ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫২ লাখ ২৩ হাজার ছাড়াল

প্রকাশ: ১০:১০ এএম, ৩০ নভেম্বর, ২০২১


Thumbnail বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫২ লাখ ২৩ হাজার ছাড়াল

বিশ্বে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৫ হাজার ২৬৬ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫২ লাখ ২৩ হাজার ৯৮৪ জনে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৩১ হাজার ১৮৯ জন। এ নিয়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ কোটি ২৩ লাখ ৩১ হাজার ৫৭৯ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ৭২৫ জন এবং মারা গেছেন ৩১৭ জন। দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ২০৯ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৮৬০ জন।

ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১১৪ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৮৪৩ জন। করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়।



মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

বিদেশিদের জন্য দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

প্রকাশ: ১০:২৪ পিএম, ২৯ Jun, ২০২২


Thumbnail বিদেশিদের জন্য দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

বিদেশি কর্মীদের বসবাসের জন্য দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর নির্বাচিত হয়েছে ঢাকা। বুধবার (২৯ জুন) যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান মার্সা বিশ্বের ৪০০টিরও বেশি শহরের দুই শতাধিক পণ্য ও সেবার মূল্যের ভিত্তিতে চালানো নতুন এক জরিপে সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের তালিকা  প্রকাশ করেছে। 

সূচকে চলতি বছর ঢাকার অবস্থান ৫৮ ধাপ অবনমন ঘটলেও মার্সারের ‘কস্ট অভ লিভিং সার্ভে-২০২২’ শীর্ষক এই জরিপে প্রবাসীদের জন্য এখনও বিশ্বের ব্যয়বহুল ১০০ শহরের মধ্যে আছে ঢাকা।

এছাড়াও আন্তর্জাতিক কর্মীদের বসবাসের জন্য বিশ্বের শীর্ষ ১০টি সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের চারটির অবস্থানই এশিয়ায়।

২০২২ সালে প্রবাসী কর্মীদের জন্য বিশ্বের ৯৮তম ব্যয়বহুল শহর নির্বাচিত হয়েছে ঢাকা। যদিও এই জরিপে আগের বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে ঢাকার অবস্থান ছিল ৪০তম। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০২০ সালে ঢাকা ছিল ২০তম অবস্থানে। ফলে শীর্ষ ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় থাকলেও ঢাকা ক্রমান্বয়ে বিদেশীদের জন্য কম ব্যয়বহুল হচ্ছে।

বিদেশী কর্মীদের বসবাসের জন্য ঢাকা এখনও বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত কিছু শহরের তুলনায় ব্যয়বহুল রয়েছে। মার্সারের এই তালিকায় মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর ১৮১তম, কাতারের দোহা ১৩৩তম, সৌদি আরবের জেদ্দা ১১১তম, কানাডার ভ্যানকুভার ১০৮তম, থাইল্যান্ডের ব্যাংকক ১০৬তম এবং অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা রয়েছে ১০৪তম অবস্থানে।

এ বছর মার্সার বিশ্বের ৪০০টিরও বেশি শহরে জরিপ পরিচালনা করে ২২৭টি শহরের সূচক তৈরি করেছে। আবাসন, পরিবহন, খাদ্য, পোশাক, গৃহস্থলি পণ্য-সামগ্রী এবং বিনোদনসহ প্রত্যেকটি শহরের দুই শতাধিক পণ্য ও পরিষেবার তুলনামূলক খরচের ভিত্তিতে এই সূচক তৈরি করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরকে সমস্ত তুলনার জন্য ভিত্তি শহর হিসেবে ধরা হয়েছিল। আর প্রত্যেকটি শহরে প্রবাসীদের জীবন-যাপনের ব্যয় মার্কিন ডলারের বিপরীতে তুলনা করা হয়। চলতি বছরের মার্চে এসব শহরের খরচের তুলনা করে জরিপটি পরিচালনা করেছে মার্সার।

সূচকে দক্ষিণ এশিয়ার ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় ভারতের মুম্বাই ১২৭তম, নয়াদিল্লি ১৫৫তম, চেন্নাই ১৭৭তম এবং বেঙ্গালুরু ১৭৮তম অবস্থানে রয়েছে। সেই হিসেবে প্রবাসী কর্মীদের জন্য এসব শহর ঢাকার (৯৮তম) তুলনায় কম ব্যয়বহুল।

এমনকি শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতেও প্রবাসীদের ব্যয় ঢাকার তুলনায় অনেক কম। সূচকে কলম্বোর অবস্থান ১৮৩তম। এরপরই ভারতের হায়দরাবাদ ১৯২তম, পুনে ২০১তম এবং কলকাতা ২০৩তম অবস্থানে রয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় প্রবাসীদের জীবনযাপনের জন্য সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল শহর নির্বাচিত হয়েছে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ এবং করাচি। বৈশ্বিক হিসেবে এই শহর দুটির অব্স্থান যথাক্রমে ২২৪ এবং ২২৩তম। বিশ্বের সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল শহরের হিসেবেও শহর দুটির অবস্থান চতুর্থ এবং পঞ্চম। 

এই সূচকে বিদেশি কর্মীদের জন্য সবচেয়ে সস্তা শহর নির্বাচিত হয়েছে তুরস্কের আঙ্কারা, কিরগিজস্তানের বিশকেক এবং তাজিকিস্তানের দুশানবে। অন্যদিকে, প্রবাসী কর্মীদের জন্য আবারও বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হয়েছে হংকং (১ম)। এরপরই সূচকে দ্বিতীয় স্থানে আছে জুরিখ (২য়), সুইজারল্যান্ডের তিন শহর জেনেভা (৩য়), বাসেল (৪র্থ) এবং বার্ন (৫ম)।

মার্সারের অংশীদার এবং মবিলিটি বিজনেসের বৈশ্বিক প্রধান ইভন ট্র্যাবার বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সৃষ্ট অস্থিরতা এবং ইউক্রেন সংকট বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অনিশ্চয়তাকে আরও উসকে দিয়েছে। এই অনিশ্চয়তার সঙ্গে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশের ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি সংশ্লিষ্ট। প্রবাসী কর্মীরা তাদের ক্রয় ক্ষমতা এবং আর্থ-সামাজিক স্থিতিশীলতা নিয়ে উদ্বিগ্ন।

ঢাকা   ব্যয়বহুল   মার্সা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

মালয়েশিয়ায় ঈদুল আজহা ১০ জুলাই

প্রকাশ: ০৯:১১ পিএম, ২৯ Jun, ২০২২


Thumbnail মালয়েশিয়ায় ঈদুল আজহা ১০ জুলাই

পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপনের তারিখ ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়া। চাঁদ দেখা না যাওয়ার প্রেক্ষিতে আগামী ১০ জুলাই দেশটিতে ঈদুল আজহার দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। একইসাথে ইন্দোনেশিয়া, হংকং ও ব্রুনাই এ চাঁদ দেখা না যাওয়ায় একই দিনে ঈদুল আজহার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। 

মালয়েশিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে,  ১০ জুলাই ঈদুল আজহার প্রথম দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশে জিলহজ মাসের চাঁদ দেখতে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সন্ধ্যায় সভায় বসবে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) ১৪৪৩ হিজরি সনের চাঁদ দেখা গেলে শুক্রবার (১ জুলাই) থেকে জিলহজ মাস গণনা শুরু হবে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশে আগামী ১০ জুলাই (১০ জিলহজ) ঈদুল আজহা উদযাপিত হতে পারে।

মালয়েশিয়া   ইন্দোনেশিয়া   ঈদ  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ক্যানসারের নামে ৪৪ লাখ টাকা হাতিয়ে ফুর্তিবাজি ব্রিটিশ নারীর

প্রকাশ: ০৭:৪৭ পিএম, ২৯ Jun, ২০২২


Thumbnail ক্যানসারের নামে ৪৪ লাখ টাকা হাতিয়ে ফুর্তিবাজি ব্রিটিশ নারীর

ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে অনলাইনে তহবিল সংগ্রহের ওয়েবসাইট গোফান্ডমিতে পেইজ চালু করেছিলেন ৪৪ বছর বয়সী এক ব্রিটিশ নারী। ইংল্যান্ডের কেন্টের ব্রডস্টেয়ার্সের বাসিন্দা ওই নারীর নাম নিকোল এলকাব্বাস। 

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছেন জানিয়ে অনলাইনে তহবিল সংগ্রহের ওয়েবসাইট গোফান্ডমিতে পেইজ চালু করেছিলেন ওই নারী। অনেকেই তাকে সহায়তার জন্য এগিয়ে আসেন। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের প্রায় ৭০০ জন দাতা অনলাইনে এই নারীকে দান করেন ৪৫ হাজার ইউরো। যা বাংলাদেশি প্রায় ৪৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকার বেশি।

পরে জানা যায় ওই নারী ক্যানসার আক্রান্ত নন। শুধু তাই নয়, প্রতারণার মাধ্যমে সংগৃহীত এই টাকা তিনি বিদেশ ঘুরে, জুয়া খেলে উড়িয়ে দিয়েছেন, করেছেন কেনাকাটাও।

এমনকি তিনি টটেনহ্যাম হটস্পার একটি ম্যাচ দেখতে বিলাসবহুল বক্সের টিকেট কেটেছিলেন ৩ হাজার ৫৯২ ইউরো (৩ লাখ ৫৪ হাজার ৮৭৬ টাকা) দিয়ে।

গোফান্ডমিতে ক্যানসারে আক্রান্তের মিথ্যা দাবি করে ৪৫ হাজার ৩৫০ ইউরো তুলেছিলেন তিনি। স্পেনের একটি হাসপাতালে ডিম্বাশয়ের ক্যানসারের চিকিত্সার জন্য অর্থ-সহায়তা চেয়ে পেইজটি চালু করেছিলেন।

ক্যানসার আক্রান্তের ভান করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া এই নারীর বিরুদ্ধে তদন্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। প্রায় ৭০০ জন ভূক্তভোগীর কাছ থেকে ৪০ লাখের বেশি টাকা হাতিয়ে নেন। তদন্তে এই নারীর ক্যানসার আক্রান্তের দাবিটি মিথ্যা এবং প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে অর্থ নিয়েছেন বলে প্রমাণিত হয়েছে। কোনও আর্থিক সম্পদ অথবা ভুক্তভোগীদের অর্থ ফেরত দেওয়ার সক্ষমতা না থাকায় আদালত তাকে আগামী ২৮ দিনের মধ্যে মাত্র ৫ ইউরো শোধ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

তদন্তকারীরা নিকোলের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ করার পর দেখেছেন, কেন্টের এই নারী বিভিন্ন সময়ে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজার ইউরো (বাংলাদেশি সাড়ে ৩ কোটি টাকার বেশি) হাতিয়েছেন। আর এই অর্থের বেশিরভাগই তিনি উড়িয়েছেন বিদেশ ঘুরে, জুয়া খেলে, কেনাকাটা করে।

তদন্তকারীরা কেন্টারবুরি ক্রাউন আদালতকে বলেছেন, নিকোল শুধুমাত্র ২০১৮ সালেই জুয়া খেলে উড়িয়েছেন ৬০ হাজার ইউরোর (বাংলাদেশি ৫৯ লাখ ২৭ হাজার টাকা) বেশি। আর নিজের এই অভ্যাসকে ‘অতিরিক্ত, অনিয়মিত এবং চরম’ বলে বর্ণনা করেছেন তিনি।

২০২০ সালের নভেম্বরে আদালতের শুনানিতে নিজের দোষ স্বীকার করেননি সাবেক এই হ্যারোডস ফ্যাশন পরামর্শক। সেই সময় নিকোল দাবি করেছিলেন, তিনি সত্যিই বিশ্বাস করেছিলেন যে— তার ক্যান্সার হয়েছে। গত বছর এলকাব্বাসকে দুই বছর ৯ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। বিচারক মার্ক উইকিস বলেছেন, জুয়া খেলার অভ্যাসের কারণে তিনি লোকজনের সাথে ইচ্ছেকৃত প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করতেন।

নিকোল এলকাব্বাস নামের এই নারী সবাইকে বোকা বানিয়ে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা
এমনকি কে কত অর্থ দিয়েছেন তার হালনাগাদ হিসেব-নিকেশও প্রকাশ করতেন এই নারী। নিকোলকে উদ্দেশ করে বিচারক বলেন, আপনি মিথ্যার জালে যাদের ফাঁদে ফেলেছেন, তাদের আস্থা ধরে রাখার জন্য চিকিত্সার বিষয়ে বিশদ বিবরণ এবং মাঝে মাঝে গ্রাফিক অ্যাকাউন্ট তৈরি করতেন।

তিনি বড় ধরনের একটি অস্ত্রোপচার, কেমোথেরাপির ছয়টি চক্র এবং একটি দুর্লভ ওষুধের মিথ্যা গল্প সাজিয়েছিলেন। কিন্তু তার এই অপকর্ম ধরা পড়ে তিনি যে চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়েছেন, সেই চিকিৎসকের নজরে গোফান্ডমির পেইজটি নজরে আসার পর। 

‘আমাদের সহায়তা নিকোলের দরকার- চিকিৎসা’ শিরোনামে গোফান্ডমিতে চালু করা পেইজে কয়েক মাস আগে পিত্তথলির অস্ত্রোপচারের পর তোলা একটি ছবি জুড়ে দেওয়া হয়। এতে তাকে ‘সুন্দরী কন্যা’ এবং ‘তার প্রিয় ১১ বছর বয়সী ছেলের স্নেহময়ী মা’ হিসাবে বর্ণনা করা হয়। যা মানুষের হৃদয়ে নাড়া দেয়।

শেষ পর্যন্ত গোফান্ডমির পেইজটি নজরে আসে নিকোলের সাবেক বন্ধু লন্ডনের স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞ জর্জ সাভেলাসের। আদালতকে তিনি বলেন, তিনি নিকোলের শরীরে ক্যানসারের উপসর্গ খুঁজে পাননি। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে এক অস্ত্রোপচারের পর থেকে তার উভয় ডিম্বাশয় স্বাভাবিক রয়েছে।

আর গোফান্ডমিতে যে ছবিটি জুড়ে দিয়ে বলা হয়েছে, এটি স্পেনে তোলা; সেটি আসলে ইংল্যান্ডের মার্গেট শহরের। বার্সেলোনার তেকনন ক্লিনিকে ছবিটি তুলেছিলেন বলে দাবি করা হলেও লন্ডন পুলিশ স্পেনে যোগাযোগের পর নিশ্চিত হয়, ছবিটি ওই ক্লিনিকে তোলা হয়নি।

ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা নিকোলের সম্পর্কে কখনও কিছু শোনেনি। এমনকি ওই ক্লিনিকের চিকিৎসকদের কাছে তার চিকিৎসা নেওয়ার কোনও নথিপত্রও নেই। 

ক্যানসার   তহবিল   নিকোল এলকাব্বাস   গোফান্ডমি  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ব্রিকসে পাকিস্তানের অন্তর্ভূক্তিতে ভারতের 'না'

প্রকাশ: ০৬:০৬ পিএম, ২৯ Jun, ২০২২


Thumbnail ব্রিকসে পাকিস্তানের অন্তর্ভূক্তিতে ভারতের 'না'

ব্রিকস জোটে পাকিস্তানের অন্তর্ভূক্তির বিরুদ্ধে ভারত। এই জোট আরও বড় হলেও আপত্তি নেই জোটের অন্যতম সদস্যদেশ ভারতের। কিন্তু পাকিস্তানকে জোটভূক্ত করতে চায় না দেশটি। 

ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকের আগে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে কথা বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর সেখানেই ভারতের পক্ষ থেকে পাকিস্তানকে নিয়ে আপত্তির কথা জানানো হয়েছে। 

ব্রিকসেন সদস্য রাষ্ট্রগুলো হলো- ভারত, রাশিয়া, চীন, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকা। ২৪ জুন ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলোর একটি বৈঠক হয়। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, পাকিস্তানের ব্যাপারে চীনের সমর্থন থাকলেও নয়াদিল্লির আপত্তিতেই পাক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ পর্যবেক্ষক হতে পারেননি।

ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলোর পাশাপাশি ওই বৈঠকে পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইরান, মিশর, ফিজি, আলজেরিয়া, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া এবং মালয়েশিয়া রাষ্ট্রনেতারা।

বিশ্বের গড় অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ২৫ শতাংশেরও বেশি ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত রাষ্ট্রগুলোর সম্মিলিত জিডিপি। ‘ব্রিকস নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক’ (এনডিবি)-কে আরও প্রসারিত করার বিষয়টি নিয়ে এ বারের শীর্ষ বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। তবে এর জন্য প্রয়োজন ব্রিকস কাঠামোকে ঢেলে সাজানো, যাতে উন্নয়নশীল দেশগুলোর কাছে ব্রিকস একটি উদাহরণ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ব্রিকসের সম্প্রসারণকে অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়টিও গুরুত্ব পেয়েছে মোদি, জিনপিংয়ের আলোচনায়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে কোনো অবস্থাতেই পাকিস্তানের নাম আলোচনায় আনতে চাইছে না ভারত। 

ব্রিকস   ভারত   চীন   পাকিস্তান  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

অনুমোদন ছাড়া হজ্ব পালনে জরিমানার সিদ্ধান্ত সৌদির

প্রকাশ: ০৫:২৫ পিএম, ২৯ Jun, ২০২২


Thumbnail অনুমোদন ছাড়া হজ্ব পালনে জরিমানার সিদ্ধান্ত সৌদির

যথাযথভাবে সরকারের অনুমোদন না নিয়ে হজ্ব পালনে জরিমানা গুনতে হবে হাজিদের। এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। 

বুধবার (২৯ জুন) দেশটির হজ্ব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কেউ যদি অনুমোদন ছাড়া হজ্ব করতে যায় তাকে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হবে। 

একটি টুইট বার্তায় মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সামি বিন মোহাম্মদ আল শুওয়াইরখ জোর দিয়ে জানিয়েছেন যারা হজ্ব করতে ইচ্ছুক তাদের প্রথমে সরকারি অনুমতি নিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মক্কার গ্রান্ড মসজিদে যাওয়ার পথের নিরাপত্তায় কর্মকর্তারা থাকবেন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন। তাছাড়া পবিত্র স্থানে নিয়ম লঙ্ঘনকারীদের প্রতিরোধ করা হবে বলেও জানানা তিনি।

সৌদি আরবে চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই হজ্ব অনুষ্ঠিত হবে। এবার বাংলাদেশের সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্বযাত্রীর কোটা ৪ হাজার ১১৫ জন। অন্যদিকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় কোটা ৫৫ হাজার ৮৮৫ জন।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সৌদি সরকারের বিধিনিষেধের মুখে গত দুই বছর বিদেশিরা হজ্ব পালন করতে পারেননি। এ বছর দেশি-বিদেশি মোট ১০ লাখ মানুষকে হজ্ব করার অনুমোদন দিয়েছে সৌদি সরকার।

সৌদি আরব   হজ্ব   অনুমোদন   জরিমানা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন