তি  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

ফ্রিল্যান্সাররা জ্ঞানভিত্তিক স্মার্ট বাংলাদেশের চালিকা শক্তি: পলক

প্রকাশ: ০৮:৩২ পিএম, ০১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


Thumbnail তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘উদ্ভাবনী ও জ্ঞানভিত্তিক স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের আইটি ফ্রিল্যান্সার ও উদ্যোক্তারা চালিকা শক্তি হবে। এ লক্ষ্য অর্জনে আইসিটি বিভাগের স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড ৫ লক্ষ থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ইকুইটি ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড প্রদান করা হচ্ছে।’ 

প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তির শক্তিকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি অন্যান্য তরুণদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে নিয়ে কাজ করতে সফল ফ্রিল্যান্সাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।  

বুধবার (১ ফ্রেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল অডিটরিয়ামে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ‘লর্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় ঢাকার জেলার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নির্বাচিত ৩১৮ জন সফল ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে ল্যাপটপ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

দেশে সাড়ে ছয় লক্ষ ফ্রিল্যান্সার রয়েছে উল্লেখ করে জোনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ‘সফল ফ্রিল্যান্সাররা তাদের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা দিয়ে যদি উদ্যোক্তা হতে পারে তাহলে আরও লক্ষ লক্ষ তরুণ উদ্যোক্তা সৃষ্টি হবে। আমাদের ভবিষ্যৎ স্মার্ট বাংলাদেশের তরুণরা চাকুরির পিছনে ঘুরবে না চাকুরির ক্ষেত্র তৈরি করবে। বিদেশে কর্মরত প্রবাসী শ্রমিক ভাইয়েরা রেমিটেন্স প্রেরণ করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছে।’ 


তিনি বলেন, ‘দেশের শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের প্রযুক্তি শিক্ষায় দক্ষ করে আইটি ফ্রিল্যান্সার বা উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে পারলে তারা  বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আয় করতে পারবে। এ লক্ষ্য নিয়েই লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে।’

দেশের আইটি ফ্রিল্যান্সারদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প থেকে ১০ লক্ষ এবং এটুআই প্রোগ্রামের ইনোভেশন ফান্ড থেকে ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সীড মানি এবং রকেট্রি, রোবটিক্স ইনোভেশন চ্যালেঞ্জের ক্ষেত্রে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত গ্রান্টসহ প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে হাইটেক পার্ক সমূহে কো-ওয়ার্কিং স্পেস দেয়া হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের কারণে আমাদের কর্মসংস্থানের নতুন নতুন ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে। সে অনুযায়ী দক্ষতা ও যোগ্যতা অর্জনের ব্যর্থ হলে আমরা মারাত্মক সংকটের মধ্যে পড়বো। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় চতুর্থ শিল্পবিপ্লব উপযোগী কর্মক্ষেত্র তৈরি করতে মাইক্রো প্রসেসর ডিজাইনিং অ্যান্ড মেনুফ্যাকচারিং, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, রোবটিক্স এবং সাইবার সিকিউরিটি এ চারটি বিষয়ে জোর দিতে বলেছেন।’

অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আইসিটি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. খন্দকার আজিজুল ইসলাম, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মমতাজ বেগম, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. হুমায়ুন কবীর। পরে প্রতিমন্ত্রী সফল ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে ল্যাপটপ ও সার্টিফিকেট প্রদান করেন।


তথ্য   যোগাযোগ   প্রযুক্তি   প্রতিমন্ত্রী   জুনাইদ আহমেদ পলক  


মন্তব্য করুন


টেক ইনসাইড

ইন্টারনেট ছাড়া গুগল ম্যাপসের ব্যবহার যেভাবে

প্রকাশ: ০৮:৪৮ এএম, ০১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


Thumbnail

প্রয়োজনের সময় যেকোনো ঠিকানা বা অবস্থানের খোঁজ পেতে গুগল ম্যাপসের জুড়ি নেই। কিন্তু সমস্যা একটাই, ইন্টারনেট সংযোগ না থাকলে গুগলের এ ম্যাপস সেবা ব্যবহার করা যায় না। তবে অফলাইন সুবিধা কাজে লাগিয়ে ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই গুগল ম্যাপস ব্যবহার করা সম্ভব। 

অফলাইনে গুগল ম্যাপস ব্যবহারের জন্য প্রথমে গুগল ম্যাপসের ডানদিকের ওপরের অংশে থাকা প্রোফাইল ছবিতে ট্যাপ করে অফলাইন ম্যাপস অপশন নির্বাচন করতে হবে। এরপর ‘সিলেক্ট ইউর ওন ম্যাপ’ অপশনে ক্লিক করে আপনার প্রয়োজনীয় এলাকার ম্যাপ নির্ধারণ করতে হবে। জুম করে নির্দিষ্ট এলাকাও নির্ধারণ করা যাবে। 

এলাকা নির্ধারণ করে ডাউনলোড বাটনে ট্যাপ করলেই নির্দিষ্ট এলাকার ম্যাপ ডাউনলোড হয়ে যাবে। ফলে ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই যেকোনো সময় ম্যাপটি দেখে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাওয়া যাবে।



মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন