ইনসাইড বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব: আলোচনায় ৪ নাম

প্রকাশ: ১০:০০ পিএম, ০২ এপ্রিল, ২০২৪


Thumbnail

গত ১০ মার্চ মারা গেছেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। ৩ সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত এই পদে কাউকেই নিয়োগ দেওয়া হয়নি। সরকারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং স্পর্শকাতর এই পদটির জন্য কাকে নিয়োগ দেওয়া হবে তা নিয়ে বিভিন্নমুখী আলোচনা চলছে। তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এই পদে এখন পর্যন্ত কাউকে না দেওয়াটাকেও অনেকে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। তবে ইহসানুল করিমের মৃত্যুর পর প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার নজরুল ইসলাম অঘোষিত ভাবে এই দায়িত্ব পালন করছেন।

বিভিন্ন সূত্রগুলো বলছেন, তাকেই হয়তো প্রেসসচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হতে পারে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সূত্রগুলো বলছে, যদি তাকেই প্রেস সচিব পদে নিয়োগ দেওয়া হত তাহলে এতদিনে তাকে এই দায়িত্ব অর্পণ করা হতো। প্রধানমন্ত্রী অন্য কোনো চিন্তা করছেন বলেও বিভিন্ন সূত্র ধারণা করছে। তবে কেউ কেউ মনে করছেন যে, যেহেতু ইহসানুল করিমের মৃত্যু ১০ মার্চ হয়েছে৷ তার মৃত্যুর পর এখন পর্যন্ত ৪০ দিন পেরিয়ে যায়নি, এই জন্য এই সময়টি বিরতি রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব হিসেবে কাকে নিয়োগ দেওয়া হবে সে বিষয়টি এই ৪০ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরেই চূড়ান্ত হবে।

বিভিন্ন সূত্রগুলো বলছে, এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার নজরুল ইসলামের প্রেস সচিব হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তবে সাংবাদিকদের মধ্যে থেকেও একাধিক ব্যক্তির নাম আলোচনায় উঠে এসেছে। নজরুল ইসলাম ছাড়াও আরও তিনজন ব্যক্তির নাম এখন বেশ আলোচিত হচ্ছে। যারা প্রেস সচিব হতে পারেন বলে বিভিন্ন মহলে আলোচনা এবং গুঞ্জন রয়েছে।

যাদেরকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক প্রেস সচিব এবং বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ। তিনি এর আগেও প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিবের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী যখন দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন, তখন আবুল কালাম আজাদ প্রেস সচিব হিসেবে নিযুক্ত হন। পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থায় ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে যোগ দেন।

এছাড়াও, ডিবিসি নিউজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী মঞ্জুরুল ইসলামের নামও প্রেস সচিব হিসেবে বেশ জোরেশোরে আলোচিত হচ্ছে।

মঞ্জুরুল ইসলাম বাংলার বাণী পত্রিকায় কাজ করতেন। সেখান থেকে তিনি আজকের কাগজের প্রথম চিফ রিপোর্টার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তার নেতৃত্বেই ডিবিসি টেলিভিশন চ্যানেলটি এখন জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

এছাড়াও প্রেস সচিব হিসেবে আলোচনায় নাম আছে শ্যামল দত্তের। শ্যামল দত্ত ভোরের কাগজের সম্পাদক এবং জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক। তবে এই নামগুলোর বাইরেও বেশ কয়েকজনের নাম আলোচনা হচ্ছে এবং তারা প্রেস সচিব হতে পারেন বলে সাংবাদিক মহলে আলাপ আলোচনা আছে। এর মধ্যে ডেইলি সানের সম্পাদককে নাম এবং বিশিষ্ট গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মনজুরুল হাসান বুলবুলের নাম আলোচনায় রয়েছে। তবে, এই পদটি প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তার পদ। এখানে কাকে নিয়োগ দেয়া হবে না হবে এটি একান্তই প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তিনি সব কিছু বিবেচনা করে যাকে তার এই ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে যোগ্য মনে করবেন তাকেই নিয়োগ দিবেন।


প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব   মঞ্জুরুল ইসলাম   শ্যামল দত্ত  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঘূর্নিঝড় রেমাল: ফুফু ও বোনকে বাঁচাতে প্রান হারাল যুবক


Thumbnail

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘূর্নিঝড় রেমালের হাত থেকে ফুফু ও বোনকে রক্ষা করতে গিয়ে মোঃ শরীফুল ইসলাম (২৪) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। 

 

রোববার (২৬ মে) দুপুরে ধূলাসর ইউনিয়নের কাউয়ারচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মৃত শরীফ অনন্তপাড়া এলাকার আবদুর রহিমের ছেলে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শরীফের ফুপু মাতোয়ারা বেগম কাউয়ার চর এলাকায় বসবাস করেন। ওই বাড়িতে তার বোনও ছিলো। দুপুর ১ টার দিকে অনন্তপাড়া থেকে শরীফ তার বড় ভাই ও ফুফাকে নিয়ে বোন এবং ফুফুকে উদ্ধার করতে যায়। এসময় সমুদ্রের পানিতে কাউয়ারচর এলাকা ৫ থেকে ৭ ফুট পানিতে প্লাবিত ছিলো । সাতার কেটে তারা ফুফূ্র ঘরে যাওয়ার সময় সমুদ্রের ঢেউয়ের তোড়ে শরীফ হারিয়ে যায়। পরে একঘন্টা পর ওই স্থান থেকে শরীফের লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

 

মহিপুর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন তালুকদার জানান, ঘটনাস্থলো পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরবর্তী প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।


ঘূর্ণিঝড়   রোমাল   যুবক নিহত  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

এমপি আনারের আসন শূন্য ঘোষণা নিয়ে জটিলতা

প্রকাশ: ০৫:২৬ পিএম, ২৬ মে, ২০২৪


Thumbnail

চিকিৎসার জন্য ভারতের পশ্চিমবঙ্গে গিয়ে খুন হয়েছেন সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার। তবে এখনো তার লাশের সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে সংসদে তার আসন শূন্য ঘোষণা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।  

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, এমপি আজিম কলকাতায় খুন হয়েছেন। তবে তার লাশ পাওয়া না গেলে সংসদে তার আসন শূন্য ঘোষণা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। 

এদিকে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে আনোয়ারুল আজিমের আসনটি শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করার কথা। নির্বাচন কমিশনেরও ৯০ দিনের মধ্যে উপনির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। আনোয়ারুল আজিম একাধারে সংসদ সদস্য ও পরিবহণ ব্যবসায়ী। তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ ও ব্যাংক হিসাব পরিচালনার জন্যও মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া জরুরি।

১২ মে চিকিৎসার জন্য ব্যক্তিগত সফরে ভারতে যান টানা তিনবারের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার। ১৭ মে থেকে পরিবারের সঙ্গে তার যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। পরদিন তার নিখোঁজের বিষয়ে উত্তর কলকাতার বরানগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন সেখানকার বন্ধু গোপাল বিশ্বাস। এরপর সংসদ সদস্যের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস (ডরিন) ঢাকায় গোয়েন্দা সংস্থা ডিবির কাছে বাবার নিখোঁজের অভিযোগ দেন।

গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ১৩ মে রাতে খুন করা হয় আনোয়ারুলকে। কলকাতা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছে। এর মধ্যে ১২ দিন পেরিয়ে গেলেও মৃতদেহ পাওয়া যায়নি। 

সংসদ সচিবালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব কেএম আবদুস সালাম গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এ সপ্তাহে বিষয়টি নিয়ে স্পিকারের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সংসদবিষয়ক গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক নিজাম উদ্দিন আহমদ বলেন, এভাবে কোনো সংসদ সদস্যের মৃত্যু অতীতে ঘটেনি। সাধারণত কারও মৃত্যুর ক্ষেত্রে মৃত্যু সনদ দেওয়া হয়। এখানে কিভাবে তা করা হবে সেটা এখনো পরিষ্কার নয়। মরদেহ বা দেহাবশেষ না পেয়ে মৃত্যু সনদ দেওয়া হলে আইনি প্রশ্ন ওঠার সুযোগ থাকে। 

তবে এক্ষেত্রে রাষ্ট্র মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করছে। আসন শূন্য ঘোষণা করতে অসুবিধা হবে না বলে মনে করেন তিনি।
 

আনোয়ারুল আজিম আনার   ঝিনাইদহ-৪  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঘূর্ণিঝড় 'রেমাল': জলোচ্ছ্বাসে তলিয়ে গেল সুন্দরবন

প্রকাশ: ০৫:১৩ পিএম, ২৬ মে, ২০২৪


Thumbnail

প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে জলোচ্ছ্বাসে তলিয়ে গেছে পুরো সুন্দরবন। এদিকে, সুন্দরবন উপকূলসহ মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত বহাল রয়েছে। এরই মধ্যে বৃষ্টিসহ দমকা বাতাস বইতে শুরু করেছে।

রবিবার (২৬ মে) দুপুরে পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের করমজল বন্য প্রাণী প্রজনন কেন্দ্র ও পর্যটন স্পটের ওসি আজাদ কবির ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে স্বাভাবিকের চেয়ে চার ফুট পানি বেড়ে সুন্দরবন তলিয়ে গেছে। পানির চাপ আরো বাড়বে। তবে বন্য প্রাণীর কোনো ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা নাই বলে উল্লেখ করেন তিনি। 

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে পুরো সুন্দরবন বিভাগের কর্মকর্তা ও বনরক্ষকীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বন বিভাগের ঝুঁকিপূর্ণ ক্যাম্পগুলোতে থাকা বনরক্ষীদের এরই মধ্যে নিরাপদে সরিয়ে আনা হয়েছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে এরই মধ্যে মোংলা নদীতে যাত্রীবাহী ট্রলার চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান। 

তিনি বলেন, ঝুঁকি এড়াতে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে জরুরি কাজ ও রোগীদের কথা চিন্তা করে মোংলা নদীতে ফেরি চালু রাখা হয়েছে। পৌর শহরের আশ্রয়কেন্দ্রে লোকজনকে আনার জন্য ব্যাপক তৎপরতা চালানো হচ্ছে। 

মোংলা আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ হারুন অর রশিদ জানান, এই রিমাল মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ২৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছে। এটি আজ সন্ধ্যা নাগাদ সুন্দরবন ও মোংলা উপকূল অতিক্রম করে পটুয়াখালীর খেপুপাড়ায় আছড়ে পড়তে পারে।


ঘূর্ণিঝড়   রেমাল   জলোচ্ছ্বাস   সুন্দরবন  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

কুয়াকাটা সৈকত থেকে হোটেলে ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে পর্যটকদের


Thumbnail

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যায় অথবা রাতের দিকে উপকূল অতিক্রম করতে পারে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। ইতোমধ্যে উপকূলে শনিবার (২৫ মে) থেকে বইতে শুরু করেছে দমকা হাওয়া। সেই সঙ্গে থেমে থেমে হচ্ছে বৃষ্টি। কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের পাড়ে আছড়ে পড়ছে বড় বড় ঢেউ। কারণে সকাল থেকেই কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে আসা পর্যটকদের হোটেলে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন প্রশাসন। 

ঢাকা থেকে আসা পর্যটক নাঈম-রাইসা দম্পতি বলেন, ‘গতকাল শনিবার রাতে কুয়াকাটায় এসেছি। ঘূর্ণিঝড়ের সময় কুয়াকাটা সৈকতে ছোট বড় ঢেউ আছড়ে পড়ে সেই দৃশ্য উপভোগের জন্যই আমরা এসেছি। সকাল ১০টার পরে এখানকার পুলিশ আমাদেরকে হোটেলে পাঠিয়ে দিয়েছে।’ 

বরিশাল থেকে আসার পর্যটক ইয়াসিন মিয়া বলেন, ‘আমরা প্রায় - জন বন্ধু আজ সকালে কুয়াকাটায এসেছি। সকালে সৈকতের নামার চেষ্টা করছিলাম। পুলিশ আমাদেরকে নামতে দেয়নি। সমুদ্রের আজকের যে ঢেউ এটা আসলে আমার জীবনে আর কখনো দেখেনি।‘

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, ‘সমুদ্রের বুকে বড় বড় ঢেউ আছড়ে পড়ছে। তাই পর্যটকদের আমরা নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিচ্ছি। যে সব পর্যটক কুযাকাটা এসেছেন তাদের নিরাপদ ভ্রমণের জন্যই আমরা তাদের হোটেলে ফিরে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়েছি।‘


কুয়াকাটা সৈকত   পর্যটক   ঘূর্ণিঝড়  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঘূর্ণিঝড় 'রেমাল': স্কুল বন্ধ থাকা নিয়ে যা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশ: ০৪:৪৮ পিএম, ২৬ মে, ২০২৪


Thumbnail

শিক্ষামন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, দুর্যোগকালীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা বা বন্ধ রাখার বিষয়ে স্ব স্ব জেলাগুলো নিজেরাই সিদ্ধান্ত নেবে।

রোববার (২৬ মে) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের মিলনায়তনে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের ২০২৩-২৪ অর্থ-বছরের সংশোধিত এডিপি বাস্তবায়ন এবং চলমান উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি ও মূল্যায়ন বিষয়ক কর্মশালা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এসডিজি-৪ এর লক্ষ্য শতভাগ শিক্ষার্থীকে মাধ্যমিক পর্যায়ে নিয়ে আসা। ভবনের নির্মাণ, ক্লাসরুমের ডিজাইন, ফার্নিচারের ডিজাইনে পরিবর্তন আনাও একই সঙ্গে প্রাসঙ্গিক।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের মধ্যেও চিন্তার পরিবর্তন করতে হবে। তাদের মাঠে নিয়ে আসতে হবে। প্রকৌশলীরা তাদের মনোজাগতিক পরিবর্তন আনতে পারে। প্রতিটি সাইটই শিক্ষার সাইট। মাদ্রাসা, অধিদপ্তর কিংবা বিদ্যালয়ের বিল্ডিং হোক সবখানেই প্রকৌশলীরা আছেন। আমরা দাপ্তরিক কাজের মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে যাচ্ছি। আমাদের দেশে ইনোভেশন হচ্ছে না, কারণ প্রকৌশলীরাও অফিসে বসে কাজ করছে। 

তিনি আরও বলেন, শিক্ষা প্রকৌশলের ইঞ্জিনিয়াররাই পরিমিত ব্যয়ের মাধ্যমে ভবন নির্মাণ করে গবেষণায় বিনিয়োগ বাড়াতে সহায়তা করতে পারেন।


স্কুল   বন্ধ   শিক্ষামন্ত্রী  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন