ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা: পাইলটের ভুলেই প্রাণ যায় বিপিন রানাওয়াতের

প্রকাশ: ০৮:৫৩ এএম, ১৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা: পাইলটের ভুলেই প্রাণ যায় বিপিন রানাওয়াতের

ভয়াবহ এক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার এক মাসেরও বেশি সময় আগে নিহত হন ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত। তার নিহত হওয়ার পর নানা জল্পনা কল্পনায় হেলিকপ্টারের নানা প্রযুক্তিগত সমস্যার কথা ভেসে বেড়ালেও এবার সেই ভয়াবহ হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার কারণ জানালো ভারতীয় বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে গঠিত তদন্ত কমিটি ‘কোর্ট অফ এনকয়ারি’। সেখানে এই দুর্ঘটনার জন্য অপ্রত্যাশিত আবহাওয়া পরিবর্তনে ফলে পাইলটের ভুলের কথা উল্লেখ্য করা হয়েছে। 

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) এই রিপোর্ট পেশ করে ভারতীয় বিমান বাহিনী। 

এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানিয়েছে, উপত্যকায় অপ্রত্যাশিতভাবে আবহাওয়ার পরিবর্তনে মেঘের মধ্যে হেলিকপ্টার ঢুকে যেতেই দুর্ঘটনা ঘটেছে। পাইলটের বিভ্রান্তিবোধ তথা ‘স্প্যাটিয়াল ডিসওরিয়েন্টেশন’র জন্যই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। 

এক মাসের বেশি সময় ধরে দুর্ঘটনাকবলিত বিমানটির ডাটা রেকর্ডার, ভয়েস রেকর্ডার ও প্রত্যক্ষদর্শীদের জিজ্ঞাসাবাদের পর ‘কোর্ট অফ এনকয়ারি’ জানায়, হঠাৎ আবহাওয়ার পরিবর্তন ও পাইলটের সাময়িক ভুলকেই দুর্ঘটনার কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। 

প্রতিবেদনটি জানানো হয়, পাহাড়ি এলাকার আচমকা খারাপ আবহাওয়া ও ঘন মেঘের মধ্যে হেলিকপ্টারটি ঢুকে পড়াতেই বিপত্তি ঘটে। এতে সাময়িকভাবে বিভ্রান্ত হন পাইলট। ভুলবশত নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। উড়ানের পরিভাষায় যাকে বলা হয় কন্ট্রোল্ড ফ্লাইট ইনটু দ্য টেরেন।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বছরের ৮ ডিসেম্বর দেশটির তামিলনাড়ু রাজ্যে ভয়াবহ সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় বিপিন রাওয়াত ও তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতসহ মোট ১৪ জনের প্রাণহানি ঘটে।

বিপিন রাওয়াত   হেলিকপ্টার   ভারত   দুর্ঘটনা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

উত্তর আফ্রিকায় রাশিয়ার প্রভাব বাড়ছে: আলবারেস

প্রকাশ: ০৬:৩০ পিএম, ২৮ Jun, ২০২২


Thumbnail উত্তর আফ্রিকায় রাশিয়ার প্রভাব বাড়ছে: আলবারেস

আফ্রিকা ঘিরে রাশিয়ার পররাষ্ট্রনীতির লক্ষণীয় পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্পেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসে ম্যানুয়েল আলবারেস। একদিকে উত্তর আফ্রিকার দেশগুলোতে রাশিয়ার উপস্থিতি বাড়ছে অন্যদিকে ওই অঞ্চলগুলোতে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা ও জঙ্গি তৎপরতারও বিস্তার ঘটছে বলেও মন্তব্য করেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী।  

মঙ্গলবার (২৪ জুন) স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সম্মেলন শুরুর আগে অ্যান্টেনা থ্রি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হোসে ম্যানুয়েল বলেছেন, ‘আফ্রিকা এবং উত্তর আফ্রিকার দেশগুলোতে রাশিয়ার উপস্থিতি ক্রমবর্ধমান হারে বাড়ছে।

স্পেনের সরকারি জ্যেষ্ঠ দুই কর্মকর্তা এবং দুটি কূটনৈতিক সূত্র রয়টার্সকে বলেছে, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ফলে ইউরোপ থেকে অভিবাসন মোকাবিলায় সহায়তার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ন্যাটোর কাছে তদবির করছে স্পেন। আর এ জন্য আফ্রিকা ঘিরে  স্পেনের পররাষ্ট্রনীতিও পরিবর্তন করা হচ্ছে।

হোসে ম্যানুয়েল আলবারেস বলেছেন, বিশ্ব সন্ত্রাসবাদের কেন্দ্রস্থল হল সাহেল অঞ্চল। এটি এমন এক এলাকা যেখানে অত্যন্ত দুর্বল প্রতিষ্ঠান, অধিকতর সামরিক জান্তা, খাদ্য সংকট এবং অভিবাসীদের চলাফেরা রয়েছে।

আলবারেস বলেছেন, সাহেল অঞ্চল ছাড়াও দক্ষিণাঞ্চলের সাহারা মরুভূমির পাশে আলজেরিয়ায় রাশিয়ার সৈন্যদের ঘাঁটি আছে কিনা তা তিনি জানেন না। চলতি মাসেই কূটনৈতিক বিবাদের জেরে রাশিয়ার সাথে বন্ধুত্বমূলক একটি চুক্তি স্থগিত করেছে আলজেরিয়া। 

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, আফ্রিকার দিকে নজর দেওয়ার জন্য ন্যাটোর শীর্ষ সম্মেলনের সুবিধা নিতে চায় স্পেন। সম্মেলনে অভিবাসন সমস্যাসহ গোয়েন্দা তথ্য পরস্পরের মধ্যে ভাগাভাগি বৃদ্ধির বিষয়ে অনুরোধ করবে স্পেন।

রাশিয়া   আফ্রিকা   স্পেন   হোসে ম্যানুয়েল আলবারেস  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

জি-২০ সম্মেলনে যোগ দিবেন পুতিন

প্রকাশ: ০৫:৫৭ পিএম, ২৮ Jun, ২০২২


Thumbnail জি-২০ সম্মেলনে যোগ দিবেন পুতিন

আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য জি-২০ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। গতকাল সোমবার মস্কোতে এক সম্মেলনে এ ঘোষণা দিয়েছেন পুতিনের সহকারী ইউরি উশাকভ। 

বিশ্বের বৃহৎ অর্থনীতির দেশগুলোর জোট জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন আগামী ১৫-১৬ নভেম্বর ইন্দোনেশিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

পুতিনের সহকারী ইউরি উশাকভ জানান, আনুষ্ঠানিকভাবে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্টের জানানো আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন পুতিন।

আগামী ৩০ জুন রাশিয়া সফরে যাচ্ছেন ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো ইউদোদো। এ সময় দুই নেতা এ বিষয়ে আলাপ করবেন বলে জানান উশাকভ।


পুতিন   রাশিয়া   সফর   জি-২০   সম্মেলন   ইন্দোনেশিয়া  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

সংঘর্ষে গত এক যুগে ৩ লক্ষাধিক নিহতের রেকর্ড সিরিয়ায়

প্রকাশ: ০৫:৪৫ পিএম, ২৮ Jun, ২০২২


Thumbnail সংঘর্ষে গত এক যুগে ৩ লক্ষাধিক নিহতের রেকর্ড সিরিয়ায়

২০১১ সালের মার্চ থেকে এখন পর্যন্ত সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধে মৃত্যু হয়েছে ৩ লক্ষাধিক বেসামরিক নাগরিকের। গত এক যুগে দেশটিতে ৩ লাখ ৬ হাজারেরও বেশি বেসামরিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন যা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে গৃহযুদ্ধ-সংঘাতে নিহতের হিসেবে সর্বোচ্চ।

জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ পরিস্থিতি নিয়ে একটি নতুন প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) সুইজারল্যান্ডের রাজধানী জেনেভায় কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মানবাধিকার কমিশনের প্রধান মিশেলে ব্যাশেলেট বলেন, ‘সংঘাতের তীব্রতা কত ভয়াবহ ও প্রাণঘাতী হতে পারে, তার প্রমাণ এই প্রতিবেদন। সিরিয়ায় গত প্রায় এক যুদের গৃহযুদ্ধ ও সংঘাতে যত মৃত্যু হয়েছে, তাকে দু-ভাগে ভাগ করা যেতে পারে—১. যারা অস্ত্রের আঘাতে সরাসরি নিহত হয়েছেন এবং ২. যারা সংঘাতের কারণে খাদ্য-পানির সংকট ও অন্যান্য মানবিক বিপর্যয়ের শিকার হয়ে মারা গেছেন। এই প্রতিবেদনে কেবল নিহতের সংখ্যাই উল্লেখ করা হয়েছে।’

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই নিহতদের প্রায় সবাই সংঘর্ষ, গুপ্ত হামলা, গণহত্যা ও স্থল মাইন বিস্ফোরণের শিকার হয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পদত্যাগের দাবিতে ২০১১ সালের মার্চ মাসে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল সিরিয়ায়; কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই সেই বিক্ষোভ সশস্ত্র রূপ নেয়; ২০১৪ সালে সেই পথ ধরেই প্রতিষ্ঠিত হয় আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস।

সিরিয়া   গৃহযুদ্ধ   জাতিসংঘ  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ইসলামাবাদে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিলেন ইমরান খান

প্রকাশ: ০৫:৩৯ পিএম, ২৮ Jun, ২০২২


Thumbnail ইসলামাবাদে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিলেন ইমরান খান

ক্ষমতা থেকে অপসারিত হওয়ার পর আগাম নির্বাচনের দাবিতে আজাদি মার্চ নামে বিক্ষোভ শুরু করেছিলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পরে সরকারের হস্তক্ষেপে ছয় দিনের মাথায় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) আজাদি মার্চ পণ্ড হয়ে গেলে গতকাল সোমবার (২৭ জুন) পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খান  আবার ঘোষণা দিয়েছেন, আগামী ২ জুলাই রাজধানী ইসলামাবাদের প্যারেড গ্রাউন্ডে নেতা-কর্মীদের নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ করবেন তিনি। খবর ডন অনলাইনের।

বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিয়ে ইমরান খান বলেছেন, তিনি ২ জুলাইয়ের বিক্ষোভ সমাবেশের নেতৃত্ব দেবেন। সব বয়স ও পেশার বিশেষ করে তরুণ ও নারীরা এখন রাজনীতি নিয়ে যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি সক্রিয়। বিরোধী দল যখন তাঁকে অপসারিত করে তখন দেশজুড়ে বিক্ষোভ তার প্রমাণ বলে দাবি করেন তিনি।

ইমরান খানের অভিযোগ, দেশের ‘মীর জাফররা’ স্বৈরশাসকদের চেয়েও বেপরোয়াভাবে দেশের সংবিধান, আইন ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ধ্বংস করে দিচ্ছে।

এর আগে সোমবার (২৭ জুন) পিটিআইয়ের শীর্ষ নেতারা এক বৈঠকে করেন। এতে তাঁরা দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি, ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি, ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন। স্থানীয় নির্বাচনে ভোট কারচুপির নিন্দা এবং সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতা নিয়ে উদ্বেগ জানান তাঁরা।

এ ছাড়া ২ জুলাই প্যারেড গ্রাউন্ডের বিক্ষোভ সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়েও দলের নীতি নির্ধারণী কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করতে পিটিআইয়ের রাওয়ালপিন্ডি ও ইসলামাবাদ শাখাকে প্রস্তুতি জোরদার এবং সমাবেশকে ঐতিহাসিক করার জন্য সর্বোচ্চ প্রচারণা চালানোরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



পাকিস্তান   ইমরান খান   পিটিআই   লংমার্চ   সমাবেশ  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রাশিয়ার কালো তালিকায় বাইডেনের স্ত্রী-কন্যাসহ আরো ২৫ জন

প্রকাশ: ০৪:৫৪ পিএম, ২৮ Jun, ২০২২


Thumbnail রাশিয়ার কালো তালিকায় বাইডেনের স্ত্রী-কন্যাসহ আরো ২৫ জন

এবার রাশিয়ার কালো তালিকাভূক্ত হলো যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পত্নী ও কন্যা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পর এবার স্ত্রী-কন্যার উপরও রাশিয়া ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একইসাথে দেশটির বর্তমান সরকারের উচ্চপদস্থ আরো ২৫ জনকে এই কালো তালিকাভূক্ত করা হয়েছে। 

নিষেধাজ্ঞা পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভা কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের মাইন অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি সুসান কলিন্স, কেন্টাকি অঞ্চলের প্রতিনিধি মিচ ম্যাককোনেল, আইওয়া অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি চার্লস গ্রাসলি, নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি ক্রিস্টেন গিলবার্টসহ যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও সাবেক উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তারা রয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) বিজ্ঞপ্তিতে রুশ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘রাশিয়ার রাজনীতিবিদ ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ওপর যুক্তরাষ্ট্র একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি করে যাচ্ছে। সেসব নিষেধজ্ঞার প্রতিক্রিয়াতেই এই ২৫ মার্কিন নাগরিককে ‘স্টপ লিস্টে’ অন্তর্ভুক্ত করা হলো।’

এদিকে, রুশ বাহিনী ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত কয়েক দফায় রাশিয়ার সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্তদের মধ্যে রাশিয়ার মন্ত্রিসভার সদস্য, সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ দুমার ২ শতাধিক জনপ্রতিনিধি রয়েছেন।

ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞার পাল্টা জবাব হিসেবে রাশিয়াও পাল্টা ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে দেশটির মুদ্রা রুবল ডলারের মানকেও ছাড়িয়ে গেছে বলে খবরের শিরোনাম হয়েছে। 

জো বাইডেন   রাশিয়া   নিষেধাজ্ঞা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন