কোর্ট ইনসাইড

কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে ঝর্নাকে মামুনুল হকের হুঙ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৬:৩৮ পিএম, ২৪ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail

ধর্ষণ মামলায় সাক্ষ্য দিতে হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হকের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে আসেন কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণা।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালতে আসেন তারা।

আদালতে সাক্ষী দেওয়ার সময় মুখের হিজাব খুলতে বলা হয় ঝর্নাকে।এ সময় আসামীর কাঠগড়া থেকে মামুনুল হক হুঙ্কার দিয়ে বলেন, শরীয়তের হুকুম হিজাব খোলবানা ঝর্না।

এতে ঝর্না একবার হিজাব খুলে বিচারককে মুখ দেখিয়ে ফের হিজাব দিয়ে মুখ ঢেকে রাখেন।

বুধবার সোয়া ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে সাক্ষী দিয়েছে ঝর্না।

জানা গেছে, বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্য দিয়ে কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জের আদালতে আনা হয় মামুনুলকে। এর কিছুক্ষণ পরই জান্নাত আরা ঝর্ণা আদালতে আসেন।

নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর রকিবুদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টে ঝর্ণা বেগমকে নিয়ে জনতার হাতে অবরুদ্ধ হওয়ার পর স্ত্রী বলে পরিচয় দিয়েছিলেন মামুনুল হক। পরে ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেন ঝর্ণা। গত ৩ নভেম্বর এ মামলায় মামুনুল হকের উপস্থিতিতে অভিযোগ গঠন হয়।



মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

আইনজীবী-পুলিশ সংঘর্ষ: মামলা খারিজের প্রতিবাদে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের বিক্ষোভ

প্রকাশ: ০৪:৪৭ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail বিএনপি-জামায়াতপন্থি আইনজীবীদের বিক্ষোভ।

বিএনপি-জামায়াতপন্থি আইনজীবীদের সংগঠন ইউনাইটেড ল'ইয়ার্স ফোরামের পদযাত্রায় পুলিশের হামলার অভিযোগে করা মামলার আবেদন খারিজের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা আইনজীবী সমিতির সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে আদালত প্রাঙ্গণের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

এ সময় বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড ল'ইয়ার্স ফোরামের আহ্বায়ক মো. মহসিন মিয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুল লতিফ তালুকদার, আব্দুর রাজ্জাক ও খোরশেদ আলম ও সমন্বয়ক ওমর ফারুক ফারুকী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, আমরা আমাদের এক দফার আন্দোলন চালিয়ে যাব। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলন আরও বেগবান হবে। পুলিশের বিরুদ্ধে আইনজীবীদের করা মামলা খারিজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমানের আদালতে পুলিশের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেন ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি মহসিন মিয়া। আদালত বাদীর জবানবন্দি রেকর্ড শেষে আদেশ পরে দেবেন বলে জানান। পরবর্তীতে মামলা নেওয়ার মতো উপাদান নেই উল্লেখ করে আদালত তা খারিজ করে দেন আদালত।


বিএনপি   জামায়াত   আইনজীবী   বিক্ষোভ   মামলা  


মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

লালবাগের এডিসিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

প্রকাশ: ১২:৫১ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের পদযাত্রায় হামলার অভিযোগে কোতোয়ালি জোনের এডিসি মুহিত কবির সেরনিয়াবাতসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করা হয়েছে।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমানের আদালতে অ্যাডভোকেট মো. মহসিন মিয়া বাদী হয়ে এ আবেদন করেন।

অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যরা হলেন, লালবাগ জোনের এডিসি শহিদুল ইসলাম, কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহীনুর রহমান শাহীন, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) নাজমুল হাসান, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মেহেদী হাসান, এসআই মো. শাহাবুদ্দিন হাওলাদার, কনস্টেবল মো. মাহাবুব আলম, আব্দুর রশীদ ও রমজান মোল্লা।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে আইনজীবী সমিতির সামনে থেকে এ মিছিল শুরু হয়। এরপর মিছিলটি আদালতের সামনের প্রধান সড়ক এলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশ পথরোধ করলে আইনজীবীরা রাস্তায় বসে পড়ে। এ সময় পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়।

সংঘর্ষে আহত আইনজীবীরা হলেন- মাহবুবুর রহমান খান, দেওয়ান রিপন, মোজাহিদুল ইসলাম সায়েম, কে এম মিরাজ হোসেন, সাইদুর রহমান সোহাগ, কে এম বরকত সবুজ, মাহবুব আলম আক্তার, শফিকুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, হাজী মো. মহসীন, কাজী পনির এবং এস এম হুমায়ূন কবির। অপরদিকে আহত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন, কোতোয়ালি জোনের এডিসি মুহিত কবির সেরনিয়াবাত, কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীনুর রহমান, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) বশির এবং কনস্টেবল হারুন।



মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

সাংবাদিক নাদিম হত্যার প্রধান আসামি বাবুর জামিন স্থগিত

প্রকাশ: ১১:৩০ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

জামালপুরে সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন আগামী ২০ নভেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। ওইদিন আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হবে।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। আসামির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোমতাজ উদ্দিন ফকির।

এর আগে সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বাবুকে ৬ মাসের জামিন দেন। যা মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) জানা যায়। বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মোহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পরে সাংবাদিক হত্যার প্রধান আসামির জামিন স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

গত ২৭ আগস্ট জামালপুরে সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুসহ ৬ আসামির জামিন নামঞ্জুর করেন আদালত। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সুলতান মাহমুদ তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

গত ১৪ জুন রাতে জামালপুরের বকশীগঞ্জের পাটহাটি এলাকায় সাধুরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুর নির্দেশে সন্ত্রাসীরা সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে পিটিয়ে ও ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে গুরুতর আহত করে। পরদিন ১৫ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি। 

এ ঘটনায় গত ১৭ জুন নাদিমের স্ত্রী মনিরা বেগম বাদী হয়ে বকশীগঞ্জ থানায় মাহমুদুল আলম বাবুসহ ২২ জনের নামে এবং আরও অজ্ঞাত ২০-২৫ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত বাবুসহ ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। 



মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে রংপুরে শ্রম আদালতে আরও এক মামলা

প্রকাশ: ০৮:৪৭ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

নোবেল বিজয়ী ড. মোহাম্মদ ইউনূসসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে বকেয়া পাওনা ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে রংপুর শ্রম ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এই মামলা করেন গ্রামীণ কৃষি ফাউন্ডেশনের অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র খামার ব্যবস্থাপক ফারুকুল ইসলাম। আদালতের বিচারক একেএম ফজলুল হক মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর শুনানির তারিখ ধার্য করেন। 

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ড. মোহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে মজুরি, গ্রাচুইটি, অর্জিত ছুটির অর্থবাবদ বাদীর পাওনা রয়েছে ৯ লাখ ৭৫ হাজার ১২৫ টাকা। ক্ষতিপূরণের দাবিতে এই মামলা করা হয়। 

বাদীপক্ষের আইনজীবী শামীম আল মামুন বলেন, মামলার এক নম্বর বিবাদী ড. ইউনূস বাদী ফারুকুল ইসলামকে ৯ লাখ ৭৫ হাজার ১২৫ টাকা পরিশোধ না করে বিভিন্ন সময় চাপ প্রয়োগ করে অবসর গ্রহণে বাধ্য করেন। ইতোপূর্বে তার মতো ১ হাজার ২০০ জন কর্মকর্তাকে চাপ প্রয়োগ করে অবসর গ্রহণে বাধ্য করা হয়েছে।

ড. ইউনূস   শ্রম আদালত  


মন্তব্য করুন


কোর্ট ইনসাইড

সাংবাদিক নাদিম হত্যার মূল আসামি বাবুকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট

প্রকাশ: ০৩:৫১ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

জামালপুরে সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ (১৯ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ জামিন মঞ্জুর করেন।

সংশ্লিস্ট কোর্টের রাষ্ট্রপক্ষের আইন কর্মকর্তা জানান, আসামি মাহমুদুল আলম বাবুকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। এরই মধ্যৈ জামিন স্থগিত চেয়ে চেম্বার আদালতে আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। আগামীকাল বুধবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের চেম্বার আদালতে এই জামিন স্থগিতের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।


সাংবাদিক   নাদিম হত্যা   আসামি   বাবু   জামিন   হাইকোর্ট  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন