ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বিমানবন্দরে করোনার ল্যাব বসাবে ৭ প্রতিষ্ঠান

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ বুধবার, ১০:০৯ পিএম
বিমানবন্দরে করোনার ল্যাব বসাবে ৭ প্রতিষ্ঠান

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার বসাতে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। প্রতিষ্ঠানগুলো তিন থেকে ছয় দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে স্থাপন করবে এই পরীক্ষাগার।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব সারওয়ার আলম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এসব তথ্য জানানো হয়। 

অনুমোদন পাওয়া প্রতিষ্ঠান সাতটি হলো—স্টেমজ হেলথ কেয়ার (বিডি) লিমিটেড, সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার, এএমজেড হাসপাতাল লিমিটেড, আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জয়নুল হক সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতাল, গুলশান ক্লিনিক লিমিটেড এবং ডি এম এফ আর মলিকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ওই চিঠিতে বলা হয়, এই সাত প্রতিষ্ঠানের নাম প্রস্তাব করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আর  অনুমোদন দিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

সাতটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে তিন দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে বলে মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে স্টেমজ হেলথ কেয়ার। বিমানবন্দরে বহির্গামী যাত্রীরা এখানে করোনার নমুনা পরীক্ষা করতে পারবেন দুই হাজার টাকা খরচে। সিএসবিএফ হেলথ সেন্টারের ল্যাব স্থাপনে সময় লাগবে পাঁচ দিন, নমুনা পরীক্ষার খরচ নিবে এক হাজার ৮৫০ টাকা। এএমজেড হাসপাতাল পাঁচ দিনে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে, নমুনা পরীক্ষায় খরচ নেবে এক হাজার ৮০০ টাকা। আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চার দিনে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে, নমুনা পরীক্ষার খরচ নেবে ২ হাজার টাকা। জয়নুল হক সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ পরীক্ষাগার স্থাপন করতে ছয় দিন চেয়েছে এবং খরচ চেয়েছে ১ হাজার ৭০০ টাকা। পাঁচ দিনে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে বলে জানিয়েছে গুলশান ক্লিনিক, যাদের নমুনা পরীক্ষার খরচ এক হাজার ৭৫০ টাকা। আর ডিএমএফআর পরীক্ষাগার স্থাপন করতে সময় চেয়েছে চার দিন, যেখানে নমুনা পরীক্ষার খরচ দুই হাজার ৩০০ টাকা।