ইনসাইড থট


করোনা টেস্টে অমানবিক মুনাফা এবং সময় ও ব্যয় সাশ্রয়ী বিকল্প টেস্ট পদ্ধতি

চলমান বৈশ্বিক মহামারীতে পৃথিবীর অধিকাংশ দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা যখন বেহাল, জনজীবন ও জীবিকা যখন প্রায় পর্যুদস্ত, তখন রোগ নির্ণয়, উপশম ও নিরাময়ের জন্য নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান করছে উচ্চ মাত্রার মুনাফা। উন্নত দেশের উদ্ভাবনী প্রতিষ্ঠান যেমন দু’হাতে মুনাফা লুটেছে, তেমনি মাঠ পর্যায়ের প্রয়োগকারী প্রতিষ্ঠানও ছাড় দেয়নি।

আরো পড়ুন...
ঊনসত্তরের অগ্নিঝরা দিনগুলি

আমাদের জাতীয় মুক্তিসংগ্রামের ইতিহাসে ১৯৬৯-এর ২৪ জানুয়ারি এক ঐতিহাসিক দিন। প্রত্যেক মানুষের জীবনে উজ্জ্বলতম দিন আছে। আমার জীবনেও কিছু ঐতিহাসিক ঘটনা আছে। ’৬৯ আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ কালপর্ব। এই পর্বে আইয়ুবের লৌহ শাসনের ভিত কাঁপিয়ে বাংলার ছাত্রসমাজ ’৬৯-এর ২৪ জানুয়ারি গণঅভ্যুত্থান সংঘটিত করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিল। জাতীয় জীবনে যখন জানুয়ারি মাস ফিরে আসে তখন ....

আরো পড়ুন...
পাকিস্তান তার ‘বাংলাদেশ ইতিহাস’ পাল্টাতে উন্মুখ: বিপদ ভারতের

এক গলতিয়া হ্যায়, কিসিকে ভি, মাং লেতি হ্যায়, মাফিইয়া দো”: তরুণীর কাতর কণ্ঠস্বর, আকুতিতে আর্দ্র। সাম্প্রতিক পাকিস্তানি ফিল্ম খেল খেল মে-এর শেষ লাইন এটি। কিন্তু এই বিধুরতা আসলে ব্রেখটীয়— নাটক কিন্তু নাটক নয়। গপ্পোটা এই রকম: পাকিস্তানে এক কলেজের ছাত্রছাত্রীর থিয়েটারের দল ঠিক করেছে, এ বার তারা যে নাটক মঞ্চস্থ করবে তা হবে পাঁচ দশক আগে ঢাকা শহরের পতনের উপর। অর্থাৎ, ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১। ঘটনাটি ঘটল কী করে? দায়ী কে? এ সব প্রত্যক্ষত বুঝতে দলটি হাজির হল বাংলাদেশে।

আরো পড়ুন...
আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই

এখন রাত দুইটা বাজে। একটু আগে টেলিফোন বেজে উঠেছে। গভীর রাতে টেলিফোন বেজে উঠলে বুকটা ধ্বক করে উঠে, তাই টেলিফোনটা ধরেছি। শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র ফোন করেছে। পত্রপত্রিকার খবর থেকে জানি সেখানে ছাত্রছাত্রীরা আন্দোলন করছে। মোটামুটি নিরীহ একটা আন্দোলন একটা বিপজ্জনক আন্দোলনে মোড় নিয়েছে। ছাত্রটি ফোনে আমাকে জানাল অনশন করা কয়েকজন ছাত্রকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে, একজনের অবস্থা খুবই খারাপ, ডাক্তার বলেছে কিছু না খেলে ‘কোমায়’ চলে যেতে পারে। ফোন রেখে দেওয়ার আগে ভাঙ্গা গলায় বলেছে, ‘স্যার কিছু একটা করেন’।

আরো পড়ুন...
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নতুনত্ব আনা প্রয়োজন

বর্তমানে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যেভাবে মিথ্যা প্রচারণা চলছে, সেই প্রচারণা মোকাবেলায় বিভিন্ন দেশে নিয়োজিত আমাদের রাষ্ট্রদূতরা অবশ্যই যথেষ্ট দক্ষ এবং অভিজ্ঞ। বিশেষ করে বিদেশি দূতাবাসগুলোতে যারা রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, তাদের দায়িত্ব বেশ ভালোই মনে হচ্ছে। কিন্তু আমাদের এখন একটি বিষয়ে চিন্তা করা অত্যন্ত জরুরি। বিষয়টি হচ্ছে, বিশ্বের সব দেশেই কিছু গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পেশাদার রাষ্ট্রদূতের ...

আরো পড়ুন...

স্বামীর সঙ্গে শোয়ার বিদ্যাও শেখানো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ে!

হযরত শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম শুনলেই আমার জাফর ইকবাল স্যারের কথা মনে পড়ে। জাফর ইকবাল স্যারের কারণেই এই বিশ্ববিদ্যালয়টি আলাদা মর্যাদা পেয়েছিল, আলাদা একটা দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পেরেছিল। এই বিশ্ববিদ্যালয়টি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে একটু ভিন্ন ধরনের এবং এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সমস্ত শিক্ষার্থীরা পরবর্তীতে কর্মক্ষেত্রে এসেছে তারা বিভিন্নভাবে নিজেদেরকে মেলে ধরতে সক্ষম হয়েছে এখন পর্যন্ত। সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চলছে।

আরো পড়ুন...
উড়ে যায় পাখি,পড়ে থাকে পাখির পালক

কবি রফিক আজাদ তাঁর ‘দুঃখ-কষ্ট’ কবিতায় লিখেছেন- ‘পাখি উড়ে চলে গেলে, পাখির পালক পড়ে থাকে...’ পাখি উড়ে চলে গেলে, পাখির কয়েকটি পালক পূর্বের স্থানে ফেলে যায়। মানুষের মৃত্যু যেন পাখি উড়ে চলে যাওয়ার মতই। মানুষ মরে গেলে কর্মের মাধ্যমে স্মৃতি রেখে যায়। সেই স্মৃতিসমূহ স্মরণ করে মানুষ মৃতব্যক্তির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানায়...

আরো পড়ুন...
হারিছ চৌধুরীর নীরব মৃত্যু ও কিছু প্রশ্ন!

চারদলীয় জোট সরকারের শাসনামলে দোর্দণ্ড প্রতাপশালীদের একজন ছিলেন আবদুল হারিছ চৌধুরী। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে পরাজিত হলেও খালেদা জিয়া তাকে তার বিশেষ সহকারী নিয়োগ দিয়েছিলেন। আর ফিরে তাকাতে হয় নি। ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসার পর খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হন। তিনি এতটাই ক্ষমতাধর ছিলেন যে, নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে নিজ বাড়িতে ডাকঘর, স্কুল, পুলিশ...

আরো পড়ুন...
ওমিক্রন আর টিকা নিয়ে আবারও কিছু কথা

এই সেইদিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জনগণকে হুমকি দিয়ে বলেন যে তারা যদি স্বাস্থ্যের পরামর্শ না মানে তবে তিনি লকডাউন আরোপ করবেন। একইসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী সাহসিকতার পরিচয় দিয়ে জনগণকে গুজবে কান না দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন এবং স্কুল বন্ধ হবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি বলেন, তিনি প্রতিদিনের পরিবর্তিত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বার বার জনগণকে ভ্যাকসিন ....

আরো পড়ুন...
শেখ হাসিনার দূরদর্শিতা এবং আমাদের অক্ষমতা

দুই বছর পরে বাংলাদেশে সাধারণ নির্বাচন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় বাংলাদেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠান এখন গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। শেখ হাসিনা যেভাবে চান অথবা জনগণ যেভাবে চায় সেভাবে হয়তো সম্পূর্ণ হয়নি। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। যে কোনো গণতান্ত্রিক দেশের দিকে তাকালেই দেখা যাবে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ নিতে, গণতন্ত্র সুসংহত করতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সঠিকভাবেই কাজ করার জন্য সম্পূর্ণ তৈরি হতে সময় লাগে। এ ক্ষেত্রে আমাদের নির্বাচন কমিশনও অন্যতম প্রতিষ্ঠান যেটি সাধারণ নির্বাচন থেকে শুরু করে যে কোনো নির্বাচনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের নির্বাচন কমিশন সব সময় তাদের সঠিক...

আরো পড়ুন...
আসুন কোভিড ভ্যাকসিন এবং টিকা প্রদান সম্পর্কে কথা বলি

বাংলাদেশ সেই দেশগুলির মধ্যে একটি, যেখানে নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচি একটি সাফল্যের গল্প। ৯৯% এর বেশি শিশুকে টিকা সময় মত দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ কয়েক দশক ধরে টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনন্য জ্ঞান, দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতার বিকাশ ঘটিয়েছে, যা নিয়ে আমরা সবাই খুবই গর্বিত। বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচির পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে বিপুল সংখ্যক দক্ষতা সম্পূর্ণ পরিচালক রয়েছে। বাংলাদেশও সেই দেশগুলির মধ্যে একটি, যে দেশ প্রতিদিন হাজার হাজার এবং লাখ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়ার জাতীয় টিকা দিবস পরিচালনা করেছে। আমি যখন দিল্লিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব আঞ্চলিক...

আরো পড়ুন...
নারায়ণগঞ্জের এক কিশোর মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিচারণ

মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের খাস কামাল কাটি গ্রামের আনুমানিক ৭-৮ বছরের ডানপিটে কিশোর মোঃ মেজবাহুল হক বাচ্চু সাহেবের স্মৃতিচারণ। ‘‘২৬ মার্চ এর কালো রাতে ঢাকা আক্রান্ত যখন হইল, তারপরের দিন থেকেই আমাদের গ্রামের সামনের রাস্তা দিয়া নারী-পুরুষ-শিশু ঢাকা থেকে বের হয়ে নিজ নিজ গন্তব্যে যাইতেছিল। আমরা তখন ঐ অসহায় মানুষদের হেল্প করার জন্য মুরব্বীদের নির্দেশে রাস্তার পাশে পানির কলস, মুড়ি নিয়ে বসে থাকতাম তাদেরকে খাওয়ানোর জন্য, ডাইকা ডাইকা খাওয়াইতাম। আবার অনেক সময় তাদের সাথে থাকা লাগেজ, ব্যাগ ইত্যাদি মাথায় করে নিয়া যাইয়া গুদারাঘাট অর্থাৎ আমাদের গ্রাম থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে নিয়ে গিয়ে আসতাম। বেশ কয়েকদিন এভাবে কাজ করেছি...

আরো পড়ুন...
করোনা নিয়ে করো না রাজনীতি

বিশ্বব্যাপী ওমিক্রনের তাণ্ডবের মধ্যে ওমিক্রন নিয়ে দেশে চলছে রাজনীতি। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, "শুধুমাত্র বিএনপির সভা-সমাবেশ ঠেকাতেই সরকার সারাদেশে নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে কি না, তা নিয়ে জনগণের মধ্যে প্রশ্ন এবং সংশয় রয়েছে।" অন্যদিকে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, "সরকার জনস্বার্থে বিধিনিষেধ দিয়ে ...

আরো পড়ুন...
১১ জানুয়ারি ১৯৮৩ আপসহীনতার মাইলফলক

১১ জানুয়ারি ১৯৮৩ বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের একটি যুগান্তকারী দিন। এইদিনে অবৈধ ক্ষমতাদখলদার, স্বৈরশাহী এরশাদের ধমকে, ১৪টি ছাত্র সংগঠন সমন্বয়ে গড়ে ওঠা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আপসকামী অংশের ভেটোর কারণে, মজিদ খানের শিক্ষা নীতি বাতিলের দাবিতে, প্রথম সামরিক আইন ভেঙে রাজপথে মিছিল করে, শিক্ষা ভবন ঘেরাও এবং স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি স্থগিতের বিরুদ্ধে সাধারণ ছাত্রদের বিদ্রোহ, প্রতিবাদ ও শিক্ষাভবন ঘেরাও করার এবং আপসহীনতার মাইলফলক দিবস।

আরো পড়ুন...
বৈশ্বিক মহামারির এ সংক্রমণের ঢেউয়ে আশার আলো - ওমিক্রন

করোনা ভাইরাস সৃষ্ট কোভিড-১৯ নামের বৈশ্বিক মহামারিতে ইতোমধ্যে সারা বিশ্বে ৫০ লক্ষের বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে। আক্রান্ত হয়েছে ৩০ কোটির বেশি। মৃত্যুর মিছিলের পাশাপাশি জনজীবন ও জীবিকা হয়েছে অচল। এ মারণঘাতী ভাইরাসের মধ্যে আশার আলো থাকে কি করে? থাকে এ জন্য যে কোন মহামারী দীর্ঘকাল ধরে থাকেনা এবং ইতোমধ্যে জীব প্রযুক্তিসহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উন্নতি হয়েছে ব্যাপক।

আরো পড়ুন...
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ: ক্যান্সার চিকিৎসায় গবেষণা জরুরী

৯ জানুয়ারি আট বিভাগীয় শহরে সমন্বিত ক্যানসার, কিডনি ও হৃদরোগ ইউনিটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসা সেবার মান উন্নয়ন ও গবেষণায় এগিয়ে আসার জন্যে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এ কথা সত্যি ও প্রমাণিত যে মানুষের শরীরের আর সব রোগের চেয়ে ক্যান্সার যতোই জটিল হোক তথ্য-প্রযুক্তির কল্যাণে ও চিকিৎসা গবেষণার অগ্রগতির কারণে তা এখন চিকিৎসার আয়ত্ত্বে...

আরো পড়ুন...
আবারও ওমিক্রন নিয়ে কিছু কথা

ইদানীং বাংলাদেশে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞরা, মন্ত্রীরা, সংবাদপত্র, টিভি এবং রেডিও দেশে ক্রমবর্ধমান ওমিক্রনের কারণে কোভিড পরিস্থিতি সম্পর্কে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করছেন। লকডাউন ও স্কুল বন্ধের বিষয়ে আবারও আলোচনা চলছে। মনে হচ্ছে আমরা আতঙ্কিত। আমাদের কি আতঙ্কিত হওয়া উচিত নাকি ভাইরাসের সাথে বাঁচতে শেখা উচিত? অন্যদিন আমি বাংলাদেশের একটি টিভি টকশো শুনছিলাম, যেখানে তিনজন বিশেষজ্ঞ ওমিক্রন এবং বাংলাদেশের সম্ভাব্য ভবিষ্যৎ পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলছিলেন। একজন বিশেষজ্ঞ যদিও টিকা নেওয়ার সাথে সাথে মুখোশ ব্যবহারের গুরুত্ব সম্পর্কে বার বার জোর...

আরো পড়ুন...