ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ইউরোপ যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

প্রকাশ: ০৬:৪৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail ইউরোপ যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ ইতালির ল্যাম্পেদুসা যাওয়ার পথে নৌকায় হাইপোথার্মিয়ায় (শরীরের তাপমাত্রা হ্রাস) আক্রান্ত হয়ে সাত বাংলাদেশি অভিবাসী মারা গেছেন।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ইতালির অ্যাগ্রিজেনটো শহরের প্রসিকিউটর লুইগি প্যাট্রোনাজ্জিও এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, কোস্টগার্ডের সদস্যরা ল্যাম্পেদুসার কাছে জনবসতিহীন দ্বীপ ল্যাম্পিওনের উপকূল থেকে ২৯ কিলোমিটার দূরে অভিবাসীদের নৌকাটি সারারাত ভাসতে দেখেছেন। পরে অভিবাসীদের উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। তার কার্যালয় অবৈধ অভিবাসন এবং অভিবাসীদের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ল্যাম্পেদুসার মেয়র স্যালভাতোরে মার্তেল্লো ওই সাত বাংলাদেশি অভিবাসীর মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, অভিবাসীদের বহনকারী ওই নৌকায় অন্তত ২৮০ জন ছিলেন; যাদের বেশিরভাগই বাংলাদেশ এবং মিসরের নাগরিক।

হাজার হাজার আশ্রয়প্রার্থী এবং অভিবাসনপ্রত্যাশীর ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার অন্যতম প্রধান রুট ইতালি। গত কয়েক মাস ধরে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ইউরোপ যাওয়ার প্রবণতা ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইতালির সরকারি তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের শুরু থেকে সোমবার পর্যন্ত ইতালির বিভিন্ন বন্দরে এক হাজার ৭৫১ জন অভিবাসী পৌঁছেছেন।

সূত্র: রয়টার্স।


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কবলে হামাস

প্রকাশ: ০৯:১৮ এএম, ২৫ মে, ২০২২


Thumbnail যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার কবলে হামাস

যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়লো ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের ব্যবসায়িক কার্যক্রম। এখন থেকে এই সংগঠনের সাথে যেসব প্রতিষ্ঠান ব্যবসায়িক কার্যক্রমে যুক্ত থাকবে, সেই সাথে হামাসের কার্যক্রমে বিনিয়োগকারীদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করলো বাইডেন প্রশাসন। 

মঙ্গলবার (২৪ মে) এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভয়েজ অব আমেরিকা।

গণমাধ্যমটি জানিয়েছে, হামাসের বিনিয়োগ কার্যালয়কে নিষ্ক্রিয় করার লক্ষ্যেই এমন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি বিভাগ। 

ট্রেজারি বিভাগের সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন ও অর্থনৈতিক অপরাধ বিভাগের সহকারী সচিব এলিজাবেথ রোসেনবার্গের দাবি, হামাসের বিনিয়োগ কার্যালয়ের মালিকানায় ৫০ কোটি ডলারের বেশি সম্পদ রয়েছে। সুদান, তুরস্ক, সৌদি আরব, আলজেরিয়া এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে পরিচালিত হচ্ছে এসব কার্যালয়।

রোসেনবার্গ বলেন, ‘হামাসের বেশ কিছু গোপন বিনিয়োগের তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে। তাদের বিনিয়োগ কার্যালয় এসব দেখাশোনা করে এবং এসব বিনিয়োগ থেকে যথেষ্ট অর্থ আয় করে এই রাজনৈতিক গোষ্ঠী। আর তারপর এই অর্থ তারা ব্যয় করে সন্ত্রাসবাদী কার্যক্রমে। গাজার অধিবাসীরা যে ব্যাপক দরিদ্রতার মধ্যে দিন যাপন করছে, তার জন্য প্রধানত দায়ী হামাস।’

হামাস   ফিলিস্তিন   ইসরায়েল  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

বিশ্বজুড়ে দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা প্রায় সোয়া ছয় লাখ

প্রকাশ: ০৮:৩১ এএম, ২৫ মে, ২০২২


Thumbnail বিশ্বজুড়ে দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা প্রায় সোয়া ছয় লাখ

বিশ্বজুড়ে চলমান মহামারি করোনাভাইরাসে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। একইঙ্গে বেড়েছে শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘন্টায় বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে  মারা গেছেন প্রায় দেড় হাজার মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে প্রায় সোয়া ছয় লাখে।

বুধবার (২৫ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার ৪৬০ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে পাঁচ শতাধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬৩ লাখ তিন হাজার ৪১৬ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ২০ হাজার ৬১৪ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে দেড় লাখের বেশি। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫২ কোটি ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২২২ জনে।

এদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় এই দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫ হাজার ৬২৩ জন এবং মারা গেছেন ৩২৪ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৫২ লাখ ৪১ হাজার ৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২৯ হাজার ৫২৪ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে উত্তর কোরিয়ায়। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩৪ হাজার ৫২০ জন। পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৯ লাখ ৪৮ হাজার ৯০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৬৮ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ হাজার ১৩২ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩১ লাখ ৪১ হাজার ২০০ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ৪৯০ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২২৮ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২ হাজার ৮২০ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৮ লাখ ৩৬ হাজার ৮১৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৫ হাজার ৯৫৫ জনের।

এছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাশিয়ায় ৯০ জন, জার্মানিতে ১৪১ জন, ফ্রান্সে ৮৮ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৫০ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ১৯ জন, থাইল্যান্ডে ৩৬ জন, ইতালিতে ৯৫ জন, জাপানে  ৩০ জন, অস্ট্রেলিয়ায় ৬৮ জন, গ্রিসে ১৪ জন মারা গেছে। 

বিশ্ব করোনাভাইরাস  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

টেক্সাসের প্রাইমারি স্কুলে হামলা, ১৮ শিশুসহ নিহত ২১ জন

প্রকাশ: ০৮:০৬ এএম, ২৫ মে, ২০২২


Thumbnail টেক্সাসের প্রাইমারি স্কুলে হামলা, ১৮ শিশুসহ নিহত ২১ জন

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তরুণ এক বন্দুকধারীর গুলিতে ১৮ শিশু শিক্ষার্থী ও এক শিক্ষকসহ ২১ জন নিহত হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ১৫ জন নিহতের কথা জানানো হলেও পরে তা বেড়ে দাঁড়ায় ২১ জনে। 

বুধবার (২৫ মে) টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবটের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। 

গভর্নর গ্রেগ অ্যাবটের জানান, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে টেক্সাসের রব এলিমেন্টারি স্কুলে এ ঘটনা ঘটে।

রব এলিমেন্টারি স্কুলটি আমেরিকার সপ্তম বৃহত্তম শহর সান আন্তোনিও থেকে প্রায় ৮৩ মাইল (১৩৩ কি.মি.) পশ্চিমে অবস্থিত। এটি একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এর শিক্ষার্থীদের বয়স পাঁচ থেকে ১১ বছর।

গভর্নর আরও জানিয়েছেন, বন্দুকধারী ওই ব্যক্তির নাম সালভাদর রামোস। তার বয়স ১৮। তিনি ওই এলাকারই বাসিন্দা। তিনি শুটিংয়ের সময় একটি হ্যান্ডগান এবং সম্ভবত একটি রাইফেল ব্যবহার করেছিলেন। যদিও এটি এখনও নিশ্চিত নয়।

মর্মান্তিক এ ঘটনায় গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট এবং তার স্ত্রী সিসিলিয়া শোক জানিয়েছেন। এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে তিনি টেক্সাসের বাসিন্দাদের একত্রিত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে ঘটনাস্থলেই বন্দুকধারী রামোস মারা গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, ঘটনাস্থলে পাঠানো পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তার মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও, গুলি বিনিময়ের সময় দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছে। যদিও তারা আশঙ্কামুক্ত।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, বন্দুকধারীর গুলিতে আরও অনেকে আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন ৬৬ বছর বয়সী নারী এবং একজন ১০ বছর বয়সী শিশু আন্তোনিওর বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

টেক্সাসের   স্কুলে   হামলা   নিহত   ২১ জন  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ভ্রমণবান্ধব দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ৩ ধাপ উন্নতি

প্রকাশ: ০৮:০০ এএম, ২৫ মে, ২০২২


Thumbnail ভ্রমণবান্ধব দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ৩ ধাপ উন্নতি

ঘুরতে কার না ভালো লাগে। তবে ঘুরতে গেলে নানা রকম হয়রানি আর বিড়াম্বনাও যেনো এক নিশ্চিত সঙ্গীও। তবে আমাদের দেশের পর্যটন খাত দিন দিন যে আরো উন্নতি করছে তার একটা স্বীকৃতি পাওয়া গেলো আন্তর্জাতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) তৈরি এক সূচকে। বৈশ্বিক ভ্রমণ ও পর্যটন উন্নয়ন সূচক-২০২১ এ তিন ধাপ উন্নতি করে ১১৭টি দেশের মাঝে ১০০তম স্থানে। 

মঙ্গলবার (২৪ মে) ডব্লিউইএফ ‘দ্য ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স-২০২১ : রিবিল্ডিং ফর এ সাসটেইনেবল অ্যান্ড রিজিলিয়েন্ট ফিউচার’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এই সূচক প্রকাশ করেছে। 

দেশগুলোর ভ্রমণ ও পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন, টেকসই ব্যবস্থা এবং নিরাপত্তা ও স্থিতিস্থাপকতার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে এই সূচক তৈরি করা হয়েছে। যেখানে বাংলাদেশের কিছুটা উন্নতি ঘটলেও প্রতিবেশী ভারত পিছিয়ে পড়েছে ৮ ধাপ। দেশটি ২০২০ সালে এই সূচকে ৪৬তম অবস্থানে থাকলেও ২০২১ সালে ৫৪তম স্থানে ঠাঁই পেয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শ্রীলঙ্কা ৭৪তম এবং পাকিস্তান ৮৩তম স্থান নিয়ে তুলনামূলক ভালো অবস্থানে রয়েছে। তবে দক্ষিণ এশিয়ার আরেক প্রতিবেশী নেপালের অবস্থান বাংলাদেশ থেকে পিছিয়ে ১০২তম। 

ডব্লিউইএফ সূচকে শীর্ষ স্থানে রয়েছে জাপানের নাম এবং তলানিতে অবস্থান আফ্রিকার দেশ চাদের (১১৭তম)।

 ডব্লিউইএফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের অনেক অংশে দুই বছর ধরে কোভিড-১৯ মহামারিতে বিপর্যস্ত পর্যটন শিল্পের ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। আর ধকল কাটিয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার এই ধারায় শীর্ষে আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, স্পেন, ফ্রান্স এবং জার্মানি।

তবে সামগ্রিকভাবে আন্তর্জাতিক পর্যটন এবং ব্যবসায়িক ভ্রমণ এখনও প্রাক-মহামারি পর্যায়ের তুলনায় অনেক পিছিয়ে আছে। আন্তর্জাতিক সংস্থা এই সংস্থা বলেছে, টিকাদানের ব্যাপক হার, অধিক উন্মুক্ত ভ্রমণে প্রত্যাবর্তন এবং অভ্যন্তরীণ ও প্রকৃতি-ভিত্তিক পর্যটনের ক্রমবর্ধমান চাহিদার ফলে এই খাতের ঘুরে দাঁড়ানোর গতি প্রবল হয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (২য়) ছাড়া শীর্ষ স্থানে থাকার ১০টি দেশই ইউরোপ, ইউরেশিয়া অথবা এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উচ্চ আয়ের অর্থনীতির দেশ।

সূচকে শীর্ষে রয়েছে জাপান। এছাড়া আঞ্চলিক অন্যতম শক্তিশালী অর্থনীতির দেশ অস্ট্রেলিয়া এবং সিঙ্গাপুর যথাক্রমে ৭ম ও ৯ম স্থানে আছে। ২০১৯ সালের তুলনায় ১২ ধাপ উন্নতি ঘটে ইতালি (১০ম) এবার এই সূচকের শীর্ষ দশে ঢুকে গেছে। আগের বছর কানাডা এই সূচকের ১০তম স্থানে থাকলেও এবার ১৩তম অবস্থানে নেমে গেছে।

শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে আছে, স্পেন (৩য়), ফ্রান্স (৪র্থ), জার্মানি (৫ম), সুইজারল্যান্ড (৬ষ্ঠ) এবং যুক্তরাজ্য (৮ম)। তবে এবারের সূচকে আফগানিস্তান, ভূটান এবং মালদ্বীপ জায়গা পায়নি।

পর্যটন   ডব্লিউইএফ  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ইসরায়েল সফরে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৯:৫৮ পিএম, ২৪ মে, ২০২২


Thumbnail ইসরায়েল সফরে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ইসরায়েল সফরে যাচ্ছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসগলু। ১৫ বছরের মধ্যে এই প্রথম কোন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েলে যাচ্ছেন।

সংবাদমাধ্যমে জানা যায়, চলতি সপ্তাহেই এই সফর হওয়ার কথা রয়েছে। সফরে ইসরায়েলের জ্বালানিমন্ত্রী ফাতিহ দনমেজ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াইর লাপিদের সাথে বৈঠক করবেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এসময় তার সাথে ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারাও থাকবেন।

সফরে জ্বালানি বিষয়ক দ্বিপাক্ষিক আলোচনার কথা রয়েছে। তবে অনেকের কাছেই এই সফর ও বৈঠক ইসরায়েল-তুরস্ক সম্পর্ক জোড়ালো হওয়ার একটি ইঙ্গিত।

২০১৮ সালে ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা ও নিপীড়ন চালানোর প্রেক্ষিতে ইসরায়েলের সাথে তুরস্কের যে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন হয়, এবার সেই সম্পর্ক পুনরায় স্থাপনের সম্ভাবনা দেখছেন অনেকেই। 


ইসরায়েল   সফর   তুরস্ক   পররাষ্ট্রমন্ত্রী  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন