ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ব্রুনাইয়ে ইফতারের পুণ্যময় ঐতিহ্যের চিত্র

প্রকাশ: ০৬:০০ পিএম, ০২ এপ্রিল, ২০২৪


Thumbnail

রমজান মাসকে স্বাগত জানাতে ব্রুনাইয়ের অমুসলিমরাও মেতে ওঠে নানা ধরণের উৎসবে। প্রথম রমজানে মুসলিমদের সম্মানে তারাও রোজা রাখে। 

বাংলা ইনসাইডার আয়োজিত 'ইনসাইড রমজান' ধারাবাহিক এর আজকের পর্বে আমরা জানবো ব্রুনাইয়ে মুসলিমদের রমজান ও ইফতার সংস্কৃতি- 

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি রাষ্ট্র ব্রুনাই দারুসসালাম। দেশটিতে প্রথম রমজানে থাকে সরকারি ছুটি। রমজানে সুলতান হাসান বলখিয়া নিজে জাতীয় মসজিদে উপস্থিত হন এবং মুসল্লিদের জন্য সাহরি প্রস্তুতির কাজে অংশ নেন। তার আগমন উপলক্ষে মসজিদে দ্বিনি আলোচনার আয়োজন করা হয়। 

রমজানে ইফতার এক আনন্দময় মুহূর্ত। সারা দিনের ক্লান্তি নিমেষেই দূর হয়ে যায় এ সময়। প্রফুল্লতায় ভরে ওঠে দেহমন। ইফতারের বহু ফজিলত রয়েছে। আমরা নিজেরা ইফতার করে যেমন পুন্য অর্জন করতে পারি। তেমনি অন্যকে ইফতার করানোর মাধ্যমেও পেতে পারি। একজন রোজাদার দিনভর রোজা রেখে যে নেকি অর্জন করবেন, সমপরিমাণ নেকি আমাদেরও অর্জিত হবে, যদি সেই রোজাদারকে ইফতার করানো হয়। তাই তো ইফতার করানোর পুণ্যময় সংস্কৃতি এখনো বিদ্যমান ব্রুনাইয়ে।

এখানকার স্থানীয় ভাষায় ইফতারকে সোংকাই বলা হয়। ঐতিহ্যগতভাবেই আঞ্চলিক বা গ্রামীণ মসজিদগুলোতে এর আয়োজন করা হয়। সাধারণত সরকার ও স্থানীয় বাসিন্দারা এই সোংকাইয়ের আয়োজন করে থাকে। এখানে ইফতারের আগে বেদুক নামে এক ধরনের ড্রাম বাজানো হয়, যার মানে হচ্ছে, ইফতারের সময় হয়ে গেছে। এছাড়া রাজধানী বন্দর সেরি বেগাওয়ানে সোংকাইয়ের সংকেত হিসেবে কামান থেকে গুলি ছোড়া হয়। 

তাদের ইফতারে থাকে কোনাফা, ত্রোম্বা, বিরিয়ানি, চিকেন রোল ও নানা রকম হালুয়া। এছাড়াও থাকে সালাদ, স্যুপ, দুধ, দই ও বড় বড় রুটি।


ব্রুনাই   ইফতার   রমজান   সংস্কৃতি  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

আইসিজেকে অমান্য করে রাফায় ইসরায়েলের হামলা

প্রকাশ: ০৮:৪৩ এএম, ২৫ মে, ২০২৪


Thumbnail

গাজার রাফায় অবিলম্বে সামরিক অভিযান বন্ধ করতে ইসরাইলকে নির্দেশ দেয় আন্তর্জাতিক বিচার আদাল(আইসিজে)। কিন্তু নির্দেশ অমান্য করে কয়েক মিনিটের মধ্যেই রাফায় হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী।

শুক্রবার (২৪ মে) রাফার শাবউরা শরণার্থী শিবিরে যুদ্ধবিমান থেকে হামলা চালানো হয়। আইসিজে'র রায় ঘোষণার কিছুক্ষণ পরই রাফা শহরের কেন্দ্রে অবস্থিত শাবউরা ক্যাম্পে দফায় দফায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলের জঙ্গিবিমান। হামলাস্থলের কাছাকাছি কুয়েত হাসপাতালের একজন কর্মী জানান, তুমুল বোমা হামলার কারণে উদ্ধারকর্মীরা অভিযানস্থলে পৌঁছতে পারছেনা। 

দক্ষিণ আফ্রিকার করা মামলার শুনানিতে শুক্রবার (২৪ মে) হেগভিত্তিক জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত আইসিজে ইসরায়েলকে রাফা হামলা অবিলম্বে বন্ধ করতে বলার পাশাপাশি রাফার মিশর সীমান্ত ক্রসিং মানবিক ত্রাণ প্রবেশের জন্য খুলে দেওয়া, গাজায় তদন্তকারীদের প্রবেশ নিশ্চিত করা এবং ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনকে গাজায় ঢোকার অনুমতি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু ইসরায়েলের এসব নির্দেশ মানার কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। বরং আইসিজে'র রায় ইসরায়েল প্রত্যাখ্যান করেছে।

ইসরায়েল বলছে,তাদের জনগণকে সুরক্ষা দেওয়ার অধিকার আছে তাদের। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইসরায়েলের বিরুদ্ধে আনা গণহত্যার অভিযোগ মিথ্যা বলে প্রত্যাখ্যান করেছেন। হামাসের বিরুদ্ধে লড়ে যাওয়া এবং জিম্মিদের মুক্ত করার অঙ্গীকার করেছে ইসরায়েল। আর রাফায় অভিযান সম্পর্কে ইসরায়েল বলছে, সেখানে অবস্থান করা ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর কোনও বিরূপ প্রভাব পড়ে বা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়- এমনভাবে সেখানে অভিযান চালানো হবে না। 

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাসকে ধ্বংস করার অঙ্গীকার নিয়ে ইসরায়েল তিনসপ্তাহ আগে রাফায় অভিযান শুরু করেছিল। ইসরায়েলি জিম্মিরাও রাফাতেই আছে বলে বিশ্বাস ইসরায়েলের।


আইসিজে   রাফা   ইসরায়েল   হামলা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ষষ্ঠ দফায় বিজেপির আসন হারানোর আশঙ্কা বেশি

প্রকাশ: ১০:৩৬ পিএম, ২৪ মে, ২০২৪


Thumbnail

ভারতে চলমান লোকসভা নির্বাচনের ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ শুরু হবে শনিবার (২৫ মে)। ভারতের ছয়টি রাজ্য ও দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৫৮ সংসদীয় আসনে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে উত্তরপ্রদেশের ১৪, বিহারের ৮, ঝাড়খণ্ডের ৪, ওড়িশার ৬, পশ্চিমবঙ্গের ৮, হারিয়ানার ১০টি, দিল্লিতে ৭টি এবং জম্মু ও কাশ্মিরের ১টি আসনে ভোট হবে।

এই দফার নির্বাচনে ৮৮৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে এবার লড়াই ক্ষুরধার। কারণ, এই দফায় বিজেপির আসন বাড়ানোর জায়গা খুবই কম, বিপরীতে হারানোর আশঙ্কা বেশি।

আসন বাড়ানোর লক্ষ্যে বিজেপি এবার যে রাজ্যগুলোর দিকে বিশেষ নজর দিয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে কাল পশ্চিমবঙ্গে ভোট আটটি ও ওডিশার ছয়টি আসনে। পশ্চিমবঙ্গে ওই আট আসনের মধ্যে বিজেপি গতবার জিতেছিল পাঁচটিতে। বাকি তিনটি তৃণমূল। ওডিশার ছয়টি আসনের মধ্যে বিজেপি জিতেছিল দুটি। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস নতুন করে বিতর্কবিদ্ধ হচ্ছে রামকৃষ্ণ মিশন ও ভারত সেবাশ্রম সংঘ নিয়ে। অন্যদিকে ওডিশায় বিজেপি বিপাকে পড়েছে তাদের মুখপাত্র ও পুরি কেন্দ্রের প্রার্থী সম্বিত পাত্রের মন্তব্যের কারণে। সম্বিত দিন দুই আগে বলেছিলেন, প্রভু জগন্নাথ দেব নরেন্দ্র মোদির ভক্ত। মোদি নিজেই যখন নিজেকে পরমাত্মার অংশ বলে দাবি করেন, তখন সম্বিতের মন্তব্য বাড়তি কিছু সংযোজন না করলেও গোটা রাজ্য প্রতিবাদে মুখর হয়েছে। অবস্থা সামাল দিতে ও প্রায়শ্চিত্ত করতে সম্বিত তিন দিন উপবাস থাকার কথা ঘোষণা দিয়েছেন। এই আবহের মধ্যে বিজেপির জন্য ওডিশায় বাড়তি আসন পাওয়া সহজ হবে না।

উত্তর প্রদেশে এই দফায় ভোট ১৪ আসনে। এর মধ্যে গতবার বিজেপি জিতেছিল ৯টিতে। বাকি পাঁচটির মধ্যে চারটিতে বিএসপি, একটিতে এসপি জয় পেয়েছিল। বিএসপি এবার তেড়েফুঁড়ে লড়াই করছে না। তাদের দলিত ভোট আগের মতো বিজেপিতে গেলে মোদি এই রাজ্য থেকে আসন বৃদ্ধির আশা করতেই পারেন। কিন্তু দলিত ভোট এসপি-কংগ্রেস জোটে গেলে শাসক দলের চিন্তা বাড়বে। অখিলেশ যাদব সেই লক্ষ্যে এবার দলিত ও অনগ্রসর প্রার্থীর সংখ্যা বাড়িয়ে দিয়েছেন। দোসর কংগ্রেসকে নিয়ে প্রচারও চলছে সেভাবে।

জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগ-রাজৌরি কেন্দ্রের লড়াই এবার জোরদার। ফারুক আবদুল্লাহর দল ন্যাশনাল কনফারেন্স (এনসি) গতবার এই আসনে জিতেছিল। কিন্তু নয়া জমানায় এই কেন্দ্রের সীমান্ত পুনর্গঠন করা হয়েছে। রাজৌরির অনেকটা অনন্তনাগের মধ্যে ঢোকানো হয়েছে। এনসি প্রার্থীকে এখানে বেগ দিতে পিডিপির হয়ে দাঁড়িয়েছেন মেহবুবা মুফতি। বিজেপি প্রার্থী দেয়নি, তবে তারা সমর্থন করছে, তাদের তৈরি করা আপনি পার্টির প্রার্থীকে। উপত্যকায় বিজেপিকে সমর্থন করছে সাজ্জাদ লোনের দল পিপলস কনফারেন্সও। এনসি-পিডিপির রেষারেষিতে আপনি পার্টি জিতে গেলে বিজেপি বকলমে উপত্যকায় জমি খুঁজে পাবে।

এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন কমিশনকে বড় স্বস্তি দিলেন সুপ্রিম কোর্ট। ভোট গ্রহণের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বুথভিত্তিক ভোটের যাবতীয় পরিসংখ্যান প্রকাশ করার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা হয়েছিল। দুই পক্ষের শুনানি শেষে সুপ্রিম কোর্ট আজ শুক্রবার এই বিষয়ে কোনো নির্দেশ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। বিচারপতি দীপংকর দত্ত ও বিচারপতি সতীশচন্দ্র শর্মার ডিভিশন বেঞ্চ জানান, পাঁচ দফার ভোট গ্রহণ হয়ে গেছে। বাকি মাত্র দুই দফা। এই সময় এমন কোনো নির্দেশ মানা কমিশনের পক্ষে চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়াবে।

এবারের ভোটে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে বিরোধীরা সমালোচনায় মুখর। ভোট গ্রহণের ১১ দিন পর ভোটের হার বৃদ্ধির ঘোষণা বিরোধীদের শঙ্কিত করে রেখেছে। সেই শঙ্কা দূর করতেই ওই আবেদন করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীসহ বিজেপির শীর্ষ নেতারা ইতিমধ্যেই বলতে শুরু করেছেন, হার নিশ্চিত জেনে বিরোধীরা এখন থেকেই নির্বাচন কমিশন ও ইভিএমকে কাঠগড়ায় তুলতে শুরু করেছে।


লোকসভা নির্বাচন   বিজেপি  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

রাফায় ইসরায়েলের সামরিক অভিযান বন্ধে আইসিজের নির্দেশ

প্রকাশ: ০৯:৩৭ পিএম, ২৪ মে, ২০২৪


Thumbnail

ফিলিস্তিনের রাফায় সামরিক অভিযান বন্ধ করতে ইসরায়েলকে নির্দেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিচার আদালত (আইসিজে)। শুক্রবার (২৪ মে) নেদারল্যান্ডসের হেগে আইসিজে এ নির্দেশ দেন।

এদিন ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসের প্রেসিডেন্ট নওয়াফ সালাম বলেন, মার্চ মাসে আদালতের শেষ আদেশের পর থেকে রাফাতে মানবিক পরিস্থিতির ‘আরও অবনতি হয়েছে’।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, নওয়াফ বলেন, রাফাতে মানবিক পরিস্থিতি এখন ‘বিপর্যয়কর’ হিসেবে শ্রেণিবদ্ধ করা হয়েছে। আদালত নিশ্চিত নয় যে, গাজা উপত্যকায় বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য ইসরায়েল যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে তা যথেষ্ট কিনা। বিশেষ করে সম্প্রতি রাফা থেকে যারা বাস্তুচ্যুত হয়েছে, তাদের ঝুঁকি কমানোর জন্য যথেষ্ট পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। রাফাতে সামরিক অভিযানের ফলে ফিলিস্তিনি জনগণ ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছেন।

রাফায় হামলা বন্ধের নির্দেশ দিয়ে নওয়াফ সালাম বলেন, ইসরায়েলকে অবিলম্বে রাফায় সামরিক আক্রমণ বন্ধ করতে হবে। এই হামলা গাজার ফিলিস্তিনি গোষ্ঠীর ওপর আঘাত করতে পারে। যা সেখানে বসবাসকারীদের স্বাভাবিক জীবন ব্যাহত করবে এবং তাদের শারীরিক ধ্বংসও ডেকে আনতে পারে।

আইসিজে কর্তৃক আদেশকৃত ব্যবস্থা প্রয়োগের অগ্রগতির বিষয়ে ইসরায়েলকে এক মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি মানবিক সহায়তা প্রবেশের জন্য ইসরায়েলকে রাফা সীমান্ত ক্রসিং খুলে দেয়ার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত।

রাফা   ইসরায়েল   সামরিক অভিযান   আইসিজে  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

জর্জিয়ার ওপর মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশ: ০৬:০১ পিএম, ২৪ মে, ২০২৪


Thumbnail

জর্জিয়া বিতর্কিত ‘ফরেন এজেন্ট’ বিল পাস করায় দেশটির ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দেয়ার ঘোষণা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘জর্জিয়ার গণতন্ত্রকে ক্ষণ্ন করার প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে।’

গত সপ্তাহে বিতর্কিত ‘ফরেন এজেন্ট’ বিল পাস করেছে জর্জিয়ার ক্ষমতাসীন ড্রিম পার্টি। এরপর থেকে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।

পাস হওয়া বিলে বলা হয়েছে, যেসব বেসরকারি সংগঠন ও গণমাধ্যম তাদের অর্থায়নের ২০ শতাংশের বেশি দেশটির বাইরে থেকে আনছে, তাদের ‘বিদেশি শক্তির স্বার্থ প্রতিপালনকারী’ প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিবন্ধন করতে হবে।

এই বিল পাসের পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘জর্জিয়ার গণতন্ত্রের প্রতি আমেরিকার সমর্থন দীর্ঘদিনের। আগামী অক্টোবরে দেশটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনের আগে ও পরে জর্জিয়ার গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ক্ষুণ্ন করার সঙ্গে যাঁরা জড়িত থাকবেন, তাঁরা আমেরিকার ভিসা পাওয়ার ক্ষেত্রে অযোগ্য হবেন এবং আমেরিকা ভ্রমণ করতে পারবেন না।’

ব্লিঙ্কেন আরও বলেন, ‘ফরেন এজেন্ট বিল সাধারণ মানুষের মন প্রকাশের স্বাধীনতাকে রুদ্ধ করবে। এ ছাড়া জর্জিয়ার যেসব গণমাধ্যম নিরপেক্ষভাবে কাজ করছে, তাদের কাজের ক্ষেত্রেও বাধা সৃষ্টি করবে এই বিল।

খসড়া বিলটি পুনর্বিবেচনা করতে জর্জিয়ার প্রতি আহ্বান জানান অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। তিনি বলেন, আমরা আশা করি, জর্জিয়ার নেতারা বিলটি পুনর্বিবেচনা করবেন। আমরা যেহেতু দুই দেশের সম্পর্ক পুনর্বিবেচনা করছি, তাই সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা জর্জিয়ার পদক্ষেপকেও বিবেচনায় নেব।’

জর্জিয়া   মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চায় পুতিন

প্রকাশ: ০৫:৩৩ পিএম, ২৪ মে, ২০২৪


Thumbnail

বর্তমান যুদ্ধপরিস্থিতির অবস্থাকে মেনে নিলে ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধবিরতিতে প্রস্তুত রয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। দেশটির চারটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানিয়েছে। যদি কিয়েভ এবং পশ্চিমারা তার এ প্রস্তাব মেনে না নেয় তাহলে তিনি (পুতিন) যুদ্ধ চালিয়ে যাবেন। 

ওই চার কর্মকর্তার মধ্যে একজন রয়টার্সকে জানান, দীর্ঘ সময় যুদ্ধ করতে পুতিন প্রস্তুত রয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি যুদ্ধবিরতিও চান। ওই ব্যক্তি পুতিনের সঙ্গেই কাজ করেন এবং ক্রেমলিন সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখেন। তবে বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় তিনি তার নাম প্রকাশ করতে চাননি। 

পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্র পেসকভ বলেন, রাশিয়া তার লক্ষ্য অর্জনের জন্য আলোচনায় বসতে প্রস্তুত। কারণ তার দেশ যুদ্ধ চায় না। 

তবে ইউক্রেনের পররাষ্ট্র এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। 

এদিকে গত সপ্তাহে পুতিন নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে অর্থনীতিবিদ আন্দ্রেই বেলুসভকে নিয়োগ দিয়েছেন। এর মাধ্যমে পশ্চিমা সামরিকবাহনী এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা ধারণা করছেন রাশিয়া তার অর্থনীতি ঠিক রেখে এ যুদ্ধ দীর্ঘস্থায়ী করতে চান।

সূত্রগুলো বলছে, মার্চের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভ্লাদিমির পুতিন আগামী ছয় বছরের জন্য আবারও পুননির্বাচিত হয়েছেন। এখন তিনি সর্বোচ্চ শক্তি প্রয়োগ করে যুদ্ধে জিততে চাইবেন। তবে সূত্রগুলো নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। 

ইউক্রেন   ভ্লাদিমির পুতিন  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন