ইনসাইড গ্রাউন্ড

রাজনীতিতে সাকিব কি পারবেন মাশরাফির মতো জনপ্রিয় হতে?


Thumbnail

সাকিব আল হাসান সম্প্রতি আওয়ামীলীগ থেকে একাধিক মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তিনি মনোনয়ন পাবেন কি পাবেন না তা দলীয় সিদ্ধান্ত। তবে তিনি যদি পেয়েও যান এবং নির্বাচিতও হন সেক্ষেত্রেই হয়তো এই কথাগুলো আসবে। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিংয়ের দক্ষতায় হওয়া যায় অলরাউন্ডার। আর সেখানে সাকিব বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তাইতো আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাকিব তিন তিনটি আসন থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন! অলরাউন্ডার বলে কথা!

সাকিব বাস্তব জীবনেও আসলেই অলরাউন্ডার। পরিবার, সংসার, সন্তান, ক্রিকেটের মাঠ, অধিনায়কত্ব, নানারকম ব্যবসা, বিজ্ঞাপন, ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর থেকে শুরু করে শোরুম উদ্বোধন কোথায় তিনি সমানতালে নেই! এরপর ষোল কলা পূর্ণ করতে বাকি ছিল রাজনীতি। সেখানেও এলেন। অবশ্য অনেক দিন ধরেই তার রাজনীতিতে আসার ব্যাপারে দারুণ উৎসাহের কথা জানা যাচ্ছিল। 

সর্বশেষ এশিয়া কাপেও তিনি দেশে এসে ভারতে ফিরে যাবার দিন জাতীয় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও দেখা করে গেছেন। গুঞ্জনটা তখন থেকেই জোড়ালো হয়েছে যে, সাকিব এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে বেশ দৌঁড়-ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন ভেতরে ভেতরে। 

অবশেষে রাজনীতিতে নাম লেখাতে যাচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। অনেকদিনের কানাঘুষা এবার তিনি সত্যি করলেন। সাকিব আওয়ামীলীগের মনোনয়নপত্র কিনলেন। শনিবার (১৮ নভেম্বর), ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে এই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন সাকিব। 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য সাকিবের পক্ষে আওয়ামী লিগের এই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন তার স্বজনেরা। একটি নয়, সাকিবের পক্ষে মোট তিনটি আসনের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে। এগুলো হলো- গুরুত্বপূর্ণ ঢাকা–১০ আসন এবং সাকিবের নিজ জেলা মাগুরা-১ ও মাগুরা-২ আসন। মাগুরা-১ আসনের ভোটারও তিনি। 

ক্রীড়াঙ্গনের তারকাদের রাজনীতিতে আসা নতুন কিছু নয়। স্বয়ং বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও একজন সাংসদ। সাবেক দুই অধিনায়ক নাইমুর রহমান দূর্জয় ও বাংলাদেশের অন্যতম সেরা (সাবেক) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তূজাও রানিং সাংসদ। তবে ক্রিকেটে যেমন জনপ্রিয় তেমনি রাজনীতিতেও। নড়াইল-২ আসন থেকে তিনি নির্বাচিত। সাকিব কি পারবেন মাশরাফির মতো জনপ্রিয় হতে? 

মাশরাফি খেলার মাঠে বাকি ১০ সদস্যকে যেভাবে নেতৃত্ব দিতেন তা অতুলনীয়। খোঁদ তার সতীর্থরাই মাশরাফির নেতৃত্ব গুণের দারুণ প্রশংসা করেন। আর তাইতো ম্যাশ বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা জনপ্রিয় অধিনায়ক। মাশরাফি রাজনীতির মাঠেও তাই। প্রায়ই তার রাজনীতির ভিডিওতে দেখা যায় তিনি এলাকার মানুষের কাছে যান, কথা বলেন। দুঃখ-দূর্দশা, সমস্যার খোঁজ নিয়ে সমাধানের চেষ্টা করেন। 

মাশরাফির মতো সাকিবও বাংলাদেশের অধিনায়ক ও জনপ্রিয় ক্রিকেটার। কিন্তু, দলের নেতৃত্বের জায়গায় সাকিব ততটা আলোচিত নন যতটা তিনি একজন ক্রিকেটার হিসেবে আলোচিত ও সম্মানিত। সাকিব কি পারবেন মাশরাফির মতো মাটি ও মানুষের সাথে মিশে নিজেকে সেই জায়গায় নিয়ে যেতে? মানুষের সেবা করে পাশে থাকতে? সাকিবীয় চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ভেঙে হয়তো সেই জায়গায় যাওয়াটা কঠিন তবে অসম্ভব কিছু নয়। কারণ, এই কথাটি একবার সাকিবই বলেছিলেন, যিনি পারেন তিনি সব পারেন।


রাজনীতি   সাকিব   মাশরাফি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

শ্রীলংকার দেওয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে চাপে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ০৮:৪৫ পিএম, ০৪ মার্চ, ২০২৪


Thumbnail

শ্রীলংকার বিপক্ষে টি-২০ ম্যাচ দিয়েই বছরের প্রথম আন্তর্জাতিক খেলায় মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথমটিতে শুরুতে টস জিতে ফিল্ডিং করলেও সুবিধা করতে পারেনি টাইগাররা। যেখানে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০৬ রান করেছে সফরকারীরা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমেও চাপে পড়েছে নাজমুল হাসান শান্তর দল। লংকানদের দেওয়া বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বেশ ধাক্কা খেয়েছে টাইগাররা। পাওয়ার প্লে-তে ৩টি সহ ১০ ওভারেই চার উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিক দল।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭৮ রান।

বাংলাদেশের হয়ে রান তাড়া করতে নামেন লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজের করা প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে ভুল শট খেলে উইকেটের পিছনে ক্যাচ তুলে দেন লিটন। কোনো রানই করতে পারেননি তিনি।

সৌম্য সরকারও আজ ১২ রানের বেশি করতে পারেননি। বিপিএলে দারুণ ফর্মে থাকা তাওহীদ হৃদয় ফিরেছেন ৮ রানে। এরপর নতুন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত ও মাহমুদুল্লাহ বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। তবে নবম ওভারে পাথিরানার বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান শান্তও।

বর্তমানে ক্রিজে থেকে দলকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টায় রয়েছেন জাকের আলী ও মাহমুদুল্লাহ।


বাংলাদেশ   শ্রীলংকা   ক্রিকেট   টি-২০  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দিল শ্রীলংকা

প্রকাশ: ০৭:৪৭ পিএম, ০৪ মার্চ, ২০২৪


Thumbnail

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে শ্রীলংকা। এর মধ্যে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের মধ্য দিয়ে আজ পর্দা উঠেছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকার লড়াইয়ের।

সিরিজের প্রথম টি-২০ তে আজ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলতে নেমে শুরুতেই টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। যেখানে ঘটনাবহুল ইনিংসে তিন উইকেটে ২০৬ রান সংগ্রহ করেছে শ্রীলংকা।

শ্রীলংকার হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন আভিষ্কা ফার্নান্দো ও কুশল মেন্ডিস। শরিফুল ইসলামের করা প্রথম বলেই চার হাঁকান আভিষ্কা।

অবশ্য পরের বলেই উইকেটের পিছে ধরা পড়েন আভিষ্কা। শুরুর ধাক্কা সামলে পাল্টা আক্রমণ শুরু করেন কামিন্দু মেন্ডিস। ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারে তাকে সৌম্য সরকারের তালুবন্দী করেন তাসকিন আহমেদ। কামিন্দু ফেরেন ১৯ রানে।

শুরুতেই দুই উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরেন কুশল মেন্ডিস ও সাদিরা সামারাবিক্রমা। যেখানে প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক ছিলেন মেন্ডিস। দ্বাদশ ওভারে রিশাদ হোসেনের পর পর দুই বলে ছয় হাঁকিয়ে ফিফটি পূরণ করেন এ ব্যাটার।

দারুণ খেলতে থাকা মেন্ডিসকে ফেরান সেই রিশাদই। এর আগে ৫৯ রান করেন লংকান ওপেনার। একইসঙ্গে ভাঙ্গে সামারাবিক্রমার সঙ্গে তার ৯৬ রানের জুটি। ইনিংসের পরের গল্প সামারাবিক্রমা আর চারিথ আসালঙ্কার।

শেষদিকে  রানের জুটি গড়েন সামারাবিক্রমা ও আসালঙ্কা। যেখানে দারুণ এক অর্ধশতকের দেখা পান সামারাবিক্রমা। তিনি ৬১ ও আসালঙ্কা ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন। তাসকিন, শরিফুল ও রিশাদ একটি করে উইকেট নেন।


বাংলাদেশ   শ্রীলংকা   ক্রিকেট   টি-২০  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই উইকেটের দেখা পেল বাংলাদেশ

প্রকাশ: ০৬:১৮ পিএম, ০৪ মার্চ, ২০২৪


Thumbnail

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে শ্রীলংকা। এর মধ্যে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের মধ্য দিয়ে আজ পর্দা উঠেছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকার লড়াইয়ের।

সিরিজের প্রথম টি-২০ তে আজ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলতে নেমে শুরুতেই টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। যেখানে প্রথম ইনিংস শুরুর দ্বিতীয় বলেই উইকেটের দেখা পেয়েছে স্বাগতিক দল।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩ ওভারে এক উইকেটে ২১ রান সংগ্রহ করেছে শ্রীলংকা।

সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে জয় দিয়ে শুরু করতে চায় টাইগাররা। এ দিন শ্রীলংকার হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন আভিষ্কা ফার্নান্দো ও কুশল মেন্ডিস। শরিফুল ইসলামের করা প্রথম বলেই চার হাঁকান আভিষ্কা। তবে পরের বলেই উইকেটের পিছে ধরা পড়েন তিনি।

প্রথম টি-২০তে বাংলাদেশের একাদশ: লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, তাওহীদ হৃদয়, জাকের আলী, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শেখ মাহেদী, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, রিশাদ হোসেন ও শরিফুল ইসলাম।


বাংলাদেশ   শ্রীলংকা   ক্রিকেট   টি-২০  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলংকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল বাংলাদেশ

প্রকাশ: ০৫:৪৩ পিএম, ০৪ মার্চ, ২০২৪


Thumbnail

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে শ্রীলংকা। এর মধ্যে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের মধ্য দিয়ে আজ পর্দা উঠছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকার লড়াইয়ের।

সিরিজের প্রথম টি-২০ তে আজ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলতে নামছে শান্তর দল। লংকানদের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজটি এ বছর বাংলাদেশের জন্য প্রথম আন্তর্জাতিক অ্যাসাইনমেন্ট। ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়।

সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে জয় দিয়ে শুরু করতে চায় টাইগাররা। সে লক্ষ্যে শুরুতেই টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

শেষ কয়েকটি সিরিজে এই ফরম্যাটে সাফল্য পাওয়ায় এখন আর সহজ প্রতিপক্ষ নয় বলে নিজেদের প্রমাণ করেছে বাংলাদেশ। ২০২২ সাল থেকে এই ফরম্যাটে কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজে হারেনি তারা।

এ সময় সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে চারটি সিরিজ জিতেছে টাইগাররা। গত বছরের শেষ দিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ ড্র করায় এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের উন্নতি এখন স্পষ্ট।

যদিও এই সময়ে বহুজাতিক টুর্নামেন্টে প্রত্যাশিত সাফল্য পায়নি টাইগাররা। এখন পর্যন্ত ১৫৮টি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে ৫৯টিতে জয়, ৯৫টিতে হার এবং ৪টিতে ড্র করেছে টাইগাররা।

শ্রীলংকার বিপক্ষে এ পর্যন্ত ১৩বারের মোকাবেলায় ৪টিতে জয় এবং ৯টিতে হেরেছে বাংলাদেশ। এই সিরিজ দিয়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে টি-২০র রেকর্ডে উন্নতি করার সুযোগ পাচ্ছে টাইগাররা।


বাংলাদেশ   শ্রীলংকা   ক্রিকেট   টি-২০  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড গ্রাউন্ড

আর্জেন্টিনার ক্লাবের বিরুদ্ধে বেতন না পাওয়ার অভিযোগ জামালের

প্রকাশ: ০৫:৩৪ পিএম, ০৪ মার্চ, ২০২৪


Thumbnail

বিশ্ব ফুটবলে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলা মাঠে গড়ালেও উচ্ছ্বাস-উন্মাদনায় লড়াই চলে এই দুই দলের দর্শকদের মাঝে। সারা বিশ্বের পাশাপাশি বাংলাদেশেও এই ফুটবল উন্মাদনা কম নয়।

গেল কাতার বিশ্বকাপে দারুণ নৈপূণ্যের সাথে খেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। আর সেসময় বাংলাদেশে মেসি-ডিমারিয়াদের উচ্ছ্বাস-উন্মাদনা কাজে লাগিয়ে আর্জেন্টিনার ক্লাব সোল দ্য মায়ো বাংলাদেশের জামাল ভূঁইয়াকে খেলার প্রস্তাব পাঠায়, যা লুফে নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়কও যোগ দেন মেসি-ম্যারাডোনার দেশের ক্লাবে। কিন্তু ছয় মাস যেতে না যেতেই সেই উচ্ছ্বাস হারিয়ে গেছে। ক্লাবটির কাছ থেকে চুক্তি অনুযায়ী অর্থ না পাওয়ায় ফিফার কাছে চিঠি দিয়েছেন।

জানা গেছে, সোল দে মায়োর সঙ্গে মাসিক সাড়ে ১২ হাজার ডলার বেতনে চুক্তি করেছিলেন জামাল। তার অভিযোগ এক মাসেরও বেতন পাননি তিনি। শুধুমাত্র আর্জেন্টিনায় থাকা এবং খাবারের অর্থ যোগান দিয়েছে ক্লাবটি। যে কারণে ফিফায় অভিযোগ করেন জামাল। এরই প্রেক্ষিতে সোল দে মায়োকে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে ফিফা।

ক্লাবটি থেকে বেতন না পাওয়ায় ফিফায় অভিযোগ করার ব্যাপার জামাল বলেছেন, ‘হ্যাঁ, বেতন না পেয়ে আমি অভিযোগ করেছি।’

সোল দে মায়োর সঙ্গে দেড় বছরের চুক্তি ছিল বাংলাদেশ অধিনায়কের। কিন্তু ছয় মাস না পেরোতেই চুক্তি ভঙ্গ করে বাংলাদেশের ক্লাব আবাহনীতে নাম লিখিয়েছেন এই মিডফিল্ডার। যদিও এখনও আর্জেন্টিনার ক্লাব থেকে ছাড়পত্র পাননি জামাল।


জামাল ভুঁইয়া   বাংলাদেশ   আর্জেন্টিনা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন