ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

যুক্তরাজ্য সরকারের 'সিটি মিনিস্টার' টিউলিপ সিদ্দিকের কাজ কী?

প্রকাশ: ০১:৩৮ পিএম, ১০ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী কিয়ার স্টারমারের মন্ত্রিসভায় স্থান পেয়েছেন বঙ্গবন্ধুর নাতনী টিউলিপ সিদ্দিক। যুক্তরাজ্য সরকারের 'সিটি মিনিস্টার' নিযুক্ত হওয়া টিউলিপ সিদ্দিক আর্থিক পরিষেবা খাতের তত্ত্বাবধানের দা‌য়িত্ব পালন কর‌বেন। ব্রেক্সিট, ইউ‌ক্রেন যুদ্ধসহ নানা কার‌ণে অর্থনৈতিকভা‌বে চা‌পের মু‌খে থাকা ব্রিটে‌নের আর্থিক খা‌তের পুনর্গঠন নতুন লেবার সরকা‌রের অন্যতম প্রধান প্রতিশ্রুতি।

গেল সপ্তাহের নির্বাচনে ভূমিধস বিজ‌য়ের পর নতুন প্রধানমন্ত্রী কিয়ার স্টারমার টিউ‌লিপ‌কে এই গুরুত্বপূর্ণ প‌দে দা‌য়িত্ব দেন। যদিও, বিরোধী দলে থাকাকালীন লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করায় টিউলিপের মন্ত্রিত্ব পাওয়ার বিষয়টিন একপ্রকার অনুমেয় ছিল। এবা‌রের মন্ত্রিসভা গঠ‌নের শুরু থে‌কে মূলত মন্ত্রী‌দের কাজ করার যোগ্যতা‌কে প্রাধান্য দি‌য়ে পদায়ন ক‌রে আস‌ছি‌লেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

যুক্তরাজ্যের সিটি অব লন্ডন এবং বৃহত্তর আর্থিক পরিষেবা শিল্পের দায়িত্বশীল সি‌টি মি‌নিস্টারের পদ‌টির দায়িত্বগুলোর মধ্যে আর্থিক প্রযুক্তির নিয়ন্ত্রণ, ক্রিপ্টো সম্পদ এবং ঋণ ব্যবস্থাপনা নীতি অন্তর্ভুক্ত। আর এটি ব্রিটিশ সরকারের মধ্যম স্তরের মন্ত্রীর একটি পদ। ২০০৮ সা‌লে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন ‘সিটি মিনিস্টার’ পদ‌টি সৃ‌ষ্টি ক‌রেন। লর্ড মাইনার্স ২০০৮ থে‌কে ২০১০ সাল পর্যন্ত এ প‌দে দায়িত্ব পালন করেন।

৪১ বছর বয়সী টিউ‌লিপ একজন পেশাদার রাজনী‌তি‌বিদ। দ‌লের ভেত‌রে একজন প্রজ্ঞাবান মেধাবী রাজনী‌তি‌বিদ হি‌সে‌বে তি‌নি প‌রি‌চিত। ছায়া 'সি‌টি মি‌নি‌স্টার' হি‌সে‌বে লেবার পার্টি বি‌রোধী দ‌লে থাকা অবস্থায় দা‌য়িত্ব পালন ক‌রেন টিউ‌লিপ। আর এবার প্রায় ১৪ বছর পর দল ক্ষমতায় আসার পরপরই এ প‌দেই মন্ত্রীর দা‌য়িত্ব পে‌লেন তিনি। সাধারণত অর্থমন্ত্রণালয়ের অধীনে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দফতর থাকে এবং তারই একটির নেতৃত্বে থাকছেন টিউলিপ।


২০১৫ সালে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এক নির্বাচনে লন্ডনের হ্যাম্পস্টেড এন্ড কিলবার্ন আসন থেকে প্রথমবারের মতো জয়ী হয়ে এমপি হন টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি সেবার জিতেছিলেন মাত্র ১১৩৮ ভোটের ব্যবধানে। তবে এবারের নির্বাচনে তিনি প্রায় পনের হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। 

টিউলিপ লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের কিংস কলেজ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন এবং ২০১০ সাল থেকে চার বছর ক্যামডেন কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন। ২০১৬ সাল থেকে তিনি লেবার পার্টির হয়ে ছায়া শিক্ষামন্ত্রী, সর্বদলীয় পার্লামেন্টারি গ্রুপের ভাইস চেয়ার, নারী ও সমতা নির্বাচন কমিটির সদস্যের মতো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

লন্ডনে জন্মগ্রহণ করা মিজ সিদ্দিক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনী এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার কন্যা।


টিউলিপ সিদ্দিক   সিটি মিনিস্টার   যুক্তরাজ্য   স্টারমার  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

কুয়েতে বিশাল তেলের খনির সন্ধান

প্রকাশ: ০৪:৫৭ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

মধ্যপ্রাচ্যের উপসাগরীয় অঞ্চলে অবস্থিত তেলসমৃদ্ধ দেশ কুয়েত একটি বড় জ্বালানি তেলের খনির সন্ধান পেয়েছে। কুয়েত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (কেপিসি) চেয়ারম্যান শেখ নাওয়াফ সৌদ নাসির রবিবার এক ভিডিওবার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সেই ভিডিওবার্তায় শেখ নাওয়াফ বলেন, পারস্য উপসাগর অঞ্চলে কুয়েতের ফাইলাকা দ্বীপে এই খনির সন্ধান পাওয়া গেছে। প্রায় ৯৬ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই খনিতে অন্তত ৩২০ কোটি ব্যারেল (প্রতি ব্যারেল=১৫৯ লিটার) তেল রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, নতুন এই খনিতে বর্তমান খনিগুলো থেকে কুয়েত যে পরিমাণ তেল উৎপাদন করে তার তিনগুণেরও বেশি তেলের মজুত রয়েছে। পরবর্তী এক বিবৃতিতে কেপিসি জানিয়েছে, প্রাথমিক অনুসন্ধানে নতুন এই খনিতে ২১০ কোটি ব্যারেল পেট্রোলিয়াম এবং ৫ লাখ ১০ হাজার কোটি ঘনফুট জ্বালানি গ্যাসের সন্ধান পাওয়া গেছে, যা মিলিয়ে মোট ৩২০ কোটি ব্যারেল তেলের সমতুল্য।

জ্বালানি তেল উত্তোলন ও রপ্তানিকারী দেশগুলোর জোট ওপেক প্লাসের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে কুয়েত বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম জ্বালানি তেলের সরবরাহকারী এবং প্রতি বছর দেশটি ১০৪ কোটি ব্যারেল তেল উত্তোলন করে।

উল্লেখ্য, উপসাগরীয় অঞ্চলের তেলসমৃদ্ধ অন্য দুই দেশ সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত তেলের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে, তবে কুয়েতের অর্থনীতি এখনও সম্পূর্ণভাবে পেট্রোলিয়ামের ওপর নির্ভরশীল। ধারণা করা হয়, বিশ্বের মোট তেলের মজুতের প্রায় ৪ শতাংশই কুয়েতে অবস্থিত।


তেলের খনি   সন্ধান   জ্বালানি তেল  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রক্তাক্ত ট্রাম্পের ছবি দিয়ে টি-শার্ট বানিয়ে চীনাদের রমরমা ব্যবসা

প্রকাশ: ০৪:১৭ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর ডোনাল্ড ট্রাম্পের রক্তাক্ত ছবি দিয়ে চীনের একটি সংস্থা টি-শার্ট ছাপিয়েছে। এই টি-শার্টগুলো বাজারে আসার পর ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

এই টি-শার্টে ট্রাম্পের ওপর হামলার মুহূর্তের একটি ছবি রয়েছে এবং তাতে লেখা রয়েছে, ‘গুলি আমাকে আরও শক্তিশালী করেছে।’ এই ঘটনায় অনেকেই অবাক হয়েছেন। কারণ, ট্রাম্পের ওপর হামলার ঘটনার মাত্র দুই ঘণ্টার মধ্যেই টি-শার্টগুলো তৈরি করা হয়েছে।

এই বিষয়ে কথা বলেছেন টি-শার্ট প্রস্তুতকারী সংস্থার অন্যতম কর্ণধার লি জিনওয়েই। তিনি জানান, তারা ট্রাম্পের ওপর হামলার ছবি ডাউনলোড করে ডিজিটাল প্রিন্টিং টেকনোলজির মাধ্যমে দ্রুত টি-শার্টে ছাপিয়েছেন। ট্রাম্পের ওপর হামলার পরেই যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের প্রায় ২ হাজার জন এই টি-শার্টের জন্য আবেদন করেন। এগুলো দ্রুত প্রস্তুত করা হয় এবং অনলাইনে বিক্রির জন্য ছাড়ার পর হু হু করে বিক্রি হতে থাকে।

 

শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ২ মিনিটে ট্রাম্প একটি মঞ্চে বক্তৃতা দিচ্ছিলেন। তিনি অভিবাসন নীতি নিয়ে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সমালোচনা করছিলেন। ৬টা ১৫ মিনিটের দিকে গুলির আওয়াজ শোনা যায়। গুলি ট্রাম্পের ডান কানের ওপর দিয়ে চলে যায়। সিক্রেট এজেন্টরা দ্রুত মঞ্চে এসে তাকে ঘিরে ফেলেন।

এ সময় ট্রাম্পকে বলতে শোনা যায়,‘আমাকে জুতা নিতে দাও, আমাকে জুতা নিতে দাও।’ তিনি হাত মুষ্ঠিবদ্ধ করে আরও বলেন, ‘অপেক্ষা করো, অপেক্ষা করো, অপেক্ষা করো।’ তার ডান কানের পাশ থেকে রক্ত বের হচ্ছিল এবং মুখেও রক্ত ছিল। তিনি হাত দিয়ে কান চেপে ধরেন। সভায় উপস্থিত সবাই নিচু হয়ে বসে পড়েন এবং ট্রাম্পকে দ্রুত সরিয়ে নেওয়া হয়। সভাস্থলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়েছে, এই হামলার মূল অভিযুক্ত নিহত হয়েছে। সভায় উপস্থিত একজন দর্শকও মারা গেছেন এবং আরও দুজন আহত হয়েছেন।


ট্রাম্প   চীন   যুক্তরাষ্ট্র   ব্যবসা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

অস্থায়ী মসজিদে ইসরায়েলি হামলায় নিহত ২২

প্রকাশ: ০৪:০৪ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

ফিলিস্তিনের পশ্চিম গাজা নগরীতে এক অস্থায়ী মসজিদে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে অন্তত ২২ জন নিহত হয়েছে। হামলায় আহতদের চিকিৎসা দিচ্ছেন এমন একজন কর্মকর্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর সিএনএনের।  

আল-আহলি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের প্রধান আমজাদ আল-আহলি সিএনএনকে বলেন, আল শাতি ক্যাম্পের অস্থায়ী মসজিদে হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছে। এরপর রোববার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। 

এই হামলা নিয়ে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর (আইডিএফ) কাছে মন্তব্য জানতে চেয়েছিল সিএনএন। তবে এতে কোনো সাড়া দেয়নি ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী।

গাজার সিভিল ডিফেন্সের মুখপাত্র মাহমুদ বাসাল সিএনএনকে বলেছেন, জোহরের নামাজের সময় বোমা হামলা চালানো হয়েছে। তিনি জানান, আহত সবার অবস্থা গুরুতর। বিভিন্ন ভিডিওতে দেখা যায়, নামাজের জন্য রাখা 'মাদুরে' লাশ পড়ে আছে। বহু হতাহতদের শরীর ছিন্নভিন্ন হয়েছে।

মসজিদে হামলা চালানো নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কার্যালয়। গত শনিবার ইউএনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পশ্চিম গাজা নগরীর আল শাতি শরণার্থী ক্যাম্পের ভেতরে অস্থায়ী মসজিদে হামলা চালিয়েছে আইডিএফ।


মসজিদ   ইসরায়েল   হামলা   নিহত   ফিলিস্তিন  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রিপাবলিকান কনভেনশনে আগেই পৌঁছালেন ট্রাম্প

প্রকাশ: ০৩:৪৭ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির ন্যাশনাল কনভেশনে যোগ দিতে উইসকন্সিন অঙ্গরাজ্যে পৌঁছেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একদিন আগেই পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের বাটলারে হামলার শিকার হন ট্রাম্প। তার কানে গুলি লেগেছিল। তবে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

এই সম্মেলনের পরিকল্পনা আগে থেকেই নির্ধারিত ছিল। হামলায় আহত হওয়ার পরেও ট্রাম্প এই সম্মেলন পেছাতে চাননি। তাই পূর্বনির্ধারিত সময়েই এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ট্রাম্প সামাজিক মাধ্যমে এক পোস্টে জানান, তিনি এই সম্মেলন দুদিন পিছিয়ে দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি আবার সিদ্ধান্ত নেন যে একজন হামলাকারী বা আততায়ীর জন্য পূর্ব নির্ধারিত পরিকল্পনা তিনি পরিবর্তন করবেন না।

স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় পেনসিলভানিয়ার বাটলারে এক নির্বাচনী প্রচারণার সময় হামলার শিকার হন ট্রাম্প। তার ওপর ওই হামলার কারণে সোমবার আয়োজিত সম্মেলনের সুরক্ষার বিষয়ে আরও কঠোর অবস্থান নিতে হচ্ছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ট্রাম্পকে গুলি করে হত্যাচেষ্টাকারী থমাস ম্যাথিউ ক্রুকস রিপাবলিকান পার্টিরই নিবন্ধিত ভোটার ছিলেন।

ক্রুকসের অঙ্গরাজ্য পর্যায়ের একটি ভোটসংক্রান্ত নথি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা গেছে, তার জন্ম ২০০৩ সালের ২০ সেপ্টেম্বর। ওই নথি অনুযায়ী, তিনি ট্রাম্পের রিপাবলিকান পার্টির নিবন্ধিত একজন ভোটার। সেই সঙ্গে ভোটার স্ট্যাটাসের ঘরে ক্রুকসকে ‘সক্রিয়’ উল্লেখ করা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর তথ্যানুযায়ী, ক্রুকস ২০২২ সালে বেথেল পার্ক হাই স্কুল থেকে স্নাতক পাস করেন। তিনি রিপাবলিকান হিসেবে ভোট দেওয়ার জন্য নিবন্ধিত হয়েছিলেন। পেনসিলভানিয়ার ভোটার তালিকার তথ্যে তার যে নাম, বয়স ও বেথেল পার্কের ঠিকানা মিলেছে, তার সঙ্গে পাবলিক রেকর্ডে থাকা ক্রুকসের তথ্যের মিল পাওয়া গেছে।

হামলার ঘটনায় দর্শক সারিতে থাকা একজন নিহত ও দুজন গুরুতর আহত হন। আর সিক্রেট সার্ভিস সদস্যদের গুলিতে নিহত হন হামলাকারী ক্রুকস। হামলাকারী এই যুবক পেনসিলভানিয়ার বেথেল পার্ক এলাকার বাসিন্দা। ঘটনাস্থল বাটলার থেকে এই শহরের দূরত্ব ৭০ কিলোমিটার।



মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

মেলানিয়া ট্রাম্পকে ফোন করেছিলেন জিল বাইডেন

প্রকাশ: ০৩:৩০ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

সাবেক মার্কিন ফার্স্ট লেডি- ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়াকে ফোন করে খোঁজখবর নিয়েছেন বর্তমান ফার্স্ট লেডি জো বাইডেনের স্ত্রী জিল।

ট্রাম্পের ওপর বন্দুক হামলার ঘটনার পর স্থানীয় সময় রোববার মেলানিয়াকে ফোন করেন জিল। হোয়াইট হাউসের বরাত দিয়ে এনবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই হামলার সময় যারা নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে বাঁচিয়েছেন সেসব সাহসী কর্মকর্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মেলানিয়া ট্রাম্প। এছাড়া তিনি বন্দুকধারীকে ‘দানব’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এর আগে সমাবেশে গুলিতে আহত হওয়ার পর ট্রাম্পের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এছাড়া পেনসিলভানিয়ার গভর্নর যশ শাপিরো ও বাটলার এবং মেয়র বব ডানডয়ের সঙ্গেও কথা বলেছেন বাইডেন।

হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। হোয়াইট হাউসের ওই কর্মকর্তা বলেন, বাইডেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে তাদের মধ্যে কী কী কথা হয়েছে, তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি এই কর্মকর্তা।

যুক্তরাষ্ট্রের তদন্তকারী সংস্থা এফবিআই জানিয়েছে, ট্রাম্পকে হত্যার উদ্দেশ্যেই এ হামলা করা হয়। তবে তা সফল হয়নি। সন্দেহভাজন হামলাকারী পুলিশের গুলিতে নিহত হন।

যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির ন্যাশনাল কনভেশনে যোগ দিতে উইসকন্সিন অঙ্গরাজ্যে পৌঁছেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই সম্মেলনের পরিকল্পনা আগে থেকেই নির্ধারিত ছিল। হামলায় আহত হওয়ার পরেও ট্রাম্প এই সম্মেলন পেছাতে চাননি। তাই পূর্বনির্ধারিত সময়েই এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ট্রাম্প সামাজিক মাধ্যমে এক পোস্টে জানান, তিনি এই সম্মেলন দুদিন পিছিয়ে দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি আবার সিদ্ধান্ত নেন যে একজন হামলাকারী বা আততায়ীর জন্য পূর্ব নির্ধারিত পরিকল্পনা তিনি পরিবর্তন করবেন না।

স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় পেনসিলভানিয়ার বাটলারে এক নির্বাচনী প্রচারণার সময় হামলার শিকার হন ট্রাম্প। তার ওপর ওই হামলার কারণে সোমবার আয়োজিত সম্মেলনের সুরক্ষার বিষয়ে আরও কঠোর অবস্থান নিতে হচ্ছে। সূত্র: এনবিসি নিউজ


মেলানিয়া ট্রাম্প   জিল বাইডেন   ফার্স্ট লেডি  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন