ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কে হচ্ছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক?

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭ মে ২০২০ বুধবার, ০৯:০৪ এএম
কে হচ্ছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়েছে। তিনি প্রথমে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিবর্তন শুরু করেছে। স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগামী দুয়েকদিনের মধ্যে এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক প্রজ্ঞাপন জারি হবে। একই সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদও সরে যাবেন। ইতিমধ্যে তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিএমএইচে চিকিৎসাধীণ রয়েছেন। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগে থাকা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সুস্থ হয়েও কতটুকু দায়িত্ব পালন করতে পারবেন তা নিয়ে সরকারের নীতি নির্ধারক মহলের সংশয় রয়েছে। এ কারণেই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক নিয়ে ভাবা হচ্ছে। এক্ষেত্রে ৩ জনের নাম সরকারের নীতি নির্ধারক মহল বিবেচনা করছেন বলে জানা গেছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক হিসেবে যাদের নাম আলোচনায় আসছে, নীতি নির্ধারক পর্যায়ে যাদেরকে নিয়ে ভাবা হচ্ছে তাদের মধ্যে রয়েছেন:

 

ডা. নাসিমা সুলতানা

যিনি বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) হিসেবে ছিলেন।ডা. নাসিমা সুলতানা আওয়ামী পরিবারের সন্তান। তার ভাই ইকবালুর রহিম জাতীয় সংসদের হুইপ। আরেক ভাই এনায়েতুর রহিম হাইকোর্টের বিচারপতি। নাসিমা সুলতানা সৎ এবং নিষ্ঠাবান কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত। তবে তার ব্যাপারে নেতিবাচক দিক হচ্ছে এই করোনায় একটা যুদ্ধাবস্থা চলছে। এই সময় একজন নারী মহাপরিচালক নিয়োগের ব্যাপারে কারও কারও একটু অস্বস্তি রয়েছে বলে সরকারের নীতি নির্ধারক সূত্রে জানা গেছে।

 

ডা. এ এইচ এম এনায়েত হোসেন

মহাপরিচালক হিসেবে দ্বিতীয় নামটি অধ্যাপক ডা. এ এইচ এম এনায়েত হোসেনের। তিনি স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। একটি বিভাগে মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন অবস্থায় আরেকটি বিভাগে মহাপরিচালকের দায়িত্ব দেওয়ার ব্যাপারে নীতি নির্ধারক মহলে অনেকের সম্মতি নেই। তাছাড়া তিনি নিজেও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হতে খুব একটা আগ্রহী নন বলে সরকারের নীতি নির্ধারক মহলকে জানিয়ে দিয়েছেন।

 

ডা. আবুল হাশেম খান

তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে আাছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন)ডা. আবুল হাশেম খানের নাম। তিনি আওয়ামী পরিবারের সন্তান। তৃণমূল পর্যায়ে তার নেটওয়ার্ক রয়েছে। তিনি কমিউনিটি ক্লিনিক ট্রাস্টের লাইন ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এই প্রেক্ষিতে প্রান্তিক পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারীদের সঙ্গে তার একটা ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে। এই বিবেচনা থেকে তার নামও আলোচনায় এসেছে। এর আগে তিনি মিটফোর্ড হাসপাতালের পরিচালক ও হাসপাতাল স্বাচিপের সভাপতিও ছিলেন।

 

সামগ্রিক বিবেচনায় এই ৩ জনের মধ্য থেকে কাকে নতুন মহাপরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হবে সেই সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে আগামী দুয়েকদিনের মধ্যে এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বলে সরকারেরর একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছেন।