ইনসাইড বাংলাদেশ

লক্ষ্মীপুরে জাতীয় পাঠ্যক্রম প্রজন্মের শীর্ষক আলোচনা সভা

প্রকাশ: ০৭:৫৮ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪


Thumbnail

লক্ষ্মীপুরে জাতীয় পাঠ্যক্রম প্রজন্মের প্রকৃত শিক্ষা ভাবনা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে শহরের ওয়েলকাম কমিউনিটি সেন্টারে এ সভার আয়োজন করা হয়। জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের লক্ষ্মীপুর জেলা শাখা সভাপতি আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, সংগঠনটির কেন্দ্রীয় শরীয়াহ বিষয়ক সম্পাদক মুফতি লুৎফুর রহমান ফরায়েজি।

সংগঠনটির জেলা সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমদের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, হাজিরহাট কামিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ জায়েদ হোসাইন ফারুকী, লক্ষ্মীপুর দারুল উলূম কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ ইসমাঈল হোসেন, বটতলী মাদরাসার মুহাদ্দিস মুফতি ইউনুস আহমদ, রামগঞ্জ কাশিমনগর মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মহি উদ্দিন ও বেফাক বোর্ড লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান সিরাজী। 

এসময় অতিথিরা সরকারের কাছে সর্বাধুনিক, মননশীল ও জীবনমুখী পাঠ্যক্রমের মাধ্যমে সিলেবাস প্রণয়নের দাবি করেন।


আলোচনা সভা  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসের কর্মসূচি ঘোষণা

প্রকাশ: ১২:৪৬ পিএম, ২৮ মে, ২০২৪


Thumbnail

আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস (আগামী বুধবার,২৯ মে) উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। এদিন শান্তিরক্ষীদের স্মরণে সকালে 'শান্তিরক্ষী দৌড়-২০২৪' এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসের কর্মসূচি শুরু হবে। 

এরপর, বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শহীদ শান্তিরক্ষীদের নিকটাত্মীয় ও আহত শান্তিরক্ষীদের জন্য সংবর্ধনা এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের ওপর বিশেষ উপস্থাপনার আয়োজন করা হবে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশের কার্যক্রমের ওপর নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ অন্যান্য বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ইতোমধ্যে প্রচারের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শহীদ ও আহত শান্তিরক্ষীদের সম্মানে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যগণ, বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত বা হাইকমিশনারগণ, বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী, তিন বাহিনী প্রধানগণ, সংসদ সদস্যরা, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও), পুলিশের মহাপরিদর্শক, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এবং গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থাকবেন বলেও জানা গেছে।


জাতিসংঘ   শান্তিরক্ষী দিবস   কর্মসূচি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটে স্বাভাবিক ফেরি ও লঞ্চ চলাচল

প্রকাশ: ১২:৩৭ পিএম, ২৮ মে, ২০২৪


Thumbnail

দীর্ঘ ৩৬ ঘণ্টা পর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ও ৪৮ ঘণ্টা পর লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাব কেটে গেলে সকাল ৯ টা থেকে ওই নৌরুটে ফেরি ও সকাল ১০ টা থেকে লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে রোববার (২৬ মে) বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পদ্মা নদী উত্তাল হতে শুরু করলে নৌ-দুর্ঘটনা এড়াতে সকাল ৯ টা থেকে সব ধরনের লঞ্চ এবং রাত ৯ টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মোঃ সালাহউদ্দিন বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে পদ্মা নদী উত্তাল ছিল। যার কারণে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল। নদী স্বাভাবিক হলে প্রায় ৩৬ ঘণ্টা পর আজ সকাল ৯টা থেকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। বর্তমানে ১০টি ফেরি চলাচল করছে।

দৌলতদিয়া লঞ্চ ঘাট ম্যানেজার নুরুল আনোয়ার মিলন বলেন, ‘দুর্ঘটনা এড়াতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ২৬ মে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে আবারও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।’


ফেরী চলাচল   স্বাভাবিক   লঞ্চ   দৌলদিয়া-পাটুরিয়া  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঘূর্ণিঝড় রেমাল: রাজধানীতে উর্ধ্বমুখী কাঁচা বাজার

প্রকাশ: ১২:০৩ পিএম, ২৮ মে, ২০২৪


Thumbnail

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে সোমবার (২৯ মে) দিনব্যাপী অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে রাজধানী জুড়ে। আবহাওয়া অফিসের তথ্য মতে ঢাকায় ২৪ ঘণ্ঠায় বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে ১৫৭ মিলিমিটার। টানা বৃষ্টির এ প্রভাব দেখা গিয়েছে রাজধানীর কাঁচা বজারে। সরবরাহ কম থাকায় প্রায় সব ধরনের সবজির দামই উর্ধ্বমূখী। রাতারাতি দাম বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ ক্রেতারা পড়েছেন অস্বস্তিতে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে সবজির এমন বাড়তি দাম লক্ষ্য করা গেছে। তবে, ব্যবসায়ীদের দাবি ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে সব ধরনের সবজির দাম বেড়েছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, রাজধানীর কাঁচা বাজারে শসা প্রতি কেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা, বেগুন প্রতি কেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা, ঢেঁড়স প্রতি কেজি ৬০ টাকা, পটল বিক্রি ৫০ থেকে ৬০, ঝিঙা প্রতি কেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা, কাঁকরোল ১০০ টাকা, কচুর লতি প্রতি কেজি ৬০ টাকা, করলা প্রতি কেজি ৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া প্রতি কেজি ৪০ টাকা টাকা, টমেটো প্রতি কেজি ৬০ টাকা, গাজর প্রতি কেজি ৮০ টাকা, ধুন্দল প্রতি কেজি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, বরবটি প্রতি কেজি ৬০ টাকা এবং কাঁচা মরিচ মানভেদে প্রতি কেজি ২০০ থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ব্যবসায়ীদের দাবি, আজ সবজির পাইকারি বাজার কাওরান বাজারেই পাইকারি দামি বেশি। এর কারণ ঘূর্ণিঝড়ের কারণে গতকাল সারা দিন বৃষ্টি হয়েছে, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কৃষকরা ফসল তুলতে পারেনি। সে কারণে আজকে ঢাকায় ফসলের সরবরাহ একেবারেই কম।

তবে, আজ যেহেতু বৃষ্টি নেই, হয়তোবা আগামীকাল থেকে রাজধানীতে সবজি সরবরাহ ঠিক হয়ে যাবে। সে কারণে কালকে থেকে সবজির দাম কিছুটা কমে আসবে বলে জানায় তারা। 


কাঁচা বাজার   রাজধানী   রেমাল   দাম  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসে যোগ দেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ১১:১৩ এএম, ২৮ মে, ২০২৪


Thumbnail

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। পাশাপাশি দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশের স্থায়ী দূতাবাস আয়োজিত অস্ট্রিয়ার সঙ্গে যৌথ অনুষ্ঠানেও যোগ দেবেন তিনি।

তিনদিনের নিউইয়র্ক সফরে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস, শান্তিরক্ষা কার্যক্রম বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল, মিয়ানমারে জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত, জাতিসংঘের ৭৮তম সাধারণ পরিষদের প্রেসিডেন্টের স‌ঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পাশাপাশি নিউইয়র্কে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা-ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রদূতদের উদ্দেশে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে বক্তৃতা দেবেন তিনি।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মোহাম্মদ আবদুল মুহিত ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা অনুবিভাগের মহাপরিচালক খন্দকার মাসুদুল আলম প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে এসব বৈঠকে থাকবেন।


জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস   পররাষ্ট্রমন্ত্রী   ড. হাছান মাহমুদ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঘূর্ণিঝড় রেমাল: তছনছ সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য

প্রকাশ: ১০:০৬ এএম, ২৮ মে, ২০২৪


Thumbnail

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে তছনছ হয়ে গেছে সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য। টানা  বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে পুরো সুন্দরবন। আর এর ফলে মৃত্যু হয়েছে অনেক বন্যপ্রাণীর।

রোববার (২৬ মে) থেকে সোমবার (২৭ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত টানা বর্ষণ ও ঝড়ে উপড়ে পড়েছে বহু গাছপালা। একটানা এই বৃষ্টি ও ঝড়ে প্রাণ গেছে বন্য প্রাণীদের। এছাড়াও বনবিভাগের বেশ কয়েকটি অফিসসহ টহল বোট ভেঙ্গে গেছে।

সোমবার (২৭ মে) বিকেলে বনের খালের চরে বেশ কয়েকটি মৃত হরিণ পাওয়া গেছে। টানা বৃষ্টিতে সুন্দরবনে প্রায় ৬ থেকে ৮ ফুট বৃদ্ধি পেয়েছে জোয়ারের পানি। এতে বনের ভেতরে মিঠা পানির পুকুরগুলো তলিয়ে গেছে লোনা পানিতে। পুকুরে লোনা পানি ঢুকে যাওয়ায় বনের প্রাণীদের সুপেয় পানির সংকট দেখা দিয়েছে।

এদিকে ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের একমাত্র করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন পর্যটন কেন্দ্রের নানা অবকাঠামো।

করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন ও পর্যটন কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তা হাওলাদার আজাদ কবির জানান, 'ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে পর্যটক চলাচলে তৈরি এখানকার কাঠের সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভেঙে তছনছ হয়েছে অসংখ্য গাছপালা। তবে পুরো সুন্দরবনের গাছপালাসহ কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা নিশ্চিত করে এখনই বলা সম্ভব না। 

পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কাজী মোহম্মদ নূরুল করিম বলেন, ‘আবহাওয়া স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনের গাছপালাসহ বন্যপ্রাণীর কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা নিশ্চিত করে জানানো সম্ভব নয়; তবে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে -- এটা নিশ্চিত।’


ঘূর্ণিঝড়   সুন্দরবন   জীববৈচিত্র্য  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন