ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ছাত্র রাজনীতি কোন দেশে কেমন?

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ মে ২০১৯ মঙ্গলবার, ০৩:০৩ পিএম
ছাত্র রাজনীতি কোন দেশে কেমন?

সাম্প্রতিক সময়ে ছাত্র রাজনীতি নিয়ে সমালোচনায় মুখর হচ্ছেন অনেকেই। এর কোনো দরকার আছে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। কিন্তু একটু পেছনে ফিরে তাকালেই দেখা যাবে, বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতির রয়েছে একটি গৌরবময় ইতিহাস। এদেশের যত অর্জন কিংবা সাফল্য তার সঙ্গে জড়িয়ে আছে ছাত্র রাজনীতি। শুধু যে বাংলাদেশেই এমনটা হয়েছে তা নয়, গোটা ভারতীয় উপমহাদেশেই ইতিহাসের প্রতিটি পর্যায়ে ছাত্র রাজনীতির অবদান রয়েছে। যখনই জনগণের ওপর কোনো অন্যায় সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে, তখন ছাত্ররাই সরব হয়েছে সবার আগে। ভারতীয় উপমহাদেশ ছাড়াও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে রাজনৈতিক দলগুলোর রয়েছে ছাত্র শাখা।

ইউরোপের দেশ ডেনমার্কে প্রধান দুইটি দলের হয়ে রাজনীতিতে অংশ নেয় ছাত্ররা। একটি অংশ হলো কনজারভেটিভ স্টুডেন্টস (ডেনমার্ক)। আর অন্যটি লিবারেল স্টুডেন্টস অব ডেনমার্ক। এই দুটি সংগঠন কাউন্সিলের মাধ্যমে তাদের নেতা নির্বাচন করে। বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমেও অংশ নেয় ছাত্রনেতারা।

জার্মানিতেও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে ছাত্র রাজনীতি হয়। অ্যাসোসিয়েশন অব ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক স্টুডেন্টস ক্ষমতাসীন ক্রিশ্চিয়ান ডেভলপমেন্ট ইউনিয়িনের পক্ষে কথা বলে। অন্যদিকে ফেডারেল অ্যাসোসিয়েশন অব লিবারেল স্টুডেন্টস গ্রুপও বিভিন্ন রাজনৈতিক ইস্যুতে সোচ্চার হয়। সংগঠনের আদর্শ অনুযায়ী তারা বিভিন্ন কর্মসূচীতেও অংশ নেয়।

ইউরোপের আরেক দেশ অস্ট্রিয়াতেও রয়েছে ছাত্র রাজনীতি। দেশটির প্রধান একটি ছাত্র সংগঠন হলো সোশ্যালিস্ট স্টুডেন্টস অব অস্ট্রিয়া। দেশটির সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ে এই রাজনৈতিক সংগঠনটির শাখা রয়েছে। প্রতি দুই বছর পরপর সেখানে ভোটের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয়। অস্ট্রিয়ার এই ছাত্র নেতারা দেশজুড়ে শান্তির পক্ষে এবং বিশ্বায়নের বিপক্ষে প্রচারনা চালায়।

ইংল্যান্ডেও বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন রয়েছে। অক্সফোর্ড, কেমব্রিজের মতো বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নিয়মিত ভোটের মাধ্যমে ছাত্রনেতা নির্বাচনও করা হয়। তবে সেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে এর কোনো সম্পৃক্ততা থাকে না।

যুক্তরাষ্ট্র এবং অস্ট্রেলিয়াতেও ছাত্রদের স্বার্থ নিয়ে কাজ করে অনেক সংগঠন। দেশের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে তারা সরবও হয়। তবে সেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর কোনো ধরনের প্রভাব থাকে না।

দক্ষিণ এশিয়ায় অবশ্য এই চিত্রটা একেবারেই উল্টো। শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, ভারতের মতো দেশগুলোতে প্রধান সব রাজনৈতিক দলেরই ছাত্র শাখা আছে। প্রধান দলের মাধ্যমেই ছাত্র শাখাগুলো পরিচালিত হয়। ছাত্রনেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও এই দলগুলো প্রভাব বিস্তার করে।

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি