কালার ইনসাইড

মাইলস ছেড়ে যা বললেন শাফিন আহমেদ

প্রকাশ: ১২:২০ পিএম, ২৮ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail মাইলস ছেড়ে যা বললেন শাফিন আহমেদ

নিজের গড়া ব্যান্ড মাইলস ছেড়েছেন শাফিন আহমেদ। শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাতে ফেসবুক লাইভে এসে এই ঘোষণা দেন শাফিন আহমেদ। এর আগেও একাধিকবার তিনি এই ঘোষনা দেন।

বক্তব্যের শুরুতে শাফিন আহমেদ বলেন, ‘মাইলসের সঙ্গে আমার পথচলা সেই ১৯৭৯ সাল থেকে। বহু বছর পার হয়ে গেছে। অনেক বছর সময় দিয়েছি, শ্রম দিয়েছি। অনেক ক্রিয়েটিভ কাজ হয়েছে। মাইলসের যে অবস্থান আজকে, সেটার পেছনে আমার কতটুকু অবদান, সেটা আপনাদের অনেকেই জানেন। তবে একটা সিদ্ধান্ত নিতে আমি বাধ্য হয়েছি সম্প্রতি। সেটা হচ্ছে, এ বছরের শুরু থেকে-মাইলসের বর্তমান লাইন আপের সাথে আমার পক্ষে মিউজিকের কোনো কার্যক্রম করা সম্ভব হচ্ছে না। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমি এই লাইন আপের সাথে মিউজিক করা থেকে বিরত থাকবো।’ 

দল ছাড়লেও গান ছাড়ছেন না শাফিন আহমেদ। তা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সংগীত জগতের কার্যক্রম আগের মতোই স্বাভাবিক থাকবে। নিয়মিত স্টেজ ও রেকর্ডিংয়েও আমাকে পাওয়া যাবে। আমার একটাই প্রত্যাশা মাইলস নামটির যেন কোনোরকম অপব্যবহার না হয়। মাইলসকে নিয়ে আমরা ৪০ বছর উদযাপন করেছি—খুব গৌরবোজ্জ্বলভাবে। আমরা যদি একসাথে কাজ না করতে পারি, তাহলে মাইলসের কার্যক্রম এখনই স্থগিত করা উচিত এবং এটাই সেরা সিদ্ধান্ত বলে মনে করি।’

 দল ছাড়ার একটি কারণ উল্লেখ করে ভিডিওটির ক্যাপশনে শাফিন আহমেদ লিখেন—‘দীর্ঘদিনের অন্যায় ও ভুল কার্যক্রমের পরিপ্রেক্ষিতে আমি এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।’ তবে তার সঙ্গে কী অন্যায় করা হয়েছে তা জানাননি। এই বিষয়ে এখনই কিছু বলতে নারাজ মাইলসের আরেক কাণ্ডারি শাফিন আহমেদের বড় ভাই হামিন আহমেদ।

২০১০ সালে মাইলস ছেড়ে নতুন দল গঠন করেন শাফিন আহমেদ। কয়েক মাস পর ফিরে আসেন দলে। ২০১৭ সালের শুরুর দিকেও ব্যান্ড থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। কিন্তু কিছুদিন পর সব দ্বন্দ্ব ভুলে আবারো নিজ ঘরে ফেরেন শাফিন।

১৯৭৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় মাইলস। ১৯৯১ সালে দলটির প্রথম বাংলা গানের অ্যালবাম ‘প্রতিশ্রুতি’ প্রকাশিত হয়। এরপর তাদের পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। মাইলসের অ্যালবামগুলো হলো—মাইলস (১৯৮২), প্রতিশ্রুতি (১৯৯১), প্রত্যাশা (১৯৯৩), প্রত্যয় (১৯৯৬), প্রয়াস, প্রবাহ (২০০০), প্রতিধ্বনি (২০০৬) ও প্রতিচ্ছবি (২০১৫)।

মাইলসের সর্বশেষ লাইনআপে ছিলেন—শাফিন আহমেদ (বেজ গিটার, কণ্ঠ), হামিন আহমেদ (গিটার, কণ্ঠ), মানাম আহমেদ (কি-বোর্ড), ইকবাল আসিফ জুয়েল (গিটার) ও সৈয়দ জিয়াউর রহমান তূর্য (ড্রামস)।

 

 

 



মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নতুন খবর দিলেন ওমর সানী-মৌসুমী দম্পতির ছেলে স্বাধীন

প্রকাশ: ০৭:১২ পিএম, ২৬ Jun, ২০২২


Thumbnail নতুন খবর দিলেন ওমর সানী-মৌসুমী দম্পতির ছেলে স্বাধীন

তারকা দম্পতি ওমর সানী ও মৌসুমীর ছেলে ফারদিন এহসান স্বাধীন। বেশ আগে রেস্তোরাঁ ব্যবসা শুরু করেন তিনি। এবার রাজধানীর গুলশানে নতুন একটি রেস্তোরাঁ চালু করতে যাচ্ছেন। দৃষ্টিনন্দন এই রেস্তোরাঁর নাম রেখেছেন ‘চাপওয়ালা’। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে এর উদ্বোধন করবেন।

ফারদিন বলেন, উত্তরা, বনানী, গুলশানে আমাদের যে রেস্তোরাঁগুলো আছে সেগুলোতে শুধু বিদেশি খাবার পাওয়া যায়। আমি বাংলাদেশের নাগরিক, তাই বাঙালি খাবার নিয়ে কিছু একটা করার তাড়না কাজ করছিল। যার কারণে ‘চাপওয়ালা’ রেস্তোরাঁটি চালু করছি।

পুরান ঢাকার অরজিন্যাল চাপ পাওয়া যাবে ফারদিনের রেস্তোরাঁয়, সঙ্গে থাকবে লুচি, আলুর দম। আর প্রতি শুক্রবার বিভিন্ন ধরনের স্পেশাল খাবার রাখবেন বলে জানান ফারদিন।

স্বাধীন   ওমর সানী   মৌসুমী  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

‘হেরা ফেরি থ্রি’ নিয়ে আসছে তারা

প্রকাশ: ০৫:৪৭ পিএম, ২৬ Jun, ২০২২


Thumbnail ‘হেরা ফেরি থ্রি’ নিয়ে আসছে তারা

বলিউডে কমেডি ঘরানার সিনেমার প্রথম সারির তালিকায় রয়েছে ‘হেরা ফেরি’। ২০০৬ সালে মুক্তি পাওয়া এ সিনেমায় অভিনয় করেন বলিউডের তিন জনপ্রিয় অভিনেতা অক্ষয় কুমার, পরেশ রাওয়াল ও সুনীল শেঠি। এটি মুক্তির পরপরই ব্যাপক প্রশংসা কুড়ায় সিনেমাপ্রেমীদের মাঝে।

এই ফ্র্যাঞ্চাইজির দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছিল। সেই দুটি সিনেমার মুক্তির দুই দশক পেরিয়ে গেছে তবু এখনও রেশ রয়ে গেছে ভক্তদের মাঝে। আর তাইতো সেই ভক্তদের জন্য এবার দারুণ খবর দিয়েছে সিনেমাটির প্রযোজক। ‘হেরা ফেরি-৩’-এর ফিরোজ নাদিয়াদওয়ালা নিশ্চিত করলেন, সিনেমাটি আসছে। থাকছেন অক্ষয় কুমার, পরেশ রাওয়াল ও সুনীল শেঠি।

এ প্রসঙ্গে ফিরোজ বলেন, পুরনো গল্পের স্বাদ রেখেই নতুন গল্প তৈরি হবে। সেই কমেডি তো থাকছেই। তবে সময়টা যেহেতু বদলেছে, তাই সিনেমাটিকে এখনকার দর্শকদের মতো করে তৈরি করা হবে। আর প্রথম দুই ছবির তারকারাই থাকছেন তাতে। মূলত অক্ষয় কুমার, পরেশ রাওয়াল এবং সুনীল শেঠিকে নিয়েই তৈরি হচ্ছে এই সিনেমা।

এ ছাড়া তিনি আরও বলেন, ‘হেরা ফেরি ৩’ পরিচালনা করবেন ইন্দ্র কুমার। চলতি বছরের শেষ দিকেই শুরু হবে এর শুটিং। তবে মুক্তির দিনটি এখন নিশ্চিত করতে চাই না। কিন্তু আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ে মুক্তি পেতে পারে এতটুকু নিশ্চিত করতে পারি।

উল্লেখ্য, বাবু রাও, রাজু ও শ্যাম তিন ব্যক্তিকে ঘিরে হেরা ফেরির গল্প আবর্তিত হয়। তাদের নানান কাণ্ড দর্শকের মুখে মুহূর্তেই হাসি ফুটিয়ে দেয়। এই সিরিজের প্রথম সিনেমা ‘হেরা ফেরি’ মুক্তি পেয়েছিল ২০০০ সালে। এর ছয় বছর পর ২০০৬ সালে মুক্তি পায় ‘ফির হেরা ফেরি’। দুটি সিনেমাই বক্স অফিসে সাফল্য পেয়েছিল। কাঁপিয়ে দিয়েছিল তৎকালীন ভারতীয় বক্স অফিস।

হেরা ফেরি থ্রি   অক্ষয় কুমার   পরেশ রাওয়াল ও সুনীল শেঠি  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

বাংলাদেশের গীতিকারের লেখায় গান গাইলেন বলিউডের জুবিন গার্গ

প্রকাশ: ০৫:১৩ পিএম, ২৬ Jun, ২০২২


Thumbnail

বাংলা গানে কণ্ঠ দিলেন বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জুবিন গার্গ। গানের শিরোনাম ‘ঢাকাইয়া মাইয়া’।গীতিকার জসিম উদ্দিন আকাশের কথায় এর সুর করছেন এফ এ প্রিতম। মিউজিক করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আকাশ সেন।

জানা যায়, এর মাধ্যমে প্রথমবার কোনো বাংলাদেশের গীতিকারের লেখায় গান গাইলেন জুবিন।  



গানটির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যে সময় ‘ঢাকাইয়া মাইয়া’ গানটি গেয়েছি তখন হাতে অনেক কাজ ছিলো, তারপরও গানটি করেছি। গানটি আমার অনেক পছন্দ হয়েছে।  তাছাড়া এর কথা অনেক সুন্দর। আমি মনে করি দর্শকের অনেক ভালো লাগবে।  

সম্প্রতি ফিল্ম ভ্যালিতে ‘ঢাকাইয়া মাইয়া’ গানটির ভিডিওর দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। শিরিন শিলা ও সাঞ্জু জনকে নিয়ে ভিডিওটি নির্মাণ করছেন শুভ্র মেহেরাজ। আসছে ঈদে গানটির ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশ হবে।  

শিরিন শিলা   গান   বলিউড   সংগীতশিল্পী   জুবিন গার্গ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নিশোর মুখোমুখি পরী-রাজ

প্রকাশ: ০৫:০০ পিএম, ২৬ Jun, ২০২২


Thumbnail

ঈদ মানেই বিটিভির জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দ মেলা।’ প্রতিবারই এই অনুষ্ঠানে থাকে নিত্যনতুন চমক। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এবারের আনন্দ মেলার সবচেয়ে বড় চমক থাকছে উপস্থাপনায়। এ সময়ের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী আফরান নিশোকে এবার দেখা যাবে আনন্দমেলার উপস্থাপক হিসেবে। তার অভিনীত বিভিন্ন নাটকের জনপ্রিয় চার-পাঁচটি চরিত্রে হাজির হবেন তিনি।

আর চরিত্রগুলোর মাধ্যমে তিনি সাজিয়ে তুলবেন পুরো আনন্দ মেলা। আনন্দ মেলার পরিকল্পনা করেছেন জগদীশ এষ। লিটু সাখাওয়াতের গ্রন্থনায় প্রযোজনা করেছেন আফরোজা সুলতানা ও হাসান রিয়াদ। এবারের আনন্দ মেলা প্রসঙ্গে প্রযোজকদ্বয় জানান, ‘শুধু উপস্থাপনাতেই নয়, পুরো আনন্দ মেলা জুড়ে থাকছে বিভিন্ন চমক। আনন্দ মেলার জন্য এবার একটি থিম সং তৈরি করা হয়েছে। যেখানে কণ্ঠ দিয়েছেন বেলাল খান ও লিজা। থাকছে ঢাকা ব্যান্ডের মাকসুদের পরিবেশনা।’

এ ছাড়াও রয়েছে নিশিতা বড়ুয়া, সাব্বির, লিজা ও রাজীবের কণ্ঠে একটি মৌলিক গান। সিনেমার গানের সঙ্গে নাচবেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও চিত্রনায়ক সাইমন। থাকছে চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়ার নাচ। বিশেষ একটি পর্বে আড্ডায় অংশ নেবেন চিত্রনায়িকা পরীমণি ও তার স্বামী শরিফুল রাজ। চলচ্চিত্র অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন হাজির হবেন তার ছবির জনপ্রিয় নায়িকা অঞ্জনাকে নিয়ে।

এ ছাড়াও থাকছে সমসাময়িক বিষয়ের ওপর তিনটি নাটিকা এবং মীরাক্কেলের কৌতুক অভিনেতাদের নিয়ে আড্ডা। বিটিভির নিজস্ব স্টুডিওতে সম্প্রতি আনন্দ মেলার শুটিং সম্পন্ন হয়েছে; যা প্রচার হবে ঈদুল আজহার দিন রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর।


নিশো   পরীমনি   রাজ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

রাজনৈতিক কারণে আটকে গেলেন ফারিয়া!

প্রকাশ: ০৪:০১ পিএম, ২৬ Jun, ২০২২


Thumbnail রাজনৈতিক কারনে আটকে গেলেন ফারিয়া!

ঢাকাই চলচ্চিত্রে বর্তমান প্রজন্মের চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। ওপার বাংলায়ও রয়েছে তার পরিচিত৷ টলিউডের ‘বিবাহ অভিযান-২’ সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নিতে থাইল্যান্ডে যাওয়ার কথা ছিল, সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন এই নায়িকা। কিন্তু রাজনৈতিক কারণে সিনেমাটির শুটিং অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে।

আগামী ঈদুল আজহা থাইল্যান্ডে কাটানোর কথা ছিল ফারিয়ার। কিন্তু থাইল্যান্ড যাওয়া হচ্ছে না বলে জানান এই অভিনেত্রী।

২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বিবাহ অভিযান’ সিনেমার সিক্যুয়েল এটি। এ সিক্যুয়েলের প্রথম পার্টেও অভিনয় করেছিলেন এই অভিনেত্রী। দ্বিতীয় পার্টেও থাকছেন তিনি। 



এ বিষয়ে ফারিয়া জানান, ‘বিবাহ অভিযান-২’ সিনেমার শুটিং বন্ধ করা হয়েছে। তবে কী কারণে শুটিং স্থগিত করা হয়েছে সে বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ এই গায়িকা।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সিনেমাটির শুটিং পিছিয়ে যাওয়ার নেপথ্যে আছে রাজনৈতিক খেলা। সিনেমার প্রথম কিস্তির মতো দ্বিতীয় কিস্তির কাহিনিকারও অন্যতম অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। তার কারণেই নাকি জটিলতা তৈরি হয়েছে। এসভিএফ প্রযোজিত সিনেমাটি পরিচালনা করার কথা রয়েছে সায়ন্তন ঘোষালের।

ফারিয়া অভিনীত ঢালিউড-টলিউড মিলিয়ে একাধিক সিনেমা মুক্তির প্রহর গুণছে। বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় ও নির্মাণাধীন রয়েছে ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’, ‘ভয়’, ‘পর্দার আড়ালে’, ‘রকস্টার’ ও ‘ঢাকা ৪২০’ সিনেমা।

নুসরাত ফারিয়া   শুটিং   রাজনীতি  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন