ইনসাইড গ্রাউন্ড

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে লেবাননের সঙ্গে বাংলাদেশের ড্র

প্রকাশ: ০৮:১৩ পিএম, ২১ নভেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

অনেক গোল করার সুযোগ পেয়েও গোল মিস করেছে বাংলাদেশ। নাহলে জয়টা বাংলাদেশেরই হতে পারতো। দ্বিতীয়ার্ধ্বে ১ গোলে পিছিয়ে পড়েও মোরসালিনের ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া দারুণ এক শর্টে গোল পায় বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে সমতার সাথে ১ পয়েন্ট নিয়ে রেফারির শেষ বাঁশি বাজে।

কিংস অ্যারেনায় শুরুতে বাংলাদেশের ওপর চাপ ফেলার চেষ্টা করে লেবানন। কিন্তু সময় বাড়ার সঙ্গে আক্রমণে যায় বাংলাদেশও। কিন্তু কোনও দলই পারছিল না প্রতিরোধ ভাঙ্গতে। তবে দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশের রক্ষণের ভুলে এগিয়ে যায় লেবানন।

 

তবে প্রতিপক্ষের আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। কয়েক মিনিটের ব্যবধানে শেখ মোরসালিনের চমৎকার গোলে ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এই ম্যাচ শেষ হয়েছে ১-১ সমতায়।

অস্ট্রেলিয়ার কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার পর লেবানন ম্যাচ থেকে ইতিবাচক কিছুর আশায় ছিল বাংলাদেশ।

 

৭৯ ধাপ এগিয়ে থাকা দলের বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্য ঠিক করলেও সুযোগ নষ্টের কারণে ১ পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল হাভিয়ের কাবরেরার দলকে। রেংকিংয়ে ফারাক অনেক থাকলেও মাঠের লড়াইয়ে নিশ্চিতভাবেই এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ। ম্যাচের দুই অর্ধেই আক্রমণ পালটা আক্রমণে চলেছে। ভরা গ্যালারিতে সুন্দর ফুটবলের পসরা সাজিয়েছিল দুই দল।

ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে লেবানিজদের দূরপাল্লার কয়েক শট বাংলাদেশের রক্ষণ কাঁপাল। পাল্টা জবাব এল স্বাগতিকদের কাছ থেকেও। বল নিজেদের পায়ে রেখে জামালদের লেবাননকে চাপে রাখার চেষ্টা।

 

গোলমুখে প্রথম আক্রমণ ২৪ মিনিটে। অধিনায়ক জামালের কর্নার থেকে বিশ্বনাথ ঘোষের হেড গ্লাভসে নেন গোলরক্ষক মোস্তফা মাতার।

 

পরের মিনিটে আরেকটি গোছানো আক্রমণ স্বাগতিকদের। এবার বাঁ প্রান্ত দিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন মোরসালিন, শট নেওয়ার সুযোগ না পেয়ে সোহেল রানার (জুনিয়র) উদ্দেশে বল বাড়ালেও লেবাননের ডিফেন্ডার মোহাম্মদ এল হায়েক এসে ক্লিয়ার করে দেয়। ৩৩ মিনিটে আবারও বাংলাদেশের আক্রমণ। এবার ডান প্রান্ত থেকে ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের নিচু ক্রস, গোল মুখে দাঁড়িয়ে মোরসালিন। ফাহিমের শট তার পায়ে যাওয়ার আগেই সেই শট ফেরান কাসেম আল জেইন।

 

প্রথমার্ধের শেষ আরেকটি গোছাল আক্রমণে যায় বাংলাদেশ। ডান দিক থেকে ফয়সাল আহমেদে ক্রস জটলার মধ্য থেকে গোমুখে শট নিয়েছিলেন মোরসালিন কিন্তু তা চলে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে।

চোটের কারণে দ্বিতীয়ার্ধে আর মাঠে নামতে পারেননি গোলরক্ষক মিতুল মারমা। তার পরিবর্তে নামেন মেহেদি হাসান শ্রাবণ। তরুণ এই গোলরক্ষকের জাতীয় দলের জার্সিতে এটাই প্রথম ম্যাচ। মধ্যবিরতি থেকে ফিরেই বাংলাদেশের ওপর চাপ ফেলে লেবানন। ডান দিক দিয়ে বক্সে ঢুকে পড়া করিম দারউইচের শট অবশ্য বাইরের জাল কাঁপায়।

 

এরপর কয়েকবার লেবাননের রক্ষণে হানা দেয় বাংলাদেশ। সুযোগ আসে মোরসালিনের সামনে। কিন্তু বিশ্বনাথের পাস কিছুটা গতির হওয়ায় বল পায়ে রাখতে পারেননি। একটু পরেই জামাল ভুঁইয়াকে তুলে রবিউল হাসানকে নামান বাংলাদেশ কোচ হাভিয়ের কাবরেরা। গোলের জন্য চেষ্টা অব্যাহত ছিল লেবাননের। তাতে ৬৭ মিনিটে গোলও পেয়ে যায় সফরকারীরা। বদলী হিসেবে মাঠে এসে চার মিনিটের মধ্যে লেবাননকে এগিয়ে নেন মাজেদ ওসমান। ডান দিক দিয়ে আক্রমনে ওঠা লেবাননের দু'টি প্রচেষ্টা ডিফেন্সে বাধা পেলে শ্রাবন এগিয়ে এসে বল আয়ত্বে নিতে গিয়েছিলেন। বিশ্বনাথ ক্লিয়ারিং হেড করতে যান, তাই বলটা আয়ত্বে নিতে পারেননি। উল্টো তার বুকে লেগে বল চলে যায় ফাঁকায় দাঁড়ানো মাজেদের কাছে। ঠান্ডা মাথায় ফাঁকা পোস্টে বল জমা করেন এই বদলি নামা এই স্ট্রাইকার।

 

সমতা ফেরাতে অবশ্য বেশি সময় নেয়নি বাংলাদেশ। লাল-সবুজের দলের ত্রাতা হয়ে আসেন সেই শেখ মোরসালিন। লেবাননের মিডফিল্ডার জিহাদ আইয়ুবের ব্যাক পাস পেয়ে যান মোরসালিন। সামনে জায়গা পেয়ে খানিকটা এগিয়ে গিয়ে তার নেওয়ার গতির শট জড়িয়ে যায় জালে। এই তরুণের সুন্দর গোলের পর উল্লাসে ফেটে পড়ে কিংস অ্যারেনা। শেষ দিকে মোরসালিন আরেকটি সুযোগ নষ্ট না করলে আজ জিততেও পারত বাংলাদেশ। মোহাম্মদ সোহেল রানার বাড়ানো বল দুরের পোস্টে ফাঁকায় পেয়েছিলেন তিনি তবে তা জালে পাঠাতে পারেননি। তাতে ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় বাংলাদেশ। কিংস অ্যারেনায় এখন পর্যন্ত অপরাজিত বাংলাদেশ। চার ম্যাচে জিতেছে একটি, ড্র তিনটিতে।


বাংলাদেশ-লেবানন   বসুন্ধরা কিংস   বিশ্বকাপ বাছাই   ফুটবল   ফিফা  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

ইউক্রেনকে উড়িয়ে চমক দেখাল রোমানিয়া

প্রকাশ: ১০:১৯ পিএম, ১৭ জুন, ২০২৪


Thumbnail

ইউরো কাপে অঘটন। ফিফা ক্রমতালিকায় থাকা ২২তম স্থানে থাকা ইউক্রেনকে হারিয়ে চমক দিল ৪৬তম স্থানে থাকা রোমানিয়া। খেলার ফল ৩-০। রোমানিয়ার তরফে গোল করেছেন নিকোলাস স্টানসিউ, রাজভান মারিন এবং ডেনিস ড্রাগুস। তার মধ্যে স্টানসিউয়ের গোলটি চলতি ইউরোর সেরা গোলের তকমা পেয়েছে।

সোমবার মিউনিখের আলিয়াঞ্জ অ্যারিনায় ম্যাচের ৮ মিনিটের মাথায় প্রথম সুযোগ পায় রোমানিয়া; কিন্তু কোম্যানের শট তালুবন্দি করেন ইউক্রেনের রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষক লুনিন। ম্যাচের প্রথম ২৫ মিনিটে ৭১ শতাংশ বল নিজেদের দখলে নিয়ে রাখলেও কোন আক্রমণ তেমন করতে পারেনি ইউক্রেন।

এর মধ্যে ইউক্রেন গোলরক্ষক বড়সড় ভুল করে বসেন। তার ভুল পাসে ডি-বক্সের বাইরে বল পেয়ে যায় ডেনিস ম্যান। ম্যানের পাস থেকে অসাধারণ এক গোল করেন স্টানসিও। এখন পর্যন্ত এবারের ইউরোর সেরা গোলের তকমা ইতোমধ্যে পেয়ে গেছে এটি।

৩৭ মিনিটে মুদ্রিক দূরপাল্লার ভলি শট নিলে বল লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় রোমানিয়া।

বিরতি থেকে ফিরে ৫ মিনিটের ব্যবধানে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় ইউক্রেনের ম্যাচ জয়ের স্বপ্ন। ৫৩ মিনিটে রাজভান মারিনের ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেয়া শট খুঁজে পায় ইউক্রেনের জালের ঠিকানা।

২-০ এগিয়ে থাকা রোমানিয়া ৫৭ মিনিটে ইউক্রেনকে পুরো ম্যাচ থেকেই ছিটকে দেয়। আবারো সেই ডেনিস ম্যানের ক্রস থেকে ডেনিস দ্রাগাস ট্যাপ ইনে গোল করলে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় রোমানিয়া।

৬৫ মিনিটে ইউক্রেনের ইয়োরমোলেঙ্কোর শট বাইরে দিয়ে চলে গেলে গোল বঞ্চিত হয় তারা। পুরো ম্যাচে মাত্র ৩৫ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেও ইউক্রেনের সাথে জয় পেল রোমানিয়া।

ইউক্রেন   রোমানিয়া   ইউরো কাপ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

শক্তিশালী ফ্রান্সের সামনে আত্মপ্রত্যয়ী অস্ট্রিয়া

প্রকাশ: ০৯:৩৬ পিএম, ১৭ জুন, ২০২৪


Thumbnail

দুইবারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের ইউরো মিশন শুরু হচ্ছে আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় তারা অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে খেলবে। 


ফ্রান্সের বিপক্ষে এর আগে ১০ ম্যাচ খেলেছিল অস্ট্রিয়া। কিন্তু তাদের জয় মাত্র একটিতে। কিন্তু গেল ১৯ মাসে অস্ট্রিয়া ১৬টি ম্যাচ খেলেও হেরেছে মাত্র একটিতে। এ যাত্রায় তারা ইতালি এবং জার্মানির মতো দলকেও হারিয়েছে। তাইতো আত্মপ্রত্যয়ী অস্ট্রিয়া এবার ফ্রান্সকেও হারিয়ে দেওয়ার সাহস করছে।

জার্মান কোচ রালফ রাংনিক বলেন, ‘এই ম্যাচটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সাহসী হয়ে খেলবো। আমাদের নিজেদের শক্তিমত্তা নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আগামীকালকের (আজকের) ম্যাচে আমরা ঠিক কিভাবে পারফর্ম করি। ফ্রান্স যেভাবে খেলে সেভাবে নয়, তারা হয় আমাদের চেয়ে কিছুটা ভালো না হয় কিছুটা খারাপ খেলবে। এই বিষয়টাই আমাদের দেখতে হবে।’

‘এই দিনের জন্য আমরা গেল দুই বছর ধরে প্রস্তুত হয়েছি। অবশেষে সেই প্রস্তুতি কাজে লাগানোর সুযোগ এলো। আমরা এই ম্যাচ নিয়ে খুবই উত্তেজিত। আসলে আনন্দটা সবকিছুর উর্ধ্বে।’ যোগ করেন তিনি।

তরুণদের ঘষেমেজে অদম্য শক্তির একটি দলে পরিণত করেছেন রাংনিক। যারা হাইপ্রেস ফুটবল খেলে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগকে ব্যতিব্যস্ত করে ফেলে। এভাবে খেলেই তারা বাছাইপর্বের আট ম্যাচের ছয়টিতে জিতেছিল।

অস্ট্রিয়ার সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের নাম কিলিয়ান এমবাপ্পে। যিনি ইউরোর এবারের আসরে ভালো করতে তেঁতে আছেন। কারণ, ২০২০ ইউরোতে তিনি কোনো গোল পাননি। তার ওপর সুইজারল্যান্ডের কাছে হেরে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছিল তারা। এবার শিরোপা জয়ের অন্যতম দাবিদার ফরাসিরা।

জার্মানিতে আসার আগে তারা দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে এসেছে। প্রথমটায় লুক্সেমবার্গকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে। পরেরটায় কানাডার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে। ইউরোতে এবার নিজেদের সামর্থ দেখানোর পালা ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ জয়ীদের।

ফ্রান্স   অস্ট্রিয়া   ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

নিয়মরক্ষার ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে নিউজিল্যান্ড

প্রকাশ: ০৯:১৪ পিএম, ১৭ জুন, ২০২৪


Thumbnail

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসর থেকে নিউ জিল্যান্ডের বিদায় আগেই নিশ্চিত হয়েছে। আফগানিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হারার পর তৃতীয় ম্যাচে তারা বড় জয় পায় উগান্ডার বিপক্ষে। 

আজ সোমবার (১৭ জুন) রাতে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে তারা মুখোমুখি হচ্ছে পাপুয়া নিউগিনির। বিশ্বকাপকে বিদায় ঘোষণা করা ট্রেন্ট বোল্টের জন্য এই ম্যাচটি জিতে তারা বিশ্বকাপ শেষ করতে চায়। নিয়মরক্ষার এই ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

অন্যদিকে জয় দিয়ে শেষটা রাঙাতে চায় নিউগিনিও। ত্রিনিদাদের ব্রায়ন লারা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় ম্যাচটি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে ম্যাচ শুরু হতে প্রায় এক ঘন্টা বিলম্ব হয়।

নিউজিল্যান্ড   টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ   পাপুয়া নিউগিনি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

এক ম্যাচেই তানজিম সাকিবের অনন্য রেকর্ড

প্রকাশ: ০৮:০৫ পিএম, ১৭ জুন, ২০২৪


Thumbnail

ব্যাটিং ব্যর্থতার পরও বলকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে চলমান টি-২০ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ও মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হিমালয় কন্যা নেপালকে ২১ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আর এই জয়ের মধ্য দিয়ে আসরের সবশেষ দল হিসেবে সুপার এইটের টিকিট কেটেছে টাইগাররা।

নেপালের বিপক্ষে টাইগারদের এই জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছেন পেসার তানজিম হাসান সাকিব। সেন্ট ভিনসেন্টে টানা ৪ ওভারের স্পেলে মাত্র ৭ রানে ৪ উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। যেখানে দুই ওভারই করেছেন মেইডেন। বিশ্বমঞ্চে এমন আগুন ঝরানোর দিনে একগাদা রেকর্ডও গড়েছেন ২১ বছর বয়সী এই তরুণ পেসার।

টি-২০ বিশ্বকাপে পুরো ৪ ওভার করা বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে এটিই সবচেয়ে কম রানের রেকর্ড। সাকিবের ২১ বল থেকে কোনো রান নিতে পারেননি নেপালের ব্যাটাররা। টি-২০ বিশ্বকাপে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ডট বলের রেকর্ড এটি।

তানজিম সাকিবের করা দুইটি মেইডেন ওভারও বিশ্বকাপের রেকর্ড। বাংলাদেশের প্রথম ও সব মিলিয়ে ষষ্ঠ বোলার হিসেবে টি-২০ বিশ্ব আসরে এক ম্যাচে দুটি মেইডেন নিলেন তানজিম সাকিব।

সব মিলিয়ে আন্তর্জাতিক টি-২০তে এক ম্যাচে দুই মেইডেন করা তৃতীয় বাংলাদেশি তানজিম সাকিব। আগের দুজন নাজমুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ।

গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ৪ ওভারে এক মেইডেনসহ ৭ রানে ১ উইকেট নিয়েছিলেন রিশাদ হোসেন।


বাংলাদেশ   টি-২০ সিরিজ   টি-২০ বিশ্বকাপ   ক্রিকেট   বিসিবি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

দেশসরা অলরাউন্ডারকে হৃদয়স্পর্শী চিঠি লিখলেন মেয়ে আলাইনা

প্রকাশ: ০৭:৪৮ পিএম, ১৭ জুন, ২০২৪


Thumbnail

বাংলার ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় নাম সাকিব আল হাসান। অবধারিতভাবেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বকালের সেরাও বটে। নিজের সম্ভাব্য সব উজাড় করে দিয়েছেন টাইগারদের জার্সিতে। দেড় যুগের লম্বা ক্যারিয়ারে টিম টাগার্সদের যা কিছু অর্জন তার অনেকটা জুড়েই একটি নাম, সাকিব আল হাসান।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছেন না বাংলাদেশের এই পোস্টার বয়। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শুরু থেকেই ফর্মে নেই। তিনটি ম্যাচ খেলে ছিলেন উইকেট শূন্য। ব্যাটে রানও আসছিল না ঠিক মতো। তবে ডাচদের সঙ্গে অবশ্য ভালো খেলেছেন, করেছেন ফিফটি, বাংলাদেশও ম্যাচ জিতেছে। আরি পরের ম্যাচে বাংলাদেশ হারতে হারতে জয় তুলে আনতে পেরেছে টাইগাররা। যে জয়ে অবদান আছে সাকিবের। রানের পাশাপাশি পেয়েছেন উইকেট।

সোমবার সেন্ট ভিনসেন্টে হওয়া গ্রুপ ‘ডি’ এ নিজেদের শেষ ম্যাচে নেপালকে হারিয়ে সুপার এইট নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। সুপার এইট নিশ্চিতের এই ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৭ রান করেছেন সাকিব। আর উইকেট পেয়েছেন দুটি।

আর বাংলাদেশে ঈদের দিনে এমন জয়ে সবাই আনন্দিত। এর মধ্যে রয়েছেন সাকিব পত্নী উম্মে আল হাসান শিশিরও। বাংলাদেশের জয়ের পর ফেসবুকে সবাইকে ঈদ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। সবার সঙ্গে শেয়ার করেছেন সাকিব-শিশির দম্পতির বড় সন্তান আলাইনার বাবা দিবস উপলক্ষে লেখা চিঠি। যে চিঠি মন জয় করেছে সবার।

সাকিবের বড় মেয়ে আলাইনা বাবা দিবস উপলক্ষে সাকিবকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠিতে লিখেছেন, ‘আমি আশা করি তুমি তোমার পরবর্তী ম্যাচ জিতবে। শুভ কামনা, যদিও তুমি মাঝেমধ্যে হেরে যাও কিন্তু আমার মনে হয় তুমি পরবর্তী ম্যাচ জিতবে।’

সাকিব কন্যার কথা অনুযায়ী বাংলাদেশ ম্যাচ ঠিকই জিতে নিয়েছে। আশা করা যায় সুপার এইটের পরবর্তী ম্যাচও বাংলাদেশ জিতবে।


সাকিব আল হাসান   টি-২০ বিশ্বকাপ   বাংলাদেশ  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন