কালার ইনসাইড

হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হলেন কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা দর্শন থুগুদীপা

প্রকাশ: ০৭:৩৪ পিএম, ১১ জুন, ২০২৪


Thumbnail

কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতা দর্শন থুগুদীপাকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জানা গেছে, মাইসুরুর ফার্মহাউস থেকে তাকে আটক করে বেঙ্গালুরুতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার বি দয়ানন্দ জানিয়েছেন, বর্তমানে দর্শনকে তদন্তকারী অফিসাররা জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। এই ঘটনায় তার নিরাপত্তাকর্মীসহ ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজ, প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান এবং অন্যান্য টেকনিক্যাল প্রমাণের ভিত্তিতে অভিনেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ভারতীয় প্রতিবেদন অনুসারে, গত জুন কামাক্ষীপালায় একটি খাল থেকে ৩৩ বছর বয়সী রেণুকা আচার্যের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের কাছে প্রমাণ রয়েছে যে দর্শনের নির্দেশেই রেণুকাকে খুন করা হয়েছে। দর্শনের এক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির গ্যারেজে অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয় রেণুকাকে, এরপর লাশটি খালে ফেলে দেওয়া হয়।

নিহত যুবক একটি ফার্মেসিতে কাজ করতেন। তিনি চিত্রদুর্গের বাসিন্দা। পুলিশ জানিয়েছে, খুন হওয়া রেণুকা আচার্য অভিনেতার স্ত্রীকে অশ্লীল মেসেজ পাঠাচ্ছিলেন, যার জেরেই তার প্রাণহানি ঘটে। মরদেহের শরীরে ক্ষতচিহ্ন দেখে স্পষ্ট বোঝা যায়, এটি একটি হত্যাকাণ্ড। তবে আরেকটি সূত্র বলছে, মেসেজগুলি অভিনেতার স্ত্রী নয়, বরং অভিনেত্রী পবিত্রা গোধার কাছে গিয়েছিল। বর্তমানে পবিত্রার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে রয়েছেন দর্শন।


দর্শন থুগুদীপা   কন্নড় ফিল্ম   হত্যা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

মুক্তি পেলো তাহসান-মিথিলা অভিনীত ওয়েব সিরিজ 'বাজি' এর ট্রেইলার

প্রকাশ: ০৬:৪৮ পিএম, ১২ জুন, ২০২৪


Thumbnail

একই ছাদের নিচে একত্রিত হলেন তাহসান খান ও রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। তাদের সাথে ছিলেন নির্মাতা-প্রযোজক রেদওয়ান রনি।

তাহসান ও মিথিলাকে ঘিরে এই জমায়েতের মূল উদ্দেশ্য ছিল তাদের অভিনীত প্রথম যৌথ ওয়েব সিরিজ ‘বাজি’ সম্পর্কে গণমাধ্যমকে জানানো এবং সিরিজটির ট্রেলার প্রকাশ। মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে ঢাকার এক অভিজাত ক্লাবে জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই ঘটনা ঘটে। সাসপেন্স ড্রামা ঘরানার এই সিরিজে আরও অভিনয় করেছেন মনোজ প্রামাণিক, মিম মানতাসা, নাজিয়া হক অর্ষা, শাহাদাৎ হোসেন, পার্থ শেখ, তাসনুভা তিশা, আবরার আতহারসহ আরও অনেকে। ঈদে চরকিতে মুক্তি পাচ্ছে আরিফুর রহমানের পরিচালনায় বিশেষ এই সিরিজ।

মিথিলা এর আগেও ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন, তবে তাহসানের জন্য এটি প্রথম। তাদের দাম্পত্য বিচ্ছেদের পর এটি তাদের প্রথম উল্লেখযোগ্য যৌথ কাজ। ওটিটিতে অভিষেক প্রসঙ্গে তাহসান খান বলেন, ‘ওটিটিতে আমার প্রথম কাজ, চরকিতেও আমার প্রথম কাজ। আর একদম ভিন্নধর্মী গল্পে কাজ করার অভিজ্ঞতা। সব মিলিয়ে আমি খুবই এক্সাইটেড, এখন শুধু রিলিজের পর দর্শকদের প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় আছি।‘ 

পরিচালক আরিফুর রহমান বলেন, ‘যত্ন নিয়ে নিজেদের সবটুকু দিয়েই বানানো হয়েছে সিরিজটি। অভিনয়শিল্পী থেকে কলাকুশলী সবারই চেষ্টা ছিল দর্শকদের ভিন্ন কিছু দেয়ার, আশা করছি সবার ভালো লাগবে।‘ 

সিরিজে অভিনয় প্রসঙ্গে রাফিয়াত রশিদ মিথিলা বলেন, ‘চরকির সাথে এর আগেও কাজ হয়েছে। অভিজ্ঞতা বেশ ভালো। এবার আরও ভালো কিছু হবে, অন্যরকম একটা গল্প, কাজের অভিজ্ঞতাটাও বেশ ইন্টারেস্টিং।‘ 

চরকির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ‘চরকি সবসময় দর্শকদের জন্য ভিন্ন কিছু করার চেষ্টায় থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার সারা দেশ যখন ক্রিকেটের উন্মাদনায় মেতে আছে, সেই সময় ক্রিকেট নিয়ে একটি অসাধারণ গল্প নিয়ে চরকি হাজির হচ্ছে। সিরিজটিতে ক্রিকেটের নানা অজানা গল্প জানা যাবে। যা মানুষ আগে কখনো দেখেনি তা এই সিরিজে দেখতে পাবে।‘

 জানা গেছে, ক্রিকেট খেলায় বাজি’র প্রভাব নিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই সিরিজ। এতে ক্রিকেটারের চরিত্রে দেখা যাবে তাহসান খানকে, আর মিথিলা অভিনয় করেছেন একজন সাংবাদিকের চরিত্রে। 


বাজি   চরকি   তাহসান খান   রাফিয়াত রশিদ মিথিলা   রেদওয়ান রনি  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

কোকাকোলা বাংলাদেশ: বিজ্ঞাপন ইস্যুতে পিছু ছাড়ছেনা বিতর্ক

প্রকাশ: ০৫:২৬ পিএম, ১২ জুন, ২০২৪


Thumbnail

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া কোকাকোলা বাংলাদেশ এর বিজ্ঞাপনটি নিয়ে আলোচনা সমালোচনা যেন থামছেই না। অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও বিভিন্ন টেলিভিশন থেকে বিজ্ঞাপনটি সরানো হয়েছে বলে মনে করা হলেও প্রকৃতপক্ষে তা ঘটেনি। মঙ্গলবার (১১ জুন) সন্ধ্যার পর থেকে সমালোচিত সেই বিজ্ঞাপনটি আবারও কোকাকোলার ইউটিউব চ্যানেলে ও বিভিন্ন টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হচ্ছে।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে এক মিনিটের এই বিজ্ঞাপনটি ইউটিউবে অনুপস্থিত ছিল, পাশাপাশি টেলিভিশনও সম্প্রচার বন্ধ ছিলো, যার ফলে অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন যে সমালোচনার মুখে বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু সন্ধ্যার পর থেকে বিজ্ঞাপনটি পুনরায় ইউটিউবে ও টেলিভিশনে দেখা যাওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে যে, সমালোচনা এড়াতে এটি সাময়িকভাবে প্রাইভেট করা হয়েছিল এবং পরে আবার পাবলিক করা হয়েছে। একইসাথে, বিজ্ঞাপনটির কমেন্ট বক্স বন্ধ রাখা হয়েছে যাতে কেউ মন্তব্য করতে না পারে। রাত সোয়া ১০টা পর্যন্ত বিজ্ঞাপনটি ৩ লাখ ৩২ হাজার বার দেখা হয়েছে।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কোকাকোলার এই বিজ্ঞাপনটি নিয়ে মানুষের মধ্যে আরও উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ মানুষের মুখে বারবার উঠে আসছে একটি শব্দ ‘বয়কট’।

কোকাকোলার এই বিজ্ঞাপনটি নিয়ে বিতর্কের মধ্যে রয়েছেন ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ খ্যাত নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি, যদিও তিনি বিজ্ঞাপনটির সাথে সরাসরি জড়িত নন। 'সাইবার ৭১' নামের একটি ফেসবুক পেইজ অমিকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে।

পোস্টে অমির উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে, ‘কাজল আরেফিন অমি, বিজ্ঞাপন নিয়ে আপনি বলছেন এই বিষয়ে জানেন না, ওকে সাময়িকভাবে মেনে নিলাম । জীবন বললো, পেশাগত দিক থেকে করেছে ব্যাক্তিগতভাবে সে কোকাকোলার বিষয়ে অবগত না । বিষয়টা এমন হলো আমি গরুর মাংস খাই না, ঝোল খাই । যাই হোক আপনি বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও আমরা এটাকে সাজানো নাটক হিসেবে নিব। ঈদে আপনার ‘ফিমেল ৪’ আসতেছে সেখানে যদি এই জীবন, শিমুল প্রমুখ কে দেখি কোনো প্ল্যাটফর্মে আপনাদের ‘ফিমেল ৪’ চলতে দিব না, সব জায়গা থেকে মুঁছে ফেলবো ওপেন চ্যালেঞ্জ। ৪৮ ঘন্টার সময় দিলাম, আপনি সবাইকে নিয়ে লাইভে বসে এটার সমাধান দিবেন। এ বিষয় এ 'সাইবার কমিউনিটি' এর সাথে আমরা একাত্মতা ঘোষণা করলাম।‘  

এই প্রসঙ্গে অমি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘যেই বিজ্ঞাপনটি নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে, তার সাথে আমি কোনোভাবেই জড়িত নই। তবুও আমাকে নিয়ে কেন এই সমালোচনা হচ্ছে, তা বোধগম্য নয়।‘

আল্টিমেটাম ও বয়কট নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে নানা আলোচনা চলছে। অমি বলেন, ‘এসব আমার নিয়ন্ত্রণে নেই। আমি কাজ নিয়েই ভাবছি। ফিমেল ৪ নিয়ে বয়কটের যে আলোচনা হচ্ছে, সেখানে শুধু দুইজন অভিনেতাই সংশ্লিষ্ট নয়। এখানে পুরো ইউনিট জড়িত। আপনারা কাজটির ক্ষতি করে তাদের পেটেও লাথি দিতে পারেন না।‘

দেশের আইনের প্রতি সম্মান জানিয়ে অমি বলেন, ‘যারা বিভিন্নভাবে আমাকে হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন, তাদের জন্য দেশে আইন রয়েছে। সাইবার ক্রাইম ইউনিট রয়েছে। কেউ আমাকে অনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারেন না। বিজ্ঞাপন নিয়ে যে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে, সেখানে আমার কোনো দায় নেই, তবুও একদল মানুষ আমার ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। বিষয়গুলো অবশ্যই সাইবার ক্রাইম ইউনিট দেখবে।‘

কোকা-কোলার এই বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই কঠোর সমালোচনা শুরু হয়েছে। সাধারণ মানুষের তোপের মুখে ক্ষমা চেয়েছিলেন অভিনেতা শিমুল শর্মা। এর আগে শরাফ আহমেদ জীবনও নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছিলেন। তবুও সাধারণ মানুষের প্রতিক্রিয়া থামেনি। সামাজিক মাধ্যমে কোকাকোলার পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের অভিনেতাদেরও বয়কটের আহ্বান উঠেছে। যেই বয়কট স্লোগানে ‘বিদ্ধ’ হচ্ছেন কাজল আরেফিন অমিও।

কোকাকোলা বিজ্ঞাপন   বয়কট   কাজল আরেফিন অমি   শিমুল শর্মা   শরাফ আহমেদ জীবন  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

মির্জাপুর ৩: প্রতীক্ষার অবসান, ৫ই জুলাই মুক্তি পাচ্ছে

প্রকাশ: ০৪:০১ পিএম, ১২ জুন, ২০২৪


Thumbnail

প্রাইম ভিডিও অবশেষে ঘোষণা করেছে যে 'মির্জাপুর' এর অত্যন্ত প্রত্যাশিত তৃতীয় সিজনটি ৫ই জুলাই প্রিমিয়ার হবে। ক্ষমতা, প্রতিশোধ এবং জটিল পারিবারিক গতিশীলতার থিমগুলির জন্য পরিচিত এই ক্রাইম থ্রিলারটি নতুন সিজনে আরও উচ্চতর উত্তেজনা এবং বিস্তৃত কাহিনী নিয়ে আসবে।

নতুন সিজনটির মুক্তির ঘোষণা প্রাইম ভিডিও ইনস্টাগ্রামে একটি নতুন পোস্টারের সাথে শেয়ার করেছে। তৃতীয় সিজনটি উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলবে এবং কাহিনীর পরিসর প্রসারিত করবে। তবে আসল নিয়মগুলি অপরিবর্তিত রয়েছে কারণ সমস্ত চোখ মির্জাপুরের কাল্পনিক বিশ্বের কাঙ্ক্ষিত সিংহাসনের দিকে। এই সিজনটি ক্ষমতা, প্রতিশোধ, উচ্চাকাঙ্ক্ষা, রাজনীতি, বিশ্বাসঘাতকতা, প্রতারণা এবং জটিল পারিবারিক গতিশীলতার থিমগুলি অন্বেষণ করবে।

তারকা-সমৃদ্ধ কাস্ট

এক্সেল মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট দ্বারা প্রযোজিত 'মির্জাপুর ৩' পরিচালনা করেছেন গুরম্মিত সিং এবং আনন্দ আয়ার। সিরিজটিতে পঙ্কজ ত্রিপাঠি, আলি ফজল, শ্বেতা ত্রিপাঠি শর্মা, রাসিকা দুগাল, বিজয় ভার্মা, ঈশা তালওয়ার, আনজুম শর্মা, প্রিয়াংশু পাইনিউলি, হর্ষিতা শেখর গৌর, রাজেশ তাইলাং, শিবা চাড্ডা, মেঘনা মালিক, এবং মনু রিষি চাড্ডা সহ  অসাধারণ সব তারকা কাস্ট রয়েছে।

প্রাইম ভিডিও এবং এক্সেল মিডিয়ার একটি নোট

ভ্যারাইটি অনুসারে, প্রাইম ভিডিও ইন্ডিয়ার হিন্দি অরিজিনাল এর প্রধান নিকিল মাধোক মন্তব্য করেছেন, "এর স্বতঃসিদ্ধতা, সুস্পষ্ট চরিত্রগুলি, অক্লান্ত গতি এবং সূক্ষ্ম কাহিনীর সাথে, 'মির্জাপুর' বিশ্বজুড়ে দর্শকদের হৃদয় জয় করেছে। ফ্র্যাঞ্চাইজিটি খাঁটি রূপে ফ্যান্ডমকে আলিঙ্গন করেছে এবং আমরা ভক্তদের একটি নতুন সিজনের সাথে খুশি করতে উত্তেজিত।" রিতেশ সিধওয়ানি যোগ করেছেন, "প্রথম দুটি সিজন 'মির্জাপুর' আমাদের ভক্তদের কাছ থেকে অসাধারণ সাড়া পেয়েছে। এই বিপুল সমর্থন আমাদের সীমা অতিক্রম করতে এবং অসাধারণ কন্টেন্ট সরবরাহ করতে উদ্বুদ্ধ করে। ‘প্রাইম ভিডিও’ এর সাথে আমাদের সম্পৃক্ততা এই সাফল্যের একটি প্রমাণ এবং আমরা দর্শকদের সাথে অনুরণিত হয় এমন আকর্ষণীয় গল্পগুলি সরবরাহ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।"

কাহিনী এবং পর্ব

নতুন সিজনটি দ্বিতীয় সিজনের বিস্ফোরক সমাপ্তির পরবর্তী ঘটনাগুলি অন্বেষণ করবে, যেখানে গুড্ডু পান্ডিত (আলি ফজল) মুনা ভাইয়া (দিব্যেন্দু শর্মা) কে হত্যা করেছিল।

ভক্তরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন যে মির্জাপুরের সিংহাসন কালিন ভাইয়া (পঙ্কজ ত্রিপাঠি) বা গুড্ডু পান্ডিতের হাতে পড়বে কিনা। সবারই প্রধান প্রশ্নটি হচ্ছে, ‘সিংহাসন অর্জিত হবে নাকি চলমান ক্ষমতার এবং আধিপত্যের যুদ্ধে ছিনিয়ে নেওয়া হবে?’। 'মির্জাপুর' সিজন ৩ দশটি পর্ব নিয়ে গঠিত হবে। সিরিজটি ৫ই জুলাই থেকে এক্সক্লুসিভলি প্রাইম ভিডিওতে স্ট্রিম হবে। 


মির্জাপুর   মির্জাপুর সিজন ৩   ওটিটি   প্রাইম ভিডিও   পঙ্কজ ত্রিপাঠি   আলি ফজল   শ্বেতা ত্রিপাঠি শর্মা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

বহুল প্রতীক্ষিত 'কল্কি ২৮৯৮ এডি'এর ট্রেলার প্রকাশ

প্রকাশ: ০৯:২৫ পিএম, ১১ জুন, ২০২৪


Thumbnail

দুই ধাপে পেছানো হয়েছে প্রভাস-দীপিকার আসন্ন চলচ্চিত্র ‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’র মুক্তি। অবশেষে এই বছরের সবচেয়ে প্রতীক্ষিত সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে আসতে চলেছে। সোমবার (১০ জুন) প্রকাশিত হয়েছে সিনেমাটির ট্রেলার, যা ইতিমধ্যেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

নাগ অশ্বিন পরিচালিত এই সাই-ফাই সিনেমার মারকাটারি অ্যাকশনের ঝলক দেখেই ভক্তদের চোখ কপালে উঠেছে। ট্রেলারের শুরুতেই দেখা যায় কাশীর, যা পৃথিবীর প্রথম এবং শেষ শহর হিসাবে বর্ণিত। দুষ্ট শাসক শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় শহর জুড়ে ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে। জনতাকে তার নাগপাশ থেকে উদ্ধারের জন্য ঈশ্বরের পৃথিবীতে আসা কার্যত নিশ্চিত। অশ্বত্থামারূপী অমিতাভ বচ্চনের ভবিষ্যদ্বাণী অনুযায়ী, দীপিকা পাড়ুকোনের চরিত্র পদ্মার গর্ভেই জন্ম নেবেন ঈশ্বর। তাই খলনায়ক শাশ্বত ও তার সেনা পদ্মা এবং তার গর্ভস্থ সন্তানকে হত্যা করতে উদ্যোগী। অন্যদিকে, পদ্মাকে রক্ষার দায়িত্বে থাকবেন অশ্বত্থামা।

ট্রেলারে দেখা যায়, ভৈরবের চরিত্রে প্রভাস। শাশ্বতের সামনে দাঁড়িয়ে বীরদর্পে তিনি ঘোষণা করেন, ‘আমি ছাড়া তাকে কেউ তোমার সামনে আনতে পারবে না।’ হিন্দু পৌরাণিক কাহিনির প্রেক্ষাপটে সাজানো এই ট্রেলারের শেষে টাক মাথার এক ব্যক্তিকে নতুন যুগের ঘোষণা করতে দেখা যায়। তিনি আর কেউ নন, দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসান। প্রস্থেটিক মেকআপে একদম অচেনা অবতারে সিনেমাটিতে ধরা দেবেন তিনি।

‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’ মুক্তি পাবে ২৭ জুন। সিনেমাটির হিন্দি ভার্সনে প্রভাসের কণ্ঠে শোনা যাবে শরৎ কেলকার কণ্ঠস্বর। ট্রেলার মুক্তির পর ‘কল্কি’ ঘিরে দর্শকদের উন্মাদনা এখন তুঙ্গে। ভক্তরা অধীর আগ্রহে সিনেমাটির মুক্তির দিনক্ষণের অপেক্ষায় রয়েছেন।


কল্কি ২৮৯৮ এডি   প্রভাস   দীপিকা   অমিতাভ বচ্চন   শাশ্বত  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

কোকাকোলার বিজ্ঞাপন নিয়ে ক্ষমা চাইলেন জীবন-শিমুল

প্রকাশ: ০৫:১৮ পিএম, ১১ জুন, ২০২৪


Thumbnail

সম্প্রতি ফিলিস্তিন-ইসরায়েল ইস্যুতে সারাবিশ্বের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে কোমল পানীয় 'কোকাকোলা' বয়কটের ডাক দেয় দেশের একটি মহল। কোকাকোলা ইসরায়েলের একটি কোম্পানি এমন একটি  ধারণা দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক মাধ্যমে প্রচলিত থাকায় কোকাকোলা বাংলাদেশ বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেছে যে এটি ইসরায়েলি কোম্পানি নয়। বাংলাদেশে উৎপাদিত কোকাকোলা দেশীয় প্রক্রিয়ায় তৈরি হয়। তবে, কোকাকোলার এই বার্তা জনগণ তেমনভাবে গ্রহণ করেনি।

তাই কোম্পানিটি এবার সরাসরি একটি বিজ্ঞাপন নির্মাণ করেছে, যেখানে তারা বোঝানোর চেষ্টা করেছে, কোকাকোলা ১৯৩টি দেশে তৈরি হয় এবং ফিলিস্তিনেও তাদের একটি ফ্যাক্টরি রয়েছে। এই প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠানটি প্রমাণ করতে চেয়েছে যে, কোকাকোলার ইসরায়েলি মালিকানাধীন বলে যে তথ্যটি ছড়ানো হচ্ছে তা পুরোপুরি মিথ্যা ও গুজব। আর কোকাকোলা বাংলাদেশের এই বিজ্ঞাপনটি নিয়েই এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে তীব্র বিতর্ক, চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। 

বিজ্ঞাপনটিতে মডেল হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা শরাফ আহমেদ জীবন ও শিমুল শর্মা। আর তাই কোকাকোলা বয়কটের পাশাপাশি এবার এই দুই অভিনয়শিল্পীকে বয়কটের হুমকি দিয়েছেন নেটিজেনরা। বিভিন্ন গ্রুপ থেকে শুরু করে অনেকে নিজের ফেসবুক আইডিতেও পোস্ট দিয়ে এমন বয়কটের ডাক দিচ্ছেন। 

 এমন পরিস্থিতিতে তোপের মুখে পড়ে কোকাকোলার বিজ্ঞাপনে কাজ করার বিষয়ে অবশেষে মুখ খুলেছেন অভিনেতা শরাফ আহমেদ জীবন। সোমবার (১০ জুন) রাতে এ অভিনেতা তার ফেসবুক আইডিতে দেয়া এক পোস্টে দাবি করেছেন, তিনি ইসরায়েলের পক্ষে কোন কাজ করেননি।

পোস্টে শরাফ আহমেদ জীবন বলেন, ‘আমি একজন নির্মাতা এবং অভিনেতা হিসেবে সবার কাছে পরিচিত। বিগত দুই দশক ধরে আমি নির্মাণ ও অভিনয়ের সাথে জড়িত। ব্যক্তিগত জীবনে আমি সবসময় মানবাধিকারবিরোধী যেকোনো আগ্রাসনের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছি এবং আপনাদের অনুভূতি ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকেছি।’

এ অভিনেতা আরও দাবি করেন, বিজ্ঞাপনটিতে তিনি কোথাও ইসরায়েলের পক্ষ নেননি, এমনকি অতীতেও তিনি ইসরায়েলের পক্ষ নিয়ে কোন মন্তব্য করেননি। পাশাপাশি তার হৃদয় সবসময়  ন্যায়ের পক্ষে এবং মানবতার পাশে আছে, থাকবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। 

কোকাকোলার বিজ্ঞাপনের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি কোকা-কোলা বাংলাদেশ তাদের একটি বিজ্ঞাপন নির্মাণ এবং এতে অভিনয়ের জন্য আমাকে প্রস্তাব দেয়। আমি শুধুমাত্র তাদের দেয়া তথ্য ও উপাত্তই কাজটিতে তুলে ধরেছি। বিজ্ঞাপনটি প্রচার হবার পর থেকে আমি আপনাদের অনেক মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করছি এবং আপনাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে আমি আবারো বলতে চাই কাজটি শুধুই আমার পেশাগত জীবনের একটি অংশমাত্র।’

এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে বিজ্ঞাপনটিতে মডেল হওয়ার জন্য দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন আরেক অভিনেতা শিমুল শর্মা। মঙ্গলবার (১১ জুন) সকালে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দেন তিনি। স্ট্যাটাসটিতে তিনি লিখেছেন,

‘আমি শিমুল শর্মা যদিও পরিচয় দেবার মত একজন অভিনেতা এখনও হয়ে উঠতে পারিনি কারণ একজন অভিনেতা হবার জন্য যে অধ্যবসায় এবং দূরদর্শিতা দরকার সেটা এখনো আমার হয়ে উঠেনি, আমি চেষ্টা করছি মাত্র। তাই হয়ত না বুঝে করা আমার কাজ আজ আমার দর্শক, তথা আমার পরিবার ও দেশের মানুষকে কষ্ট দিয়েছে। আমি ভবিষ্যতে কোন কাজে অভিনয় করতে গেলে অবশ্যই আমাদের দেশের মূল্যবোধ, মানবাধিকার, মানুষের মনোভাবকে যথেষ্ট সম্মান দিয়ে বিবেচনা করে তারপর কাজ করব। আমি মাত্র আমার জীবনের পথচলা শুরু করেছি, আমার এই পথচলায় ভুল ত্রুটি ক্ষমা সুলভ দৃষ্টিতে দেখবেন এবং আমাকে ভবিষ্যতে একজন বিবেকবান শিল্পী হয়ে ওঠার জন্য শুভ কামনায় রাখবেন। ধন্যবাদ সবাইকে।’

এর আগে শিমুল বলেছিলেন,  বাংলাদেশে কোকাকোলা নিয়ে প্রোপাগান্ডামূলক একটি তথ্য ছড়িয়ে আছে। কোনো প্রোডাক্টকে যদি ধর্মীয় মোড়কে মুড়িয়ে ফেলা হয়, তাহলে কিছু করার নেই। সবাই  নিজেদের জায়গা থেকে স্টেটমেন্ট  দিতে পারে। মূলত সেই জায়গা থেকেই  বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করা হয়েছে।

তবে কোকাকোলার বিতর্কিত বিজ্ঞাপনটি বয়কটের ডাক দেওয়ার পরে তার ফেসবুক পেজ ডিএক্টিভেট করে রেখেছিলেন শিমুল। এরপর আজ সকালে পেইজটি পুনরায় অ্যাক্টিভ করে বিজ্ঞাপনের বিষয়ে পোস্ট দিয়ে ক্ষমা চাইলেন এই অভিনেতা।

এদিকে, বিজ্ঞাপনটি নিয়ে যেহেতু বিতর্ক হচ্ছে- স্বাভাবিকভাবেই এর নির্মাতাকে নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। অনেকেই জানতে চাইছেন বিজ্ঞাপনটির নির্মাতা 'ব্যাচেলর পয়েন্ট' খ্যাত কাজল আরেফিন অমি কিনা। আর তাই এ বিষয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন অমি নিজেই। ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে তিনি দাবি করেন,  এটি তার বানানো নয়। কাজল আরেফিন অমি তার ফেসবুকে লিখেছেন, আমি কখনো বিজ্ঞাপন বানাই নি, আমি নাটক, ওয়েব ফিল্ম, ওয়েব সিরিজ নিয়েই কাজ করেছি, ভবিষ্যতে সিনেমা বানাবো। ধন্যবাদ।

এদিকে, আসন্ন ঈদুল আযহায় কাজল আরেফিন অমি নির্মিত 'ফিমেল' সিরিজের নতুন সংস্করণ 'ফিমেল ৪' আসছে। যা প্রথমবারের মতো ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাবে।


কোকাকোলা   ইসরায়েল   ফিলিস্তিন   শরাফ আহমেদ জীবন   শিমুল শর্মা   বয়কট  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন