কালার ইনসাইড

অসুস্থ্য মিঠুনকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে যা বললেন দেব

প্রকাশ: ০১:৩৩ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন মিঠুন চক্রবর্তী। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে একটি সিনেমার শুটিং চলাকালে অসুস্থবোধ করলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এই গুনি অভিনেতাকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর থেকে একে একে সেখানে ভিড় করছিলেন তারকারা।

বিজেপি এই নেতা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর পরই ওইদিনি ক্যামাক স্ট্রিটে অভিষেকের সঙ্গে বৈঠকের পর কালীঘাট থেকে সোজা মিঠুনকে দেখতে যান দেব। এবং হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার পথে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি।

অভিনেতা দেব বলেন, মিঠুন দা ভালো আছে, মজায় আছে, সুস্থ আছে। রুটিন চেকআপ চলছে, ঠিক হয়ে যাবে। আমার বাবার মতো, সম্পর্ক বোঝানো যাবে না। মনে হয় দ্রুত হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেবে।

মিঠুন ও দেবের রাজনৈতিক মতপার্থক্য রয়েছে। সম্প্রতি দেবকে ঘিরে যেসব রাজনৈতিক বিতর্ক উঠেছে, সেসব এড়িয়ে মিঠুনকে দেখতে আসার বিষয়ে তার মন্তব্য, যে রাজনীতি সম্পর্কে সম্মান দেয় না সেই রাজনীতি আমি করি না। আমার কাছে সম্পর্ক, কাছের মানুষরা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

ওইদিন মিঠুনকে দেখতে হাসপাতালে হাজির হয়েছিলেন সোহম চক্রবর্তীও। সোহমের সঙ্গে ‘শাস্ত্রী’ ছবির শুটিং করছিলেন মিঠুন।

অন্যদিকে দেবের সঙ্গে মিঠুনের সঙ্গে সম্পর্ক বরাবরই বেশ ভালো। এর আগে দেবের প্রযোজনায় প্রজাপতি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন মিঠুন। সেই ছবি নন্দনে মুক্তি না পাওয়া নিয়ে হয়েছিল বিতর্ক। মিঠুনের পাশেই দেবকে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছিল।


মিঠুন চক্রবর্তী   দেব   টালিউড   সিনেমা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নাট্যকারের ১৯তম জন্মদিনে পূর্ণ হল ৭৬ বছর

প্রকাশ: ০৩:২৭ পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

১৯৪৮ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন বাংলাদেশের নাট্য আন্দোলনের অগ্রসৈনিক, নাট্যকার, নির্দেশক ও অভিনেতা মামুনুর রশীদ। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) লিপইইয়ারের আজকের এই দিনে ৭৬ বছর পূর্ণ করেছেন তিনি।

লিপইইয়ারের ২৯ ফেব্রুয়ারি এই দিনে জন্মগ্রহণ করায় সে কারণে বৃহস্পতিবার জীবনের ৭৬ বছর পূর্ণ করলেও মামুনুর রশীদের জন্মদিন পালনের সুযোগ মিলেছে ১৯তম বারের মত। কেননা, তার জন্মদিন পালনের সুযোগ আসে চার বছরে মাত্র একবার। সে হিসেবে আজ মামুনুর রশীদের ১৯তম জন্মদিন।

জন্মদিন উপলক্ষ্যে ৭৬ বছর বয়সী এই নাট্যজন বলেছেন, বয়স কম থাকলে অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়। কিন্তু বয়স বাড়তে থাকলে হয়ত কখনো কখনো ক্লান্তি আসে। তবে মঞ্চনাটক, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে আমি যখন কাজ করি তখন আমার মনে হয়, আমি তো তরুণই, আমি তো যুবকই। আমার বয়সের কথা আমি ভুলে যাই। এ কারণেই প্রৌঢ়ত্ব বা বয়স আমাকে পরাজিত করতে পারেনি।

তিনি বলেন, আমি এমন একটি ক্ষেত্রে কাজ করছি, যার কোনো অবসর নেই, রিটায়ারমেন্ট নেই। আমি ধরেই নিয়েছি, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত কাজ করে যাব। তার ফলে হয়েছে যেটা, তারুণ্যের যে একটা শক্তি, তা কেমন করে যেন আমি অবলীলায় পেয়ে যাই।

মামুনুর রশীদের জন্মদিনকে ঘিরে তিন দিনব্যাপী নাট্যোৎসবের আয়োজন করেছে আরণ্যক নাট্যদল। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে ২ মার্চ আরণ্যকের ‘আলোর আলো নাট্যোৎসব’ হবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তনে। এতে মামুনুর রশীদ রচিত ও নির্দেশিত নাটকের মঞ্চায়ন, সংগীত, নৃত্য, সেমিনার, প্রদর্শনী ও থিয়েটার আড্ডা।


অগ্রসৈনিক   নাট্যকার   নির্দেশক   অভিনেতা   মামুনুর রশীদ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

বাবা-মা হতে চলেছেন বলিউড দম্পতি

প্রকাশ: ০১:২২ পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

বহু প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বলিউডের জনপ্রিয় জুটি দীপিকা পাড়ুকোন-রণবীর সিংয়ের ঘরে আসছে নতুন অতিথি। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে এই খুশির খবর সোশ্যাল মিডিয়া ইন্সটাগ্রামে জানিয়েছেন তারা।

দীপিকার মা হওয়া নিয়ে কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল। এবার জল্পনাকল্পনার অবসান ঘটিয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসলো। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরেই তাদের প্রথম সন্তান জন্ম নেবে বলে জানিয়েছেন দীপিকা-রণবীর। তারা ‘সেপ্টেম্বর ২০২৪’ লেখা একটি পোস্টার শেয়ার করেছেন। যেখানে শিশুদের পোশাক, খেলনা এবং বেলুনের ছবি রয়েছে।

উল্লেখ্য, দীপিকা পাড়ুকোন এবং রণবীর সিং ২০১৮ সালে বিয়ে করেন। তার আগে দীর্ঘ ছয় বছর তারা চুটিয়ে প্রেম করেছেন। পরে পরিবারের উপস্থিতিতে বিয়ে হয়। ২০২৩ সালে কফি উইথ করণ শোতে এসে তাদের বিয়ের ভিডিও প্রকাশ্যে আনেন।

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি দীপিকা নিজে ঘোষণা করার কিছুদিন আগেই রটে গিয়েছিল যে তিনি মা হতে চলেছেন। তখন সূত্রের তরফে দ্য উইক জানতে পারে যে দীপিকা বর্তমানে তার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে আছেন এবং শিগগিরই সন্তান আসার বিষয়ে ঘোষণা করবেন। তার কয়েকদিন না যেতেই কাঙ্ক্ষিত সেই ঘোষণা আসলো।


রণবীর-দীপিকা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

এবার মধ্যপ্রাচ্যে নিষিদ্ধ হলো যে হিন্দি সিনেমা

প্রকাশ: ১২:০৬ পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

ভারতের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির প্রথম দিনই সাফল্য পেয়েছিল আদিত্য জাম্ভালে পরিচালিত ‘আর্টিকেল ৩৭০’। ছবির আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রিয়ামণি। ভারত ও ভারতের বাইরের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে সিনেমাটি। কর্তৃপক্ষ সিনেমাটি নিয়ে হলসংখ্যা বাড়ানোর কথাও ভাবছে।

তবে খবর হিন্দুস্তান টাইমস বলছে, এত ভালো ব্যবসার পরও মধ্যপ্রাচ্যের দর্শকদের জন্য আছে বড় দুঃসংবাদ। কারণ, উপসাগরীয় অঞ্চলে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ‘আর্টিকেল ৩৭০’।

এর আগে এই অঞ্চলে নিষিদ্ধ হয়েছিল হৃতিক রোশন ও দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত, সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত এরিয়াল অ্যাকশন থ্রিলার ‘ফাইটার’। মধ্যপ্রাচ্যে বলিউড বা হিন্দি সিনেমার দর্শক প্রচুর। ফলে এই সিদ্ধান্ত সিনেমাটির ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

‘আর্টিকেল ৩৭০’ নিষিদ্ধের কারণ আনুষ্ঠানিকভাবে জানা যায়নি। কাশ্মীর থেকে আর্টিকেল ৩৭০ রদ করার মতো ঐতিহাসিক রাজনৈতিক সিদ্ধান্তকে এই ছবির মাধ্যমে পর্দায় তুলে ধরা হয়েছে। তবে সমালোচকদের মতে, এই ছবির নায়ক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং মোদি। লোকসভা নির্বাচনের আগে ‘আর্টিকেল ৩৭০’ মুক্তি দেওয়া বিজেপির একটি রণকৌশল।

গত লোকসভা নির্বাচনের আগেই মুক্তি পেয়েছিল ‘উরি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ ছবিটি। তাই বিরোধীদের মতে ‘আর্টিকেল ৩৭০’ সিনেমাটি আদতে ‘মোদিগাথা’।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, বর্তমানে দেড় হাজারের বেশি প্রেক্ষাগৃহে চলছে সিনেমাটি। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন ইয়ামি গৌতমের স্বামী আদিত্য ধর, জ্যোতি দেশপাণ্ডে ও লোকেশ ধর।


নিষিদ্ধ   হিন্দি সিনেমা   বলিউড  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

অঙ্কিতা নয় অন্য কাউকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন ভিকি

প্রকাশ: ১০:১৭ এএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

সম্প্রতি অঙ্কিতা লোখন্ডে স্বামী ভিকি জৈনকে নিয়ে প্রবেশ করেছিলেন ‘বিগ বস্ ১৭’-এর ঘরে। অনেকেই আশায় ছিলেন তাদের দাম্পত্য জীবনের সুন্দর দিকটা দেখার।

কিন্তু ভিকিকে প্রকাশ্যে অপমান করা থেকে তার চরিত্রে কাদা ছেটানো কিছুই বাদ রাখেননি অঙ্কিতা। বিপরীতে ভিকিও শো’য়ে থাকাকালীন অঙ্কিতার উদ্দেশে কটূক্তি করে গেছেন। বাইরের লোকের সামনে অঙ্কিতাকে অপমান করেছেন। 

অনেকে এখন মনে করছেন অঙ্কিতার স্বামীর চরিত্রও বিশেষ সুবিধার নয়। তাদের দাম্পত্য কলহ হয়ে উঠল আলোচনার বিষয়। মাঝে তো এমন কথাও শোনা যায়, ভিকি নাকি বিয়েই করতে চাননি অঙ্কিতাকে। অবশেষে শো থেকে বেরিয়ে সেই মন্তব্যেই সম্মতি জানান অভিনেত্রী। 

সম্প্রতি কৌতুকশিল্পী ভারতী সিংয়ের পডকাস্টে এসে স্বামীর পরিকল্পনার কথা জানান অঙ্কিতা। তার কথায়, আসলে ভিকি আমাকে বিয়ে করতে চায়নি। আমাদের ধরনধারণ, জীবনযাপন সবটা আলাদা। তার ওপর আমি মুম্বাইয়ে থাকি। ও চেয়েছিল বিলাসপুরের কোনও মেয়েকেই বিয়ে করতে। 

বিগ বস্-এ থাকাকালীন অঙ্কিতা জানান, ভিকি নাকি তাকে ছেড়ে চলে গিয়ে বেপাত্তা হয়ে যান। অঙ্কিতা সেই সময় বলেন, একটা গোটা বছর ওর খোঁজ পাইনি আমি। তারপর ও যখন ফিরে এলো, তখন আমরা জানতাম যে, আমরা বিয়ে করছি। আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে, আমার দোষেই ভিকি আমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছিল।  

শেষ পর্যন্ত অঙ্কিতাকে বিয়ে করেন ভিকি। ভিকির কথায়, আসলে আমাকে কখনও কিছু বলতেই দেয়নি অঙ্কিতা। আমাদের যখন দেখা হয়েছিল তখন ও বিয়ে করার জন্য প্রস্তুত ছিল। আমিও বিয়ে করতে চাইছিলাম, শেষে আমরা বিয়েটা করেই ফেললাম।

ছোট পর্দার ‘পবিত্র রিশতা’ ধারাবাহিকে কাজ করার সময় সহ-অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রেমে পড়েছিলেন অঙ্কিতা। তার সঙ্গে দীর্ঘ সাত বছরের সম্পর্ক ছিল তার। সুশান্ত বলিউডে পা রাখার পর ভাঙন ধরে সেই সম্পর্কে। ২০২০ সালে প্রয়াত হন সুশান্ত। ২০২১ সালে ভিকির সঙ্গে সাত পাক ঘোরেন অঙ্কিতা।


অঙ্কিতা   ভিকি  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

ফের বিপাকে অভিনেত্রী, গ্রেপ্তার করার নির্দেশ আদালতের

প্রকাশ: ০৯:১৯ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

অভিনেত্রী জয়া প্রদাকে পলাতক ঘোষণা করেছেন আদালত। এমনকি আগামী ৬ মার্চের মধ্যে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করার নির্দেশনাও দেওয়া হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) উত্তর প্রদেশের রামপুরের একটি আদালত এই নির্দেশ দিয়েছেন। লোকসভা নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের জয়া প্রদার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। সূত্রে ভারতীয় গণমাধ্যম।

সিনিয়র প্রসিকিউশন অফিসার অমরনাথ তিওয়ারি জানান, ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের সময় আচরণবিধি লঙ্ঘনের জন্য সাবেক এই সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের হয়। এরপর একাধিকবার তাঁকে হাজিরার নির্দেশ দেন বিশেষ এমপি-এমএলএ কোর্ট। তবে অভিনেত্রী হাজিরা দেননি। যে কারণে তার বিরুদ্ধে মোট সাতবার জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। তার পরও তাঁকে আদালতে হাজির করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ আদালতকে জানিয়েছে, জয়া বারবার গ্রেপ্তারি এড়িয়ে যাচ্ছেন। তাঁর সব কটি ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে বারবার।

বিষয়টি আদালতে উঠলে বিচারক শোভিত বনসাল জয়া প্রদাকে পলাতক ঘোষণা করেন। রামপুরের পুলিশ সুপারকে বিচারক নির্দেশ দেন আগামী ৬ মার্চের মধ্যে তাঁকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করতে হবে।

এর আগে জয়া প্রদাকে সিনেমা হল কর্মীদের দায়ের করা মামলায় জেল ও জরিমানার নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। গেল বছরের আগস্টে ছয় মাসের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছিলেন চেন্নাইয়ের আদালত।

‘রাম কুমার ও রাজা বাবু’ নামে এই প্রদেশে জয়ার মালিকানাধীন একটি সিনেমা হল রয়েছে।

চেন্নাইয়ের এক থিয়েটার কর্মচারীর দায়ের করা মামলায় এমপ্লয়িজ স্টেট ইনস্যুরেন্স (ইএসআই) না পেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সেই হলের কর্মীরা। পাশাপাশি অভিনেত্রীকে একবার পাঁচ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, ২০০৪ ও ২০০৯ সালে সমাজবাদী পার্টির টিকিটে লোকসভার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন জয়া প্রদা। পরে দল থেকে তিনি বহিষ্কৃত হন। এরপর ২০১৯ সালে বিজেপির প্রার্থী হয়ে ফের নির্বাচনে লড়েছিলেন। তবে তিনি নির্বাচনে পরাজিত হন।


জয়া প্রদা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন