ইনসাইড এডুকেশন

৪১তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষা শুরু আজ

প্রকাশ: ০৮:২৭ এএম, ২৯ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail ৪১তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষা শুরু আজ

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনে (পিএসসি) ৪১তম বিসিএসের আবশ্যিক বিষয়ের লিখিত পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। আজ সোমবার (২৯ নভেম্বর) প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া এ পরীক্ষা চলবে আগামী ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে এই পরীক্ষা শুরু হবে।

 পিএসসির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পরীক্ষার হলে বই-পুস্তক, সব প্রকার ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ক্রেডিট কার্ড সদৃশ কোনো ডিভাইস, গহনা, ব্রেসলেট ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। তাছাড়া পরীক্ষার কেন্দ্রগুলোতে জনসমাগম পরিহারের অনুরোধ করেছে পিএসসি।

লিখিত পরীক্ষার প্রার্থীদের যেসব নির্দেশনা মানতে হবে-

১) পরীক্ষা হলে বই-পুস্তক, সব প্রকার ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ব্যাংক/ক্রেডিট কার্ড সদৃশ কোনো ডিভাইস, গহনা, ব্রেসলেট ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। নিষিদ্ধ সামগ্রীসহ কোনো প্রার্থী পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে পারবেন না।

২) পরীক্ষা কেন্দ্রের গেটে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট-পুলিশের উপস্থিতিতে প্রবেশপত্র এবং মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে মোবাইল ফোন, ঘড়ি, ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ নিষিদ্ধ সামগ্রী তল্লাশির মধ্য দিয়ে প্রার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে।

৩) পরীক্ষার দিন উল্লিখিত নিষিদ্ধ সামগ্রী সঙ্গে না আনার জন্য সব প্রার্থীর মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠানো হবে। এসএমএস বার্তার নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।

৪) পরীক্ষার সময় প্রার্থীরা কানের ওপর কোনো আবরণ রাখবেন না, কান খোলা রাখতে হবে। কানে কোনো ধরনের হিয়ারিং এইড ব্যবহারের প্রয়োজন হলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শপত্রসহ পূর্বাহ্নে কমিশনের অনুমোদন গ্রহণ করতে হবে।

৫) পরীক্ষার কেন্দ্রে কোনো প্রার্থীর কাছে বর্ণিত নিষিদ্ধ সামগ্রী পাওয়া গেলে তা বাজেয়াপ্তসহ বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা, ২০১৪ এর বিধি ভঙ্গের কারণে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিলসহ ভবিষ্যতে কর্ম কমিশন কর্তৃক গৃহীতব্য সব নিয়োগ পরীক্ষার জন্য উক্ত প্রার্থীকে অযোগ্য ঘোষণা করা হবে।

এর আগে গত ১৯শে মার্চ দেশের আট বিভাগের কেন্দ্রে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ৪১তম বিসিএসে আবেদন করেছিলেন ৪ লাখ ৪ হাজার ৫১৩ জন প্রার্থী। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৭ জন।



মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

সাত কলেজের প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ

প্রকাশ: ১০:২৯ এএম, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail সাত কলেজের প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য বিষয় ও কলেজ পছন্দের প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ হয়েছে।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার পর ঢাবি অধিভুক্ত কলেজগুলোর জন্য নির্ধারিত ওয়েবসাইটে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়।

ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক এবং ঢাবির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সাত কলেজের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির জন্য কলেজ ও বিষয় পছন্দের মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। 

তিনি আরও বোলেণ, এ বছরও অন্যান্যবারের মতো একাধিক মেধাতালিকা প্রকাশিত হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে আরও দুটি মেধাতালিকা আগামী ৫ অক্টোবর (বুধবার) ও ১৫ অক্টোবর (শনিবার) প্রকাশ করা হবে। আর ১৮ অক্টোবর (মঙ্গলবার) থেকে নতুন এ শিক্ষাবর্ষের ক্লাস শুরু হবে।

গত মাসের ১২ আগস্ট সাত কলেজের বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা, ১৯ আগস্ট কলা ও সামাজিকবিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা এবং ২৬ আগস্ট বাণিজ্য ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা গেছে, চলতি বছর অধিভুক্ত এই সাতটি কলেজে স্নাতক শ্রেণিতে মোট আসন রয়েছে ২১ হাজার ৫১৩টি। যার মধ্যে বিজ্ঞান ইউনিটের বিভাগগুলোতে মোট আসনসংখ্যা ৬৫০০টি, বাণিজ্য ইউনিটের বিভাগগুলোতে মোট আসনসংখ্যা ৫৩১০টি এবং কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটের বিভাগগুলোতে মোট আসনসংখ্যা ৯৭০৩টি।

সাত কলেজের   প্রথম মেধাতালিকা   প্রকাশ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

২৫ অক্টোবর শেষ হবে সাত কলেজের ভর্তি কার্যক্রম

প্রকাশ: ০৮:৩২ এএম, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail ২৫ অক্টোবর শেষ হবে সাত কলেজের ভর্তি কার্যক্রম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজে স্নাতক (২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষ) প্রথম বর্ষের ভর্তি কার্যক্রম আগামী ২৫ অক্টোবর শেষ হবে বলে জানিয়েছেন ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক এবং ঢাবির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক এবং ঢাবির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সাত কলেজের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির জন্য কলেজ ও বিষয় পছন্দের মনোনয়ন তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এটি প্রথম মনোনয়ন তালিকা। এরপর পর্যায়ক্রমে আরও দুটি তালিকা প্রকাশ করা হবে। আগামী ৫ ও ১৫ অক্টোবর যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১৮ অক্টোবর থেকে নতুন এ শিক্ষাবর্ষের (২০২১-২২) ক্লাস শুরু হবে।

একইসঙ্গে আগামী ২৫ অক্টোবরের মধ্যে মনোনীত কলেজে সশরীরে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতে হবে বলেও জানান তিনি।

নতুন শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রম নিশ্চিত করার জন্য বেশ কিছু নির্দেশনাও দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

১.  প্রথম মনোনয়নে যে শিক্ষার্থীরা কলেজ ও বিষয়ের জন্য মনোনীত হয়েছেন, তাদের আগামী ৫ অক্টোবরের মধ্যে অফেরৎযোগ্য তিন হাজার টাকা অনলাইনে জমা দিতে হবে।

২. দ্বিতীয় মনোনয়নে যে শিক্ষার্থীরা প্রথমবারের জন্য কোনো কলেজ ও বিষয়ের জন্য মনোনীত হবেন, তাদের ১২ অক্টোবর মধ্যে অফেরৎযোগ্য তিন হাজার টাকা অনলাইনে জমা দিতে হবে।

৩. নির্ধারিত তারিখের মধ্যে টাকা অনলাইনে জমা না করা হলে শিক্ষার্থীর আসনটি শূন্য ঘোষণা করে মেধাক্রম অনুযায়ী পরবর্তী মনোনয়ন দেওয়া হবে। জমাকৃত টাকা ভর্তির ক্ষেত্রে ‘অগ্রিম’ হিসেবে গণ্য হবে এবং তা চূড়ান্তভাবে মনোনীত কলেজের নির্ধারিত ফি- র সঙ্গে সমন্বয় করা হবে।

৪. চূড়ান্তভাবে (তৃতীয়) মনোনয়ন শেষে শিক্ষার্থীরা মনোনীত কলেজ ও বিষয়ে ভর্তির অবশিষ্ট টাকা অনলাইনে জমা দিয়ে ১৬-২৫ অক্টোবর মনোনীত কলেজে টাকা জমার রশিদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সশরীরে হাজির হয়ে ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ করবেন।

৫. সাধারণভাবে চূড়ান্ত মনোনয়নের পূর্বে একজন কলেজ ও বিষয়ে মনোনীত শিক্ষার্থী পরবর্তী মনোনয়নে আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে তার পছন্দক্রম অনুযায়ী স্বয়ংক্রিয়ভাবে অন্য কলেজ ও বিষয়ের জন্য বিবেচিত হবেন (অটো-মাইগ্রেশন)।

৬. কোনো শিক্ষার্থীর পরবর্তী যেকোনো মনোনয়নে কলেজ বা বিষয় পরিবর্তন হলে পূর্বের কলেজ বা বিষয়ের মনোনয়ন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই বাতিল হবে এবং পূর্বে মনোনীত কলেজ বা বিষয়ে মনোনয়ন পুনরায় বহাল রাখার কোনো সুযোগ নেই।

৭. মনোনীত বিষয় দেখার স্থানে শিক্ষার্থী পরে অটো-মাইগ্রেশন সম্পূর্ণভাবে বন্ধ অথবা শুধুমাত্র মনোনীত কলেজে মাইগ্রেশনের বিবেচনা করার আবেদন করতে পারবেন। একবার-অটো মাইগ্রেশন বন্ধ করা হলে শিক্ষার্থী সেই কলেজ ও বিষয়েই পড়তে আগ্রহী বলে গণ্য হবেন এবং পরবর্তী যেকোনো মনোনয়ন ধাপে মাইগ্রেশনের জন্য তিনি বিবেচিত হবেন না বা অটোমাইগ্রেশন পুনরায় চালু করা যাবে না।

৮. শিক্ষার্থীদের বিষয় পছন্দক্রম পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই।

৯. ২৫ অক্টোবর ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে সরকারি সাত কলেজের বিষয় মনোনয়ন ও ভর্তি কার্যক্রমের সমাপ্তি ঘটবে।

সাত কলেজের   ভর্তি কার্যক্রম   শেষ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের প্রথম ফ্লাইট চীনে যা‌চ্ছে আজ

প্রকাশ: ০৯:৩৪ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের প্রথম ফ্লাইট চীনে যা‌চ্ছে আজ

বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের নিয়ে আজ (সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর) প্রথম ফ্লাইট যাচ্ছে চীনে। করোনাভাইরাসের কার‌ণে বিগত দীর্ঘ‌দিন ধরে বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের চীনে যাওয়া শুরু হচ্ছে। সূত্র পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রায় দেড় হাজার শিক্ষার্থী চার্টার্ড ফ্লাইটে চীনে ফিরে যাবে বলে আশা করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রয়োজনে আরও চার্টার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছিল মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, করোনার কারণে দেশে এসে আটকে পড়া শিক্ষার্থী‌রা চীনে পড়া‌শোনা কর‌তে যে‌তে পার‌ছিল না। কূট‌নৈ‌তিক প্রচেষ্টায় দীর্ঘ‌দিন পর চীন বাংলা‌দে‌শি শিক্ষার্থী‌দের নি‌তে রা‌জি হ‌য়ে‌ছে। সোমবার এক‌টি চার্টার্ড ফ্লাইটে শিক্ষার্থী‌দের এক‌টি দল চী‌নে যা‌বে।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) চীনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত লি জিমিং জানান, মহামারি চলাকালে আটকেপড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ফিরিয়ে নিতে আমরা ভিসা দেওয়া পুনরায় শুরু করেছি। তাদের জন্য নির্ধারিত ছয়টি চার্টার্ড ফ্লাইট চালু হবে। এর মধ্যে প্রথম ফ্লাইট সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) যাত্রা করবে।

উল্লেখ্য, গত ১১ সেপ্টেম্বর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল, ২৬ সেপ্টেম্বর চার্টার্ড ফ্লাইটে শিক্ষার্থীদের প্রথম ফ্লাইট ঢাকা থেকে কুমিংয়ের উদ্দেশে রওনা করবে বলে আশা করা হচ্ছে। দ্বিতীয় ফ্লাইটি তার দু’দিন পর শিক্ষার্থীদের নিয়ে ঢাকা থেকে চীনের গুয়াংজুতে যাবে। পরের মাসে দুটি ফ্লাইট (১০ ও ২৪ অক্টোবর) ঢাকা থেকে কুমিং যাবে। একই মাসে দুটি ফ্লাইট (১২ ও ২৬ অক্টোবর) ঢাকা থেকে চীনের গুয়াংজুতে যাবে।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থী   চীন   উচ্চশিক্ষা  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

জাতির জনকের সমাধিতে জাবি উপাচার্যের শ্রদ্ধাঞ্জলি

প্রকাশ: ১২:৪৯ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail জাতির জনকের সমাধিতে জাবি উপাচার্যের শ্রদ্ধাঞ্জলি

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ নূরুল আলম।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর একটায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলম বলেন , ‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলাদেশ উপহার না দিলে আমি হয়তো উপাচার্য হতে পারতাম না।’

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পর উপাচার্য বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফেরাত ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে সূরা ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। এরপর তিনি শোকবইতে স্বাক্ষর করে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত মিউজিয়াম ও গ্রন্থাগার পরিদর্শন করেন।

উপাচার্য আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গবন্ধুর পরিবারের অসামান্য অবদানের প্রতি সামান্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে ও ১৫ আগস্টের সকল শহীদের আত্মার শান্তি কামনা করতে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে নিয়ে এখানে আসা। আজকের এই কর্মসূচি সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদের নেতৃবৃন্দ সহ আয়োজক কমিটির সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ।’

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক শেখ মোঃ মনজুরুল হক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক রাশেদা আখতার, গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের ডিন অধ্যাপক অজিত কুমার মজুমদার, জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক নুহু আলম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ, ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক আলমগীর কবির, পরিবহন অফিসের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক অধ্যাপক ছায়েদুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান সহ প্রায় ২০০ শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

জাতির জনকের সমাধিতে   জাবি উপাচার্যের   শ্রদ্ধাঞ্জলি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শিক্ষার্থীদের নিয়ে মাউশি’র কর্মসূচি

প্রকাশ: ০৯:৪৬ এএম, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শিক্ষার্থীদের নিয়ে মাউশি’র কর্মসূচি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উদযাপনের লক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি হাতে নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) মাউশির সহকারী পরিচালক (সাধারণ প্রশাসন) রূপক রায় স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে কর্মসূচির বিষয়ে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিককালে আমাদের সবচেয়ে বড় অর্জন ‘পদ্মা সেতু’। ‘পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র দৃঢ় পদক্ষেপ আমাদের গর্বিত করেছে। তাই মাউশির আওতাধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীরা পদ্মা সেতুর অর্জনে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শুভেচ্ছা বার্তা লিখবে। শুভেচ্ছা বার্তাটি ১০০ শব্দের মধ্যে হতে হবে।

এতে আরও বলা হয়েছে, শুভেচ্ছা বার্তায় পদ্মা সেতু নির্মাণে ও বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় প্রত্যয়ের চিত্র ফুটে উঠবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো সেরা শিক্ষার্থীদের লেখা শেখ রাসেল দেয়ালিকায় উপস্থাপন করবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান প্রত্যেক শ্রেণি থেকে বাছাইকৃত সেরা লেখা (প্রতি শ্রেণির একটি লেখা) 28septemberdshe@gmail.com ইমেইলে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পাঠাবেন।

সব জেলার জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, সরকারি/বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষ এবং সরকারি/বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে এই বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী   জন্মদিন   মাউশি  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন