ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

গাজার সংকটাপন্ন অবস্থা নিরসনে একসাথে শি-ম্যাক্রোঁ

প্রকাশ: ০৯:১৮ এএম, ২১ নভেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ গাজায় আরও গুরুতর মানবিক সংকট এড়াতে একমত হয়েছেন। সোমবার একটি ফোন কলে তারা ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ নিয়ে আলোচনা করেন। তাদের আলোচনায় গাজায় আরও গুরুতর মানবিক সংকট এড়ানোর ব্যাপারটি উঠে এসেছে। তারা এ বিষয়ে একমত হয়েছেন বলে বেইজিংয়ের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিসিটিভি জানিয়েছে।

সিসিটিভি অনুসারে, শি ও ম্যাক্রোঁ সাধারণ উদ্বেগের আন্তর্জাতিক এবং আঞ্চলিক বিষয়ে যোগাযোগ বজায় রাখার পাশাপাশি বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতায় অবদান রাখতে সম্মত হয়েছেন। তাদের মতে, ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের মধ্যে পুনরাবৃত্ত সংঘাত সমাধানের মৌলিক উপায় হল ‘দুই রাষ্ট্র সমাধান 

দুই রাষ্ট্রপ্রধান মতামত বিনিময়ের মাধ্যমে মনে করেন, ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের মধ্যকার পরিস্থিতির আরও অবনতি এড়াতে বিশেষ করে আরও গুরুতর মানবিক সংকট এড়াতে বিষয়টিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত।

ফোন কলটি ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাথরিন কলোনার চীন সফরের কয়েকদিন আগে এসেছে। গাজা সংঘাতে ‘উত্তেজনা কমানোর লক্ষ্যে সোমবার ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, সৌদি আরব ও জর্ডানের শীর্ষ কূটনীতিকদের একটি প্রতিনিধি দল বেইজিংয়ে বৈঠক করেছেন।

উল্লেখ্য, ম্যাক্রোঁ এপ্রিল মাসে তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে চীনে এসেছিলেন। তখন বেইজিংয়ে তাকে আথিতেয়তা করেছিলেন শি। তিনি দক্ষিণ শহর গুয়াংজুতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গেও দেখা করেছিলেন।


শি-ম্যাক্রোঁ   গাজা   যুদ্ধ   হামাস   ইসরায়েল   চীন   ফ্রান্স  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

পারমাণবিক শক্তি আরও বাড়াচ্ছে ইরান: আইএইএ

প্রকাশ: ০৫:৩৬ পিএম, ১৪ জুন, ২০২৪


Thumbnail

ইরান তাদের পারমাণবিক সক্ষমতা আরও বাড়াচ্ছে বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ)  গতকাল বৃহস্পতিবার সংস্থাটি এক বিবৃতিতে দাবি করেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নাতাঞ্জ ও ফোরদৌতে পারমাণবিক কেন্দ্রগুলোতে আরও বেশি ক্যাসকেড মজুত করছে তেহরান। এ বিষয়টি তেহরানের কাছ থেকেই আইএইএ জানতে পেরেছে বলে জানিয়েছে।

ক্যাসকেড হচ্ছে, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণে ব্যবহৃত সেন্ট্রিফিউজসহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতি। তবে একজন কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণে ইরান মাঝারি ধরনের তৎপরতা চালাচ্ছে।

গত সপ্তাহে আইএইএ-গভর্নর বোর্ডের কাছে ‘ইরান যথেষ্ট সহযোগিতা করছে না’ মর্মে প্রস্তাব উত্থাপন করে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানি। এ প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে চীন এবং রাশিয়া।

আইএইএ-গভর্নর বোর্ডে ৩৫টি দেশের প্রতিনিধি রয়েছেন। তাঁরা বলেছেন, ২০২২ সালের নভেম্বরের পর প্রথমবারের মতো এ ধরনের প্রস্তাব উত্থাপিত হলো।

ইরান এই প্রস্তাবের সমালোচনা করে বলেছে, প্রস্তাবটি মোটেও বিবেচনাপ্রসূত নয়। প্রস্তাবটি তড়িঘড়ি করে উত্থাপন করা হয়েছে, তা স্পষ্ট।

এএফপি বলেছে, এ ধরনের প্রতীকী প্রস্তাব উত্থাপনের উদ্দেশ্য হচ্ছে, ইরানের ওপর কূটনৈতিক চাপ জোরদার করা। এর মধ্যে এক সময় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদেও প্রস্তাবটি তোলার সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এর আগেও আইএইএ-গভর্নর বোর্ডে এ ধরনের প্রস্তাব পাস হয়েছে। তারপর দেখা গেছে, ইরান তাদের পারমাণবিক স্থাপনা থেকে নজরদারি ক্যামেরা এবং অন্যান্য সরঞ্জাম সরিয়ে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কার্যক্রম বাড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, ‘আইএইএর প্রতিবেদন থেকে একটি বিষয় স্পষ্ট যে, ইরান তাদের পারমাণবিক কর্মসূচি বাড়াচ্ছে এবং এর মধ্যে শান্তিপূর্ণ কোনও উদ্দেশ্য নেই।’

 


পারমাণবিক শক্তি   আইএইএ   জাতিসংঘ  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা, সতর্ক করলো কানাডা

প্রকাশ: ০৩:৪৮ পিএম, ১৪ জুন, ২০২৪


Thumbnail

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধ বাঁধতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে কানাডার পলিসি আউটলুক। শুধু তা-ই নয়, মার্কিন গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা সম্পর্কে অটোয়াকে সতর্ক করার পাশাপাশি উদ্ভূত পরিস্থিতির পরিণতি মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুত হতে বলেছে। 

৩৭ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে কানাডিয়ান পলিসি আউটলুক  বলেছে, “যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মতাদর্শগত পার্থক্য বাড়তে থাকে এবং গণতন্ত্র দুর্বল হয় তাহলে অভ্যন্তরীণ উত্তেজনা যুক্তরাষ্ট্রকে গৃহযুদ্ধের দিকে নিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।”

জানা গেছে, এই গবেষণায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য অন্যান্য পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে যেমন স্থানীয়ভাবে জৈবিক অস্ত্রের ব্যবহার এবং দুর্ভিক্ষ।

এই প্রতিবেদনটি উল্লেখ করে, মার্কিন প্রকাশনা পলিটিকো বলছে,  "আমাদের প্রতিবেশী (কানাডা) আমাদের দেশে সহিংস ঘটনা ঘটবে বলে যে আশঙ্কা করছে তা চিন্তার বিষয়! তবে একটি বিদেশি এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সরকারের কাছ থেকে এমন খবর নিঃসন্দেহে মার্কিন সমাজে জাতীয় বিভাজন তৈরি করবে।"

কয়েক মাস ধরে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান এবং পশ্চিমা প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ প্রতিষ্ঠানগুলো সেদেশে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা সম্পর্কে সতর্ক করে আসছে। তারা বিভিন্ন প্রমাণ দেখাচ্ছে যে যুক্তরাষ্ট্র একটি গৃহযৃদ্ধ বা সামরিক সংঘাতের দিকে চলে যাচ্ছে, যার প্রেক্ষাপট কয়েক বছর আগে থেকেই শুরু হয়েছে। এমনকি সেটি ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করার আগেই শুরু হয়েছিল বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। ২০২১ সালের জানুয়ারিতে মার্কিন কংগ্রেসে ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনার গুজব আরও তীব্র হয়।

আমেরিকা   গৃহযুদ্ধ   কানাডা  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

ইউক্রেনের সঙ্গে ১০ বছরের নিরাপত্তা চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের

প্রকাশ: ০৩:১১ পিএম, ১৪ জুন, ২০২৪


Thumbnail

ইউক্রেনের সঙ্গে ১০ বছরের নিরাপত্তা চুক্তি সই করেছে যুক্তরাষ্ট্রের। এটিকে ন্যাটোয় ইউক্রেনের সদস্য হওয়ার পথে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ বলে উল্লেখ করা হয়েছে চুক্তিপত্রে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এ চুক্তিতে কিয়েভের সামরিক বাহিনীকে প্রশিক্ষণ, ইউক্রেনকে অস্ত্র উৎপাদনে সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ অন্যান্য সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে, ইউক্রেন ও জাপানের মধ্যেও নিরাপত্তা চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

এদিকে জব্দ করা রুশ সম্পদের অর্থ থেকে ইউক্রেনকে পাঁচ হাজার কোটি ডলার ঋণ দিতে রাজি হয়েছেন জি-৭ নেতারা। পশ্চিমা দেশগুলোতে স্থগিত করা রাশিয়ার সম্পদের মুনাফা থেকে চলতি বছরের শেষ নাগাদ এই ঋণ দেয়া হবে। যা প্রতিরক্ষা, বাজেট সহায়তা এবং পুনর্গঠনে ব্যয় করবে কিয়েভ।

মস্কোকে অর্থনৈতিক চাপে ফেলতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তবে এমন সিদ্ধান্তের পরিণতি কঠোর হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় পুগলিয়ায় শুরু হয় শিল্পোন্নত সাত দেশের জোট জি-সেভেনের ৫০তম সম্মেলন। তিন দিনব্যাপী সম্মেলনে একে একে যোগ দিয়েছেন সদস্য দেশগুলোর সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরা। তাদের স্বাগত জানান আয়োজক দেশ ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি।

জোট সদস্যের বাইরেও আমন্ত্রণ জানানো হয় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট, ভারতের প্রধানমন্ত্রী, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টসহ বেশ কয়েকটি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানকে। এবারের সম্মেলনে আলোচ্য বিষয়গুলোর মধ্যে আফ্রিকা ও ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা, ইউক্রেনকে সহায়তা ও মধ্যপ্রাচ্যের গাজা ইস্যু অগ্রাধিকার পাচ্ছে। প্রথমদিনই রাশিয়াকে মোকাবিলায় ইউক্রেনের জন্য সমর্থনের বিষয়টি ছিল আলোচ্যসূচির শীর্ষে।

জোটের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। যদিও বর্তমানে স্থগিত থাকা তহবিল ভবিষ্যতে রাশিয়া ব্যবহার করার অধিকার পেলে, তখন কিয়েভের জন্য দেয়া জি-সেভেনের এই ঋণ পরিশোধ করা নিয়ে জটিলতা দেখা দেবে।


ইউক্রেন   নিরাপত্তা চুক্তি   যুক্তরাষ্ট্র  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

দাঙ্গার তিন বছর পর ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প

প্রকাশ: ০২:০৩ পিএম, ১৪ জুন, ২০২৪


Thumbnail

রিপাবলিক নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে গিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিন বছর আগে দাঙ্গার পর প্রথমবারের মতো তিনি সেখানে ফিরলেন।

ক্যাপিটল হিলে রিপাবলিক নেতাদের সঙ্গে দেখা করার পরে ট্রাম্প একটি সংগঠনের ২০০ করপোরেট নেতার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এক বিবৃতিতে সাবেক ডেমোক্রেটিক হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ট্রাম্পকে উদ্দেশ করে বলেছেন, 'বিদ্রোহের উসকানিদাতা...অপরাধ সংঘটনস্থলে ফিরে আসছেন।'

চলতি বছরের নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকানদের সম্ভাব্য মনোনীত এই প্রার্থী ক্যাপিটল হিলে এসে ঐক্যের বার্তা দিয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, দলে বড় ধরনের ঐক্য রয়েছে। তার সঙ্গে মতের মিল না হলেও অনুসারী রিপাবলিকানদের পাশে থাকার প্রত্যয় জানান ট্রাম্প। 


যুক্তরাষ্ট্র   প্রেসিডেন্ট   ডোনাল্ড ট্রাম্প  


মন্তব্য করুন


ওয়ার্ল্ড ইনসাইড

সৌদিতে অ্যাম্বুলেন্সে করে রোগীদের হজের ব্যবস্থা

প্রকাশ: ০১:৩৪ পিএম, ১৪ জুন, ২০২৪


Thumbnail

আজ থেকে শুরু হয়েছে হজের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম। এবার হাজিদের নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সৌদি আরব। এরই অংশ হিসেবে অ্যাম্বুলেন্সে হজ পালন করবেন ১৮ ব্যক্তি। শুক্রবার (১৪ জুন) গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাম্বুলেন্সে হজ করতে আসা যাত্রীরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসাপাতালে ভর্তি ছিলেন। তাদের জন্য ৩১টি অ্যাম্বুলেন্সে ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সৌদির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অসুস্থদের জন্য এমন পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা বিভিন্ন দেশের নাগরিক। মক্কার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এসব রোগী অ্যাম্বুলেন্সে মদিনায় এসেছেন।

গালফ নিউজ জানিয়েছে, চিকিৎসাসেবা যাতে ব্যাহত না হয় সে ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। এসব অসুস্থ ব্যক্তিকে হজের পবিত্র স্থানগুলোতে নিয়ে যাওয়া হবে।

হাজিদের নিয়ে আসা এসব অ্যাম্বুলেন্সের প্রত্যেকটিতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এগুলোর পরিচালনায় স্বাস্থ্যবিষয়ক ১০৬ কর্মী রয়েছেন। এর মধ্যে নার্স, চিকিৎসক প্যারামেডিকরাও অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। অ্যাম্বুলেন্সে হজযাত্রীদের বহরে আরও রাখা হয়েছে রক্ষণাবেক্ষণ গাড়ি, অক্সিজেন সাপ্লাই, ভ্রাম্যমাণ ওয়ার্কশপ কুইক রেসপন্স টিম।


সৌদি   অ্যাম্বুলেন্স   রোগী   হজ  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন