ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ডিজেল-গ্যাসের দাম কমালো শ্রীলঙ্কা

প্রকাশ: ০৬:৩২ পিএম, ০৬ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ডিজেল-গ্যাসের দাম কমালো শ্রীলঙ্কা

বিশ্ববাজারে জ্বালানির দাম কমে যাওয়ায় দক্ষিণ এশিয়ায় নজিরবিহীন অর্থনৈতিক সংকটে বিপর্যস্ত দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় ডিজেল ও এলপি গ্যাসের দাম কমানো হয়েছে। জ্বালানির দাম কমে যাওয়ায় দেশটিতে বাসভাড়াও কমানো হয়েছে; যা কার্যকর হয়েছে বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকেই।

শ্রীলঙ্কার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম কলম্বো পেইজ বলছে, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে বাসভাড়া কমিয়ে নতুন ভাড়া কার্যকর করেছে জাতীয় পরিবহন কমিশন (এনটিসি)।

জাতীয় পরিবহন কমিশনের মহাপরিচালক ড. নীলান মিরান্ডা বলেছেন, এনটিসির সুপারিশ এবং পরিবহন মন্ত্রীর অনুমোদনের পর ন্যূনতম বাসভাড়া ৩৪ রুপি করা হয়েছে।

ডিজেলের দাম কমে যাওয়ায় দেশটিতে বাসভাড়া আগের তুলনায় ১১ দশমিক ১৪ শতাংশ কমানো হয়েছে। ডিজেল সংকটের কারণে এর আগে ২০ শতাংশ বাড়িয়ে ন্যূনতম বাসভাড়া ৩৮ রুপি করা হয়েছিল। জ্বালানির দাম কমে যাওয়ায় এখন ন্যূনতম ভাড়া ৩৮ রুপি থেকে কমিয়ে ৩৪ রুপি করা হয়েছে।

মীরান্ডা বলেছেন, শ্রীলঙ্কা পরিবহন বোর্ড এবং অন্যান্য যাত্রী পরিবহন সংস্থাকে সেদিন রাত থেকেই নতুন ভাড়া কার্যকরের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নতুন রেট অনুযায়ী যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ নেওয়া হচ্ছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে ভ্রাম্যমাণ পরিদর্শক মোতায়েন করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, আগামী সোমবার থেকে দেশটিতে এলপি গ্যাসের দাম কমিয়ে নতুন দাম কার্যকরের ঘোষণা দিয়েছে শ্রীলঙ্কার শীর্ষ গ্যাস কোম্পানি লিটরো গ্যাস কোম্পানি। দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় এবং ভোক্তাবিষয়ক কর্তৃপক্ষের নতুন নির্ধারিত দাম অনুযায়ী, গৃহস্থালির কাজে ব্যবহৃত সাড়ে ১২ কেজির এলপি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ২০০ রুপির বেশি কমতে পারে।

লিটরোর কাছে গ্যাসের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে বলে আশ্বস্ত করেছেন কোম্পানিটির চেয়ারম্যান মুদিথা পেইরিস। তিনি বলেছেন, আমাদের যথেষ্ট গ্যাসের মজুত আছে। ভবিষ্যতে দেশের মানুষকে গ্যাসের জন্য দীর্ঘ সারিতে দাঁড়াতে হবে না। এছাড়া আগামী অক্টোবর পর্যন্ত প্রয়োজনীয় গ্যাসের অর্ডার দেওয়া আছে।

আগস্ট, সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবরের চালান নিশ্চিত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। পেইরিস বলেছেন, বিশ্ববাজারে গ্যাসের দাম কমে যাওয়ার সুবিধা জনগণকে দেওয়া হবে।

শ্রীলঙ্কা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

মাঙ্কিপক্সের টিকা শতভাগ কার্যকরী নয়: ডব্লিউএইচও

প্রকাশ: ০৩:৩৯ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail মাঙ্কিপক্সের টিকা শতভাগ কার্যকরী নয়: ডব্লিউএইচও

বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনাভাইরাসের তাণ্ডব কমলেও, একেবারে বিদায় নেয় নি। এর মধ্যে বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স। এখন পর্যন্ত সারাবিশ্বের ৯২টিরও বেশি দেশে ৩৫ হাজার মাঙ্কিপক্স রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের বেশিরভাগই ইউরোপ এবং উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার বিভিন্ন দেশের বাসিন্দা। এছাড়া ভাইরাসের এই প্রাদুর্ভাবের সাথে যুক্ত ১২ জন মারা গেছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, মাক্সিপক্স প্রতিরোধে যে টিকা দেওয়া হচ্ছে তা শতভাগ কার্যকরী নয়। তাই সংক্রমণ রোধে সচেতনতার ওপর জোর দিতে হবে। টিকা নেওয়া ব্যক্তিরাও মাঙ্কিপক্সে সংক্রমিত হচ্ছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মাঙ্কিপক্স বিষয়ক কারিগরি বিশেষজ্ঞ রোসামুন্ড লুইস জানিয়েছেন, ‌‘আমরা কিছু সংক্রমণের ঘটনায় গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি। এসব তথ্য আমাদের ইঙ্গিত করছে টিকা কোনো পরিস্থিতিতেই ১০০ শতাংশ কার্যকর নয়; সেটা প্রতিরোধমূলক হোক কিংবা সংক্রমণের পরেই হোক। আমরা শুরু থেকেই জেনে এসেছি যে এই টিকা সিলভার বুলেট (জাদুকরী সমাধান) হবে না। টিকার বিষয়ে যেসব প্রত্যাশা করা হচ্ছিল তার সব পূরণ করবে না’।

উল্লেখ্য, গত মাসে মাঙ্কিপক্সের বিষয়ে ‘পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি’ ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। টিকা শতভাগ কার্যকর প্রমাণিত না হওয়ায় এখন প্রতিরোধের ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে জীবনযাপনেও পরিবর্তন আনার আহ্বান জানানো হয়েছে।

মাঙ্কিপক্স   টিকা   শতভাগ কার্যকরী নয়   ডব্লিউএইচও  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

কাবুলে মসজিদে বিস্ফোরণ, নিহত ২১

প্রকাশ: ০২:২৫ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail কাবুলে মসজিদে বিস্ফোরণ, নিহত ২১

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের একটি মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় ২১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) কাবুল পুলিশ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

এর আগে, বুধবার (১৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় মুসল্লিরা প্রার্থনারত অবস্থায় ওই মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে আশেপাশে বাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সিবিএস নিউজ জানিয়েছে, বিস্ফোরণে শিশুসহ ৩৩ জন আহত হয়েছে। তবে এ হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি।

এর আগে, আল জাজিরা এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানায়, নিহতের সংখ্যা ২০ এবং আহত হয়েছেন ৪০ জন। ওই কর্মকর্তার পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

কাবুল পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরান রয়টার্সকে বলেছেন, ‌‘একটি মসজিদের ভেতরে একটি বিস্ফোরণ ঘটেছে... বিস্ফোরণে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে’।

কাবুল   মসজিদ   বিস্ফোরণ   নিহত  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

মাংকিপক্সের নাম ‘ট্রাম্প-২২’ রাখার প্রস্তাব!

প্রকাশ: ০২:০২ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail মাংকিপক্সের নাম ‘ট্রাম্প-২২’ রাখার প্রস্তাব!

বিশ্বজুড়ে নতুন আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স। বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত ৯২টিরও বেশি দেশে ৩৫ হাজার মাঙ্কিপক্স রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও আফ্রিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে সম্প্রতি বিশ্বের বিজ্ঞানী ও চিকিৎসক মহল থেকে মাংকিপক্স ভাইরাসের নাম নিয়ে আপত্তি ওঠেছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের এক খবরে বলা হয়েছে, ‘নির্দোষ’ বানরের নামে ভাইরাসটির নাম হওয়ায় তা পরিবর্তনের জোরালো দাবি ওঠেছে। তাই মাঙ্কিপক্সে নাম নিয়ে জনগণের পরামর্শ চেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এরই মধ্যে সংস্থাটির দফতরে বিভিন্ন নাম জমা পড়েছে। এর মধ্যে এক আবেদনকারী লিখেছেন, তিনি মাংকিপক্স ভাইরাসের নাম রাখতে চান সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নামে। ভাইরাসের নামের জন্য তার পরামর্শ ‘ট্রাম্প-২২’।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিশ্বের বিজ্ঞানী ও চিকিৎসক মহল থেকে মাংকিপক্স ভাইরাসের নাম নিয়ে আপত্তি ওঠেছে। তারা জানিয়েছিল ভাইরাসটির নাম অবিলম্বে বদলানো উচিৎ, কেননা এই নাম মানুষকে ভুল পথে চালিত করবে। মাংকিপক্স ভাইরাসের নামে একটি প্রাণীর নাম জড়িয়ে আছে, যারা আদতে এই ভাইরাস ছড়ায় না।  

ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, যেসব নাম জমা পড়েছে, তার মধ্যে জনপ্রিয়তার তালিকায় শীর্ষে আছে এমপক্স। তবে ট্রাম্প-২২ এর মতো কিছু অদ্ভুত নামও এসেছে তাদের দফতরে।  

তবে সংস্থাটি জানিয়েছে, ট্রাম্প ২২-এর সঙ্গে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের নামের সম্পর্ক নেই। আসলে ট্রাম্প ২২-এর পুরো নাম ‘টক্সিক র‌্যাশ অব আনরেকগনাইজড মিস্টেরিয়াস প্রোভেন্যান্স অব ২০২২’।

মাংকিপক্স   নাম ‘ট্রাম্প-২২’   রাখার প্রস্তাব  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানির সিদ্ধান্ত মিয়ানমারের

প্রকাশ: ০১:৫৬ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানির সিদ্ধান্ত মিয়ানমারের

রাশিয়া থেকে পেট্রোল ও জ্বালানি তেল আমদানির ঘোষণা দিয়েছে মিয়ানমারের সামরিক সরকার। জ্বালানির দাম কমাতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সেনা মুখপাত্র।

ইউক্রেনে সেনা অভিযানের পরও রাশিয়ার সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রক্ষা করে চলেছে মিয়ানমার।

সামরিক মুখপাত্র জ মিং তুন বলেন, ‘রাশিয়ার কাছ থেকে পেট্রোল আমদানি করার অনুমতি আমরা পেয়েছি।’ তার দাবি, কম দাম আর ভালো মানের জন্য তারা রাশিয়ার জ্বালানি বেছে নিয়েছেন।

আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে রাশিয়ার তেল মিয়ানমারে পৌঁছতে শুরু করবে বলে জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম। গেল মাসে রাশিয়ার সফরের সময় তেল গ্যাস নিয়ে আলোচনা করেছিলেন মিয়ানমারের সেনাপ্রধান জেনারেল মিং অং হ্লাং। 

বর্তমানে সিঙ্গাপুর হয়ে জ্বালানি আমদানি করছে মিয়ানমার।

সূত্র: রয়টার্স

রাশিয়া   জ্বালানি তেল   আমদানি   মিয়ানমার  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

জার্মানি ও পোল্যান্ডের নদীতে হাজার হাজার মাছের মৃতদেহ

প্রকাশ: ১১:১৩ এএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail জার্মানি ও পোল্যান্ডের নদীতে হাজার হাজার মাছের মৃতদেহ

জার্মানি আর পোল্যান্ডের ওডার নদী হাজার হাজার মাছের মৃতদেহ নিয়ে বয়ে চলছে। ধারণা করা হচ্ছে, কোনো বিষাক্ত উপাদানের কারণেই নিরাপদ আশ্রয়েও মাছেরা আর নিরাপদ নেই। ওডার নদীর পানি একসময় রোদের আলোয় ঝিলিক দিতো, সেই আলোয় দল বেঁধে ভেসে বেড়াতে জীবন্ত রুপালি মাছ। এখনো পানি আলো খেলে, তবে সেই আলোয় ভাসে শুধু মৃত মাছ।

ওডার নদীতে গত জুলাই থেকেই চলছে মাছেদের মরে মরে ভেসে ওঠা। পানিতে বিষাক্ত কিছু মিশেছে আর সে কারণেই মাছ মরছে- এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত। তবে কী ধরনের বিষ তা এখনো জানা যায়নি। নদীকে বিষমুক্ত করার উপায়ও তাই আপাতত অজানা। আপাতত দুই দেশেই ওডারের তীরে শোভা পাচ্ছে কিছু সতর্কবার্তা, সেখানে মূলকথা একটাই ‘বিষ আছে, তাই এই নদীর থেকে পানি থেকে দূরে থাকুন!’

পোল্যান্ডের ক্রানিক ডোলনিতেও ওডার নদীর এখানে-ওখানে ভেসে উঠছে নানা ধরনের মাছ। মৃত মাছ উদ্ধারে সেখানেও ব্যস্ত সময় কাটছে সেনা সদস্যদের।

এদিকে জার্মানির ফ্রাংকফুর্ট শহরে ওডার নদী থেকে মৃত মাছ উদ্ধার এবং এভাবে অজস্র টন মাছের মৃত্যুর কারণ জানার চেষ্টা করছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মী, ডুবুরি, ফেডারেল এজেন্সি ফর টেকনিক্যাল রিলিফ (টিএইচডাব্লিউ) এবং জার্মান রেড ক্রসের (ডিআরকে) কর্মীরা। এক ছবিতে দেখা যায়, তাদের সঙ্গে কথা বলছেন জার্মানির পরিবেশমন্ত্রী স্টেফি লেমকে।

ওডার নদীতে এত মরা মাছ ভেসে উঠছে যে সেগুলো উদ্ধার করতে দুই দেশেই গড়তে হয়েছে বিশেষ ভ্রাম্যমাণ দল। সেই দলের সদস্যরা প্রতিদিন নৌকা নিয়ে বেরিয়ে পড়েন, তীরে ফেরেন প্রচুর মৃত মাছ নিয়ে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে 


জার্মানি   পোল্যান্ড   নদী   মাছ   মৃতদেহ  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন