ইনসাইড বাংলাদেশ

সিত্রাংয়ের প্রভাবে কুড়িগ্রামে ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা


Thumbnail সিত্রাংয়ের প্রভাবে কুড়িগ্রামে ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা

ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এর প্রভাবে রাতভর বৃষ্টি ও দমকা হাওয়ায়, দেশের উত্তরের জেলা কুড়িগ্রামে চলতি মৌসুমের আমন ধানের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছে কৃষক। 

মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) সকালে জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, আগাম জাতের কিছু ধান পাকতে শুরু করেছে, বাকি ধানের সবে মাত্র শীষ বেড় হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে গত ২৪ ঘন্টার বৃষ্টিপাত ও দমকা হাওয়া অব্যাহত থাকায়, কৃষকের অতি কষ্টের ফসল বৃষ্টি আর দমকা হাওয়ায় মাটির সাথে নুয়ে পড়েছে। 

উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাগভান্ডার গ্রামের রাহিজুল ইসলাম গনি জানান, বৃষ্টি আর বাতাসে তার দেড় বিঘা জমির ধান মাটির সাথে শুয়ে পড়েছে। ধানের সবে মাত্র শীষ বের হয়েছে। জানিনা ফসল ঘরে তুলতে পারবো কিনা! 

পাইকেরছড়া ইউনিয়নের আব্দুল হালিম জানান, প্রায় সোয়া বিঘা জমির ধান মাটিতে হেলে পড়েছে। ধানের শীষ পচনের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য কয়েক গোছা একত্র করে বেঁধে সোজা করে দিচ্ছি। 

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানাগেছে, চলতি মৌসুমে ১৬ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও তা ছাড়িয়ে কৃষক ১৬ হাজার ৮৫৩ হেক্টর জমিতে ধান চাষ করেন।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আপেল মাহমুদ জানান, বৃষ্টি ও দমকা হাওয়ায় আমন ধানের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণের কাজ চলছে। এখন পর্যন্ত ২২ হেক্টর জমির ধান ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। ক্ষতি কমাতে ক্ষেতের আইল কেটে পানি বের করে দেয়া ও গোছা করে ধান বেঁধে দেয়াসহ
কৃষকদের নানা পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

অপরদিকে, জেলার ফুলবাড়ী উপজেলায় গত ২ দিনের টানা বৃষ্টি আর দমকা হাওয়ায় ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে রোপা আমনসহ বিভিন্ন প্রকার সবজি খেতের। শতশত কৃষকের স্বপ্নের আমন খেতের ফসল বর্তমানে কাদাপানিতে লেপ্টে আছে। চলতি রোপা আমন চাষের শুরু থেকে প্রকৃতির সাথে লড়াই চলছে ফুলবাড়ীর কৃষকদের। আমনের চারা রোপণের পরে খরার ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই অনেক ক্ষেতে দেখা দেয় পোকার আক্রমণ। 

ফুলবাড়ি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তৎপরতা আর কৃষকদের হার না মানা লড়াইয়ে জয় কৃষকের। দিগন্তজুড়ে খেলা করে সবুজের ঢেউ। কৃষাণ-কৃষাণীরা আশায় বুক বাঁধেন। স্বপ্ন দেখেন ফসল ঘরে তুলে নবান্ন উৎসবে মেতে ওঠার। তবে তাদের আশার পাতে ছাঁই। তাদের স্বপ্নের আমন খেতের ধান গাছ এখন মাটির সাথে লেপ্টে আছে।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, শত শত কৃষকের পাকা, আধাপাকা, কাঁচা ধান মাটিতে লুটিয়ে পড়েছে। বৃষ্টি আর বাতাসের তোড়ে নষ্ট হয়ে গেছে ফুলকপি, বাঁধাকপি, বেগুন, লাউসহ বিভিন্ন প্রকার সবজি ক্ষেত। 

বড়ভিটা ইউনিয়নের নওদাবস গ্রামের কৃষক রবিউল ইসলাম বলেন, তার সাড়ে তিন বিঘা জমির সদ্য শীষ বের হওয়া স্বর্ণ জাতের ধানের গাছ মাটিতে শুয়ে পড়েছে। 

সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা গ্রামের কৃষক বাদল সরকার জানান, তার নিজের তিন বিঘাসহ তার ভাই ও চাচির পাঁচ বিঘা জমির ধান গাছ এলোমেলো ভাবে জমির কাদাপানিতে লেপ্টে আছে। এতে জমির ধান পঁচে নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন তিনি। 

ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের খোঁচাবাড়ী গ্রামের শামসুল হক জানান, তিনি এবারে দশ বিঘা জমিতে আমন চারা রোপন করেছেন। তার মধ্য প্রায় আড়াই  বিঘা জমির ধান গাছ মাটিতে পড়ে গেছে। এতে ফলন হানির পাশাপাশি গো-খাদ্যে সংকটের সম্ভাবনার কথাও বলেন তিনি। একই পরিস্থিতির কথা জানিয়েছেন উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের প্রান্তিক কৃষক।

আউশ ও রোপা আমন ধান চাষাবাদের বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় এবারে ১১ হাজার ৩৫২ হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে। এছাড়াও ১ হাজার ১২৫ হেক্টর জমিতে আউশ চাষাবাদ হয়েছে। এরমধ্যে বন্যায় ৫১০ হেক্টর জমির আউশ ধান নষ্ট হয়ে গেছে। সবশেষ বৃষ্টি ও বাতাসের কারণে ৩৬৫ হেক্টর জমির রোপা আমন ধান মাটিতে লুটিয়ে পড়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নিলুফা ইয়াসমিন বলেন, বৃষ্টি ও বাতাসের তোড়ে যেসকল খেতের ধান গাছ মাটিতে লুটিয়ে পড়েছে সেসব ধান খেতের পানি দ্রুত নিস্কাসনের ব্যবস্থা করার পাশাপাশি জমিতে লুটিয়ে পড়া ধান গাছগুলিকে মুটো করে বেঁধে দেয়ার জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। যেসব খেতের ধান আশি ভাগ পেকেছে তা কেটে নেয়ার জন্যও কৃষকদের বলা হচ্ছে। জমিতে ধানগাছ লুটিয়ে পড়ায় ফলনহানির কোন সম্ভাবনা আপাতত দেখছি না।  

সিত্রাং   কুড়িগ্রাম  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

রাজধানীতে ৮ জন সহ সারা দেশে নিহত ১০

প্রকাশ: ০৫:৪৭ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে  উত্তরায় আরও চারজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। এই চারজনের মরদেহ রয়েছে রাজধানীর উত্তরার বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে।হাসপাতালটির পরিচালক মিজানুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে উত্তরায় পুলিশ ্যাবের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষে দুজন নিহতের খবর পাওয়া যায়। তাঁদের একজন উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মারা যান এবং আরেকজন উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে মারা যান। দুই হাসপাতালের চিকিৎসকেরা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সব মিলিয়ে উত্তরায় ছয়জনের মৃত্যু নিশ্চিত হওয়া গেছে হাসপাতাল সূত্রে। ছাড়া রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের এক শিক্ষার্থী, রামপুরায় একজন, সাভারে একজন মাদারীপুরে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সব মিলিয়ে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেল ১০ জনের।


রাজধানী   সারা   দেশে   নিহত ১০  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

কোটা সংস্কারে প্রয়োজনে সংসদে আইন পাস করা হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৫:২৯ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। মন্ত্রী বলেন, ‘কোটা সংস্কারে আদালতের রায় অনুযায়ী কাজ করবে নির্বাহী বিভাগ। সর্বোচ্চ আদালতের রায় বা সিদ্ধান্তই আইন হিসেবে গণ্য হবে।’

প্রয়োজন হলে সংসদে আইন পাসও করা হতে পারে। আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানান ফরহাদ হোসেন।

এদিকে, জাতীয় সংসদ ভবনের টানেলের নিচে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আন্দোলনকারীদের আলোচনার প্রস্তাবকে স্বাগত জানায় সরকার। আমাকে ও শিক্ষামন্ত্রীকে দায়িত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ওরা চাইলে আমরা আজকেই আলোচনায় বসতে রাজি।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আগামী ৭ আগস্ট ২০২৪ সালে যে মামলাটার শুনানি হওয়ার কথা ছিল সেই শুনানি এগিয়ে আনার জন্য ব্যবস্থা নিতে। আমি সেই মর্মে বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেলকে নির্দেশ দিয়েছি যে, আগামী রোববার বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের আপিল বিভাগে আবেদন করবেন যাতে মামলার শুনানির তারিখ তারা এগিয়ে আনেন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘গতকাল (বুধবার) প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বিচার বিভাগীয় তদন্তের কথা ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা হাইকোর্টের বিচারপতি খন্দকার দিলুরুজ্জামানকে দিয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি করেছি। এই প্রস্তাব প্রধান বিচারপতির কাছে যাবে। আমার বিশ্বাস তিনি এ প্রস্তাব রাখবেন।’


কোটা   সংস্কার   প্রয়োজন   সংসদ   আইন   পাস   জনপ্রশাসনমন্ত্রী  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

সাভারে এক কোটা আন্দোলনকারী নিহত

প্রকাশ: ০৫:১৬ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

ঢাকার সাভারে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় গুলিতে এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিকেল ৩ টা ৪০ মিনিটে নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এনাম মেডিকেলের ডিউটি ম্যানেজার ইউসুফ আলী। 

নিহত ওই শিক্ষার্থী ঢাকার মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ডিউটি ম্যানেজার ইউসুফ আলী বলেন, এখন পর্যন্ত একজনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার নাম ইয়ামিন। তিনি ঢাকার মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (এমআইএসটি) শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। এর বেশি তথ্য নেই।

তিনি আরও জানান, ‘নিহত শিক্ষার্থীর শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে। আহত আরও পাঁচজনকে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


জুলাই   এইচএসসি   পরীক্ষা   স্থগিত  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

‘কোটা আন্দোলনে নিহতের ঘটনা তদন্তপূর্বক ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে’

প্রকাশ: ০৫:১৬ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

কোটা আন্দোলনে নিহত হওয়ার প্রতিটি ঘটনা সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতি এ আহ্বান করা হয়।

বিবৃতি বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীদের চলমান কোটা বিষয়ক আন্দোলনের সার্বিক পরিস্থিতি জাতীয় মানবাধিকার কমিশন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। সৃষ্ট সংঘাতে কমিশন নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছে। পাশাপাশি, কমিশনের পক্ষ থেকে আহতদের সুষ্ঠু চিকিৎসার জন্য সরকারকে জোর আহ্বান জানানো হচ্ছে।   

বিবৃতিতে কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, সংঘাত নিরসনে সকল পক্ষের ধৈর্য, সহমর্মিতা ও সহনশীলতার পরিচয় দেয়া গুরুত্বপূর্ণ। যেকোনো ধরনের প্রাণহানি ও হতাহতের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত ও বেদনাদায়ক। প্রতিটি প্রাণ দেশ, জাতি ও পরিবারের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ক্ষেত্রে নিহত হওয়ার প্রতিটি ঘটনা সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি, নিহতদের পরিবারকে যথাযথ সহায়তার অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। কমিশন মনে করে, সকল শিক্ষার্থীর সুরক্ষা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ গুরুত্বপূর্ণ। 

একদিকে যেমন সর্বোচ্চ আদালতের চলমান কার্যক্রম ও আপাতত নির্দেশনা কোটা সংস্কার বিষয়ক উদ্ভূত সংকট নিরসনে একটি উজ্জ্বল সম্ভাবনার সৃষ্টি করছে, অন্যদিকে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর পারস্পরিক আলোচনা ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে একটি স্থায়িত্বশীল ও যৌক্তিক সমাধানের রূপরেখা প্রণয়ন গুরুত্বপূর্ণ। অবরোধ, সংঘর্ষ ও সহিংসতা পরিহারপূর্বক জনদুর্ভোগ নিরসনের মাধ্যমে জনজীবনে শান্তি ও শৃঙ্খলা আনয়ন এবং স্বাভাবিক জীবনযাত্রা পরিচালনে সহায়তা করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কমিশন আহ্বান জানাচ্ছে। কমিশন বিশ্বাস করে, সকল পক্ষের আন্তরিক ও সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় উদ্ভূত সমস্যার কাঙ্ক্ষিত সমাধান অচিরেই নিশ্চিত হবে।

কোটা আন্দোলন   জাতীয় মানবাধিকার কমিশন   ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

বিটিভিতে আগুন দিল আন্দোলনকারীরা

প্রকাশ: ০৫:০৪ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

রাজধানীর রামপুরায় বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) ক্যানটিন, রিসিপশন গাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে সঠিক তথ্য না প্রচার করা সরকারের পক্ষে নিউজ করার অভিযোগ তুলে হামলা চালায় আন্দোলনকারীরা।

বিটিভির ক্যান্টিন, রিসিপশন গাড়িতে আগুন দেয় তারা। বাড্ডায় চলে দফায় দফায় সংঘর্ষ।

এদিকে কোটা সংস্কারের দাবিতেকমপ্লিট শাটডাউনেরমধ্যে রাজধানীর মেরুল বাড্ডা, রামপুরা, বনশ্রী এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে আন্দোলনকারী ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে।  ঘটনায় শিক্ষার্থী-পুলিশসহ দুই শতাধিক আহত হয়েছেন।


বিটিভি   আগুন   দিল   আন্দোলনকারীরা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন